০২ মার্চ, ২০২৪

Sandeshkhali: সন্দেশখালিকাণ্ডে ইডি অফিসারদের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নেওয়া যাবে না, নির্দেশ কলকাতা হাইকোর্টের
CN Webdesk      শেষ আপডেট: 2024-01-11 14:22:08   Share:   

সন্দেশখালির ঘটনায় হাইকোর্টের নির্দেশে সাময়িক স্বস্তিতে ইডি আধিকারিকরা। বৃহস্পতিবার অন্তর্বর্তীকালীন নির্দেশে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থাকে রক্ষাকবচ দিলেন বিচারপতি জয় সেনগুপ্ত। সন্দেশখালি ঘটনায় ইডি অফিসারদের বিরুদ্ধে সোমবার পর্যন্ত কোনও গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ নিতে পারবে না পুলিস, মৌখিকভাবে নির্দেশ বিচারপতি জয় সেনগুপ্তের। আগামী সোমবার এই মামলার পরবর্তী শুনানি।

রেশন বন্টন দুর্নীতির মামলায় তদন্তে গিয়ে ৫ জানুয়ারি সন্দেশখালিতে তৃণমূল নেতা শেখ শাহজাহানের বাড়িতে তাঁর অনুগামীদের হাতে আক্রান্ত ইডি। এই ঘটনায় পুলিসের পক্ষ থেকে দায়ের ২টি পৃথক মামলা। সন্দেশখালিতে ইডি আধিকারিকদের ওপর আক্রমণের ঘটনায় পুলিস এফআইআর দায়ের করে। বেশ কয়েকজনকে জামিন যোগ্য ধারায় গ্রেফতারও করে। পাশাপাশি স্থানীয় পুলিস প্রশাসনকে না জানিয়ে ইডি আধিকারিকদের তল্লাশি অভিযান চালানোর জন্য ইডির বিরুদ্ধেও পৃথক স্বতঃপ্রণোদিত মামলা রুজু করে। যদিও সেই মামলায় যে ধারা পুলিসের পক্ষ থেকে দেওয়া হয়েছে ইডি আধিকারিকদের বিরুদ্ধে, সেগুলো সবই জামিন অযোগ্য বলে সূত্রের খবর।

অভিযোগ, সন্দেশখালিতে তৃণমূল নেতার শেখ শাহজাহানের অনুগামীদের আক্রমণের ঘটনায় পুলিস নিরপেক্ষ পদক্ষেপ গ্রহণ করেনি। এছাড়াও ইডি আধিকারিকদের বিরুদ্ধে জামিন অযোগ্য ধারায় মামলার পাশাপাশি পুলিসের করা এফআইআরের কপি না দেওয়ার ঘটনায় কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট। এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতেই হাইকোর্টে রক্ষাকবচের আবেদন করে ইডি। গত মঙ্গলবার কলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চে এই সংক্রান্ত একটি জনস্বার্থ মামলাও দায়ের হয়েছিল। পাশাপাশি বিচারপতি জয় সেনগুপ্ত এবং বিচারপতি রাজাশেখর মান্থার এজলাসে পৃথক দুটি মামলা দায়ের হয় সন্দেশখালির ঘটনায়। ২০১৮-তে তৃণমূল নেতা শেখ শাহজাহানের বিরুদ্ধে তিনটি পৃথক খুনের মামলা রয়েছে, যা পুলিস এবং সিআইডি তদন্ত করছিল। সেই মামলাতেও সিবিআই তদন্ত চেয়ে কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ মৃতদের পরিবার।

বৃহস্পতিবার বিচারপতি জয় সেনগুপ্তের নির্দেশ, রাজ্য পুলিস, ইডি আধিকারিকদের বিরুদ্ধে কোনও আইনি পদক্ষেপ গ্রহণ করতে পারবে না। আগামী সোমবার রয়েছে মামলার পরবর্তী শুনানি। এই সময়ের মধ্যে ইডি আধিকারিকদের তলব করতে পারবে না পুলিস। পাশাপাশি তাঁদের বিরুদ্ধে কোনও আইনি পদক্ষেপও গ্রহণ করতে পারবে না পুলিস।


Follow us on :