ব্রেকিং নিউজ
  মহালয়ার আগে কাটছে নিম্নচাপ দক্ষিণবঙ্গে, উত্তরবঙ্গের ৫ জেলায় ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা     অস্থায়ী কর্মীদের স্থায়ীকরণের দাবীতে দক্ষিণবঙ্গ রাষ্ট্রীয় পরিবহন সংস্থার বাঁকুড়া ডিপো ঘেরাও করে বিক্ষোভ     কুড়মিদের রেল অবরোধ আজ পঞ্চম দিন, পুরুলিয়া কুস্তাউর রেল স্টেশনে রেল ট্রাক এ বসে আন্দোলনকারীরা      ক্যানিংয়ে গাছ কাটার প্রতিবাদ করায় আক্রান্ত বৃদ্ধ দম্পতি     রোগী মৃত্যুকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা বারাসাতে এক বেসরকারি হাসপাতালে, মৃতদেহ ফেলে রেখে বিক্ষোভ পরিবারের  
Sarabjit-Singh-sister-Dalbir-Kaur-is-deceased
Dalbir Kaur: সরবজিৎ সিংয়ের দিদি দলবীর কৌর প্রয়াত

Post By : সিএন ওয়েবডেস্ক
Posted on :2022-06-26 16:57:53


সরবজিৎ সিংয়ের দিদি দলবীর কৌর প্রয়াত। হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে শনিবার শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। গুপ্তচর হিসেবে কাজ করার অভিযোগে ভারতীয় নাগরিক সরবজিৎকে ফাঁসির সাজা শুনিয়েছিল পাকিস্তানের আদালত। এক সর্বভারতীয় সংবাদ সংস্থা সূত্রে খবর, রবিবার সরবজিতের দিদি দলবীরের শেষকৃত্য সম্পন্ন হয় পঞ্জাবের বিখউন্ডে। 


জানা গিয়েছে, শনিবার রাতে আচমকাই দলবীরের বুকে ব্যথা শুরু হয়। তখনই তাঁকে নিকটবর্তী হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে রাত ১টা নাগাদ মৃত্যু হয় তাঁর। উল্লেখ্য, সন্ত্রাসবাদী সন্দেহে সরবজিৎকে গ্রেফতার করেছিল পাকিস্তান পুলিস। লাহোর বিস্ফোরণে সরবজিত যুক্ত ছিল বলে অভিযোগ আনে পাকিস্তান পুলিস। ১৯৯১ সালে প্রাণদণ্ডের নির্দেশ দেয় পাকিস্তানের আদালত। লাহোরে জেলে বন্দি সরবজিতের মুক্তির জন্য লড়াই করে ভারত সরকার। ২০০৮ সালে পাক-সরকার অনির্দিষ্টকালের জন্য সরবজিতের প্রাণদণ্ড স্থগিত রাখে। দলবীর নিজের ভাইকে বাঁচানোর জন্য একাই লড়াই করেছিলেন। পাকিস্তানেও গিয়েছিলেন। কিন্তু শেষ রক্ষা আর হয়নি। ২০১৩ সালে সরবজিতের উপর জেলে হামলা চালায় জেলেবন্দি কিছু আসামি। ওই বছর ২ মে লাহোর জেলেই মৃত্যু হয় তাঁর।

প্রসঙ্গত, পঞ্জাবের দরিদ্র পরিবার জন্মগ্রহণ করেছিলেন সরবজিৎ। তিনি মদ্যপ অবস্থায় পথভ্রষ্ট হয়ে পাকিস্তানের রেঞ্জার্সের হাতে গ্রেফতার হয়েছিলেন। প্রায় ছয় মাস পর্যন্ত তাঁর কোনও খোঁজ পাওয়া যায়নি। এক বছর পর তাঁর পরিবারের কাছে একটি চিঠি আসে. যেখানে লেখা ছিল, পাকিস্তান মনজিৎ সিং হিসেবে তাঁকে গ্রেফতার করেছে। তাঁর বিরুদ্ধে গুপ্তচরবৃত্তিরও অভিযোগ এনেছিল। পাশাপাশি তাঁর বিরুদ্ধে বিস্ফোরণের সঙ্গে যুক্ত থাকার অভিযোগ তুলে মৃত্যুদণ্ড দেয় পাকিস্তানের আদালত। উল্লেখ্য, পরে আসল মনজিৎ সিংকে গ্রেফতার করার পরেও সরবজিৎকে ছাড়া হয়নি।

দলবীর কৌর ২৩ বছর ধরে ভাইয়ের মুক্তির জন্য লড়াই চালিয়ে গিয়েছেন। তিনি বিশ্বাস করতেন না তাঁর ভাই কোনও খারাপ কাজের সঙ্গে যুক্ত থাকতে পারে। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে একটি ছবিও হয়। যেখানে মূখ্য ভূমিকায় দেখা যায় রণদ্বীপ হুডা এবং ঐশ্বর্য রায় বচ্চনকে।






All rights reserved © 2021 Calcutta News   Home | About | Career | Contact Us

এই সংক্রান্ত আরও পড়ুন