৩০ মে, ২০২৪

Murder: মা-স্ত্রীকে নগ্ন করে হাঁটানোর 'বদলা'! অভিযুক্তকে ১৫ বছর পর লখনউয়ে গুলি করে খুন
CN Webdesk      শেষ আপডেট: 2022-12-06 14:27:01   Share:   

১৫ বছর ধরে প্রতিশোধের আগুনে জ্বলছিলেন। অবশেষে আগুন নেভানোর সুযোগ পেয়ে গেলেন শামশের। এক ব্যক্তিকে শনিবার প্রকাশ্যে গুলি করে 'বদলা' নিলেন তিনি। ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের (Uttar Pradesh) লখনউয়ে (Lucknow)। ঠিক ১৫ বছর আগে কি এমন ঘটেছিল, যার জেরে এই খুনোখুনি?

জানা গিয়েছে, শিব যাদব ওরফে শামশের ঠিকাদারের কাজ করতেন। আর অভিযুক্ত রামজীবন লোধি ছিলেন একজন ব্লক উন্নয়ন পর্ষদের সদস্য। তাঁদের মধ্যে কর্মসূত্রে শত্রুতা তৈরি হয়। ২০০৭-এ সেই শত্রুতা চরমে পৌঁছয়। চোখের সামনে মা এবং স্ত্রীকে নগ্ন করে রাস্তায় হাঁটিয়েছিলেন অভিযুক্ত। সেই 'অপমানের' বদলা নিতে ১৫ বছর পর খুন করার অভিযোগ উঠল শামশেরের বিরুদ্ধে।

লখনউয়ের অতিরিক্ত ডেপুটি পুলিস কমিশনার চিরঞ্জীব নাথ এক সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, ২০০৭-এ একটি জমিকে কেন্দ্র করে দুই পরিবারের মধ্যে ঝগড়ার সূত্রপাত। শামশেরকে  'কড়া জবাব' দিতে তাঁর চোখের সামনে তাঁর মা এবং স্ত্রীকে নগ্ন করে রাস্তায় হাঁটানোর অভিযোগ ওঠে লোধির বিরুদ্ধে। ২৬ বছরের শামশেরের তখন নিরুপায় হয়ে দেখা ছাড়া অন্য কোনও উপায় ছিল না। সেই অপমানের বদলা নেওয়ার প্রতিজ্ঞা করেছিলেন শামশের এবং পরিবার নিয়ে অন্যত্র চলে যান তিনি।

শামশের ছেলের বয়স ১৫ হওয়ার অপেক্ষা করছিলেন। ১৫ নভেম্বর শামশেরের ছেলে পনেরোতে পা দেয়। ফলে ১৫ বছরের বদলার অপেক্ষার অবসান হয়। লোধির যাবতীয় গতিবিধির উপর বেশ কয়েকমাস ধরেই নজর রেখেছিলেন তিনি। অবশেষে শনিবার সেই সুযোগ এসেই গেল। এলাকার চৌধরি মহল্লার কাছে লোধিকে একা পেয়ে যান শামশের। তাঁকে লক্ষ্য করে পর পর তিনটি গুলি করেন শামশের। গুলি করার আগে লোধিকে ১৫ বছর আগের সেই ঘটনার কথা মনে করিয়ে দেন। লোধিকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা মৃত বলে ঘোষণা করেন।


Follow us on :