ব্রেকিং নিউজ
  ষষ্ঠীর সকালেই আগ্নেয় অস্ত্রসহ এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করে মুর্শিদাবাদের ডোমকল থানার পুলিস     ফের এবঙ্গে বৃষ্টির পূর্বাভাস, হতে পারে ভারী বৃষ্টিও  
trinamool-candidate-issued-a-divorce-notice-to-his-wife-in-a-dispute-over-the-candidature
South dumdum: দল আগে, প্রার্থীপদ নিয়ে বিবাদে স্ত্রীকে বিবাহ বিচ্ছেদের নোটিস তৃণমূল প্রার্থীর

Post By : সিএন ওয়েবডেস্ক
Posted on :2022-02-17 20:14:54


৩১ বছরের বিবাহিত জীবন এক লহমায় শেষ? পুরসভায় টিকিট না পাওয়ার কারণে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে বিবাদ। জল গড়াল বিবাহ বিচ্ছেদ পর্যন্ত। দক্ষিণ দমদম পুরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ডে তৃণমূলের পক্ষ থেকে দলীয়ভাবে প্রথমে ঘোষণা করা হয়েছিল রীতা রায়চৌধুরীর নাম। অন্যদিকে, পাশেই ১০ নম্বর ওয়ার্ডে তাঁর স্বামী সুরজিৎ রায়চৌধুরীর (ট্যাবলা) নাম ঘোষণা হয়েছে শাসকদলের পক্ষ থেকে। পরবর্তী সময় দেখা যায়, স্বামী সুরজিৎ রায়চৌধুরীর নাম তৃণমূলের টিকিটে থাকলেও ৯ নম্বর ওয়ার্ডে তার স্ত্রী রীতা রায়চৌধুরীর নাম বাদ গিয়েছে। সেখানে টুম্পা দাসের নাম তৃণমূলের পক্ষ থেকে ঘোষণা করা হয়েছে। তারপর থেকেই পারিবারিক বিবাদ শুরু হয় স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে। শেষ পর্যন্ত জল গড়ায় বিবাহ বিচ্ছেদের মামলায়।

ইতিমধ্যেই সুরজিৎ রায়চৌধুরী উকিল মারফত স্ত্রীকে বিবাহ বিচ্ছেদের নোটিস পাঠিয়েছেন। ইতিমধ্যেই এই ঘটনার পর স্বামী-স্ত্রী আলাদা থাকতেও নাকি শুরু করেছেন। সুরজিৎ রায়চৌধুরীকে ছেড়ে বাপের বাড়ি চলে গিয়েছেন রীতা রায়চৌধুরী। এই ঘটনায় তিনি সিদ্ধান্ত নিয়েছেন, নির্দল হয়ে লড়বেন। ইতিমধ্যে মনোনয়ন জমা দিয়ে দিয়েছেন জোড়াপাতার প্রতীক নিয়ে। গোটা ৯ নম্বর ওয়ার্ড জোড়াপাতার প্রতীক, ব্যানার, হোর্ডিং, দেওয়াল লেখায় ভরে গিয়েছে।

সূত্রের খবর, তৃণমূলের কোনওরকম দেওয়াল লিখন থেকে শুরু করে এমনকি পতাকা পর্যন্ত দেখতে পাওয়া যাচ্ছে না ওই ওয়ার্ডে। এমনকি নির্দল প্রার্থীর ব্যানারে লেখা আছে, প্রচারে ৯ নম্বর ওয়ার্ডের তৃণমূলস্তরের কর্মীবৃন্দ। এবিষয়ে ১০ নম্বর ওয়ার্ডের তৃণমূল প্রার্থী রীতা রায়চৌধুরীর স্বামী সুরজিৎ রায়চৌধুরী জানান, দল প্রথমে টিকিট দেবে বলে ঘোষণা করেছিল। তারপরে টিকিট বাতিল করেছে। তারপর থেকেই পারিবারিক অশান্তি শুরু হয়েছে সংসারে। শেষমেশ সিদ্ধান্ত নিই, দল আমার কাছে আগে। সেই কারণে বিবাহ বিচ্ছেদের নোটিস পাঠিয়েছি।

তিনি জানান  ১৯৯১ সালে ২৪ শে জানুয়ারি ভালোবেসে  বিয়ে করেছিলেন।  একটি কন্যা সন্তান আছে তাদের।  এবিষয়ে সুরজিৎ রায় চৌধুরীর স্ত্রী তথা নির্দল প্রার্থী রীতা রায় চৌধুরী জানান, পারিবারিক বিষয়ে তিনি কোনও মন্তব্য করতে চান না । যা বলার নির্বাচনের পরে বলবেন। তবে তিনি বিবাহবিচ্ছেদের নোটিস পাওয়ার কথা স্বীকার করে নেন।

অন্যদিকে তৃণমূল প্রার্থী টুম্পা দাসের খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে না। এই নিয়ে ওয়ার্ডের বাম সমর্থিত কংগ্রেস প্রার্থী সুস্মিতা বিশ্বাস শাসক দলকে কটাক্ষ করেন । রাজনীতির ময়দানে রাজনৈতিক কারনে বিবাহ বিচ্ছেদ বা সম্পর্কে ভাঙন নতুন নয়।  তবে সত্যিই কি  সম্পর্কে ভাঙছে?  উত্তর তোলা ভবিষ্যতের জন্য।






All rights reserved © 2021 Calcutta News   Home | About | Career | Contact Us

এই সংক্রান্ত আরও পড়ুন