ব্রেকিং নিউজ
PM-Modi-addresses-in-G20-summit-at-Bali-Indonesia
G20: 'জ্বালানি সরবারহে নিষেধাজ্ঞা বরদাস্ত নয়', জি-২০ সামিটে বাইডেন-সুনকদের জানালেন মোদী

Post By : সিএন ওয়েবডেস্ক
Posted on :2022-11-15 17:27:40


ইন্দোনেশিয়ার বালিতে জি-২০ (G-20 Summit) সম্মেলনে মঙ্গলবার বক্তব্য রাখেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Narendra Modi)। এদিন তিনি জ্বালানি সরবরাহে রাশিয়ার (Russia) উপর থাকা আন্তর্জাতিক মঞ্চের নিষেধাজ্ঞা নিয়ে সরব হয়েছিলেন। প্রধানমন্ত্রী স্পষ্ট করেন, জ্বালানি সরবরাহের উপর কোনও আন্তর্জাতিক বিধিনিষেধে ভারতের সায় নেই। জ্বালানি (Fuel Crisis) চাহিদা মেটানোর অধিকার রয়েছে প্রতিটি দেশেরই। জ্বালানি নিরাপত্তা এবং ভারসাম্যের বিষয়টি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। শক্তি সরবরাহে কোনও বিধিনিষেধ ভারত সমর্থন করবে না।


ইতিমধ্যে পশ্চিমী দুনিয়া যখন ইউক্রেন যুদ্ধ পরিস্থিতিতে রাশিয়াকে বয়কট করেছে। তখন ভারত মস্কোর থেকে জ্বালানি আমদানি করে চলেছে। এই সিদ্ধান্তের জন্য আমেরিকা-সহ পশ্চিমী দুনিয়ার সমালোচনার মুখে পড়েছে নয়াদিল্লি। এই পরিস্থিতিতে আমেরিকার প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন, ব্রিটেনের সদ্য নিযুক্ত প্রধানমন্ত্রী ঋষি সুনকের উপস্থিতিতে মোদীর এই মন্তব্য ‘তাৎপর্যপূর্ণ’। এমনটাই মনে করছে আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিশেষজ্ঞরা।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, 'জলবায়ু পরিবর্তন, করোনা অতিমারি এবং ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে বিশ্ব জুড়ে সরবরাহ ব্যবস্থা ক্ষতিগ্রস্ত। গরিব মানুষের সঙ্কট বেড়েছে। এই পরিস্থিতিতে কোনও অবস্থাতেই সরবরাহ ব্যবস্থায় বিঘ্ন ঘটানো কাম্য নয়। ভারত বরবরাই বলে এসেছে, রাশিয়া ও ইউক্রেন আলোচনার টেবিলে বসে যুদ্ধে ইতি টানবে।'

পাশাপাশি জি-২০ মঞ্চ থেকে মঙ্গলবার রাষ্ট্রপুঞ্জের সংস্কারের প্রসঙ্গও তুলেছেন মোদী। বিশ্বযুদ্ধের পরিস্থিতি এখন নেই জানিয়ে নিরাপত্তা পরিষদের পুনর্গঠনের দাবি তোলেন তিনি। জানান, নিরাপত্তা পরিষদের স্থায়ী সদস্যপদ নিয়ে ভারতের দাবি বিবেচনার সময় এসেছে বলে তিনি মনে করেন।

মোদী বলেন, 'আমাদের সকলের উচিত, শান্তি-শৃঙ্খলা এবং নিরাপত্তার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থাগুলি যত দ্রুত সম্ভব কার্যকর করা। ইউক্রেনের যা পরিস্থিতি, তাতে আমাদের সকলের উচিত ছিল সেখানে যুদ্ধবিরতি এবং শান্তি স্থাপন নিয়ে নিয়ে কোনও সমাধানের পথ বের করা।'







All rights reserved © 2021 Calcutta News   Home | About | Career | Contact Us

এই সংক্রান্ত আরও পড়ুন