ব্রেকিং নিউজ
  নাটাপুকুরে আগ্নেয়াস্ত্র, বোমা ও বোমা বাধার সরঞ্জাম উদ্ধারের ঘটনায় গ্রেফতার আইএফএস নেতা     ফের উলুবেড়িয়ায় জাতীয় সড়কে যান নিয়ন্ত্রণ করতে গিয়ে মৃত্যু এক সিভিক ভলেন্টিয়ারের     ফের শ্রমিক মৃত্যু দুর্গাপুর ইস্পাত কারখানায়     তাপমাত্রার পারদ সামান্য নামল বঙ্গে  
ed-wants-to-find-out-money-trailing-during-teachers-recruitment-scam-in-bengal
PMLA: 'পালিয়ে যায়নি, তাও কেন গ্রেফতার', কোর্টে সরব পার্থর আইনজীবী, 'অযথা হেনস্থা নয়', পাল্টা ইডি

Post By : সিএন ওয়েবডেস্ক
Posted on :2022-07-23 20:43:16


শনিবার ব্যাঙ্কশাল আদালতে সওয়াল-জবাব চলাকালীন পার্থর বাড়ি থেকে উদ্বার হওয়া সিজার লিস্ট জমা পড়ে আদালতে। তাঁর আইনজীবী দেবাশিষ সাহা বলেন, 'আমার মক্কেল বাড়িতেই ছিল এবং তদন্তে সাহায্য করেছে। তারপরেও সারা রাত জিজ্ঞাসাবাদের পর ভোরে গ্রেফতার করা হয়েছে। পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের বাড়িতে টাকা পাওয়া যায়নি। এমনকি, তাঁর বিরুদ্ধে সরাসরি টাকা নেওয়ার প্রমাণও নেই। পাল্টা ইডির আইনজীবী জানান, আর্থিক তছরূপের তদন্তে বারবার পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের নাম উঠে এসেছে। এমনকি তথ্য-প্রমাণও রয়েছে। আমরা তাই আগামী ১৪ দিন জেরা করতে চাই।

এই আবেদনের বিরোধিতা করা পার্থবাবুর আইনজীবী বলেন, কোর্টের নির্দেশে সিবিআই শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি মামলার তদন্ত করছে। মহামান্য আদালতের নির্দেশে পার্থবাবু দু'বার সিবিআইয়ের কাছে হাজিরা দিয়েছেন। তবে কোর্ট সিবিআইকে গ্রেফতার করার অনুমতি দেয়নি। এদিকে, রাজ্যের মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় বাড়ি থেকে কিছু কাগজ উদ্ধার করেছে ইডি। একজন দীর্ঘদিনের মন্ত্রীর বাড়ি থেকে ৪-৫ লক্ষ টাকাও উদ্ধার করতে পারেনি কেন্দ্রীয় সংস্থা। তাই আমার মক্কেলের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগের পিএমএলএ ধারায় মামলা কেন? মন্ত্রীর আইনজীবীর প্রশ্ন, 'এত কৌতূহল কীসের ইডির? আমার মক্কেল বয়স্ক, তাঁকে সারারাত জিজ্ঞাসা করে ভোররাতে গ্রেফতার করেছে। কেন্দ্রীয় তদন্তের কোনও কিছুর উল্লেখ সিজার লিস্টে নেই। টাকাও উদ্ধার হয়নি। পার্থ চট্টোপাধ্যায় কি পালিয়ে গিয়েছে?'

তাঁর সওয়াল, ২৪ শে মে মামলা রুজু। একবারও পার্থবাবুকে ডাকেনি ইডি। পাল্টা কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা বলেছে, 'সিবিআই তদন্ত করছে। পাশাপাশি আমরাও আর্থিক দুর্নীতিতে মামলা রুজু করে তদন্ত করছি। পার্থ চট্টোপাধ্যায় সঙ্গে একাধিক ব্যক্তির যোগাযোগ আছে। অর্পিতার মুখোপাধ্যায় থেকে ২১ কোটি ২০ লক্ষ টাকা উদ্ধার হয়েছে। পার্থ চট্টোপাধ্যায়য়ের সঙ্গে অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের নিয়মিত যোগাযোগ। তিনি জিজ্ঞাসাবাদে এ-ও জানিয়েছেন এই টাকার সঙ্গে অভিযুক্তদের সম্পর্ক আছে। সেই প্রমাণ মিলেছে।'


ইডির দাবি, 'তদন্ত দেখা গিয়েছে নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় কোটি কোটি টাকার লেনদেন হয়েছে। সেই অর্থ তছরূপের তদন্ত করার সাংবিধানিক ক্ষমতা আমাদের শীর্ষ আদালত দিয়েছে। যেখানে টাকা নয়ছয় হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে, সেখানে তদন্ত করে অভিযুক্তকে গ্রেফতার করতে পারি।'

পাশাপাশি ইডি আদালতকে জানিয়েছে, ১৪টি জায়গায় অভিযান চলেছে। মাত্র দুটি জায়গা সন্দেহজনক। সেখানে কিছু টাকা সরানো হয়েছে অর্পিতার ঘরে। এদিকে সরাসরি যোগাযোগ আছে পার্থ এবং অর্পিতার। টাকার মাধ্যমে প্রচুর সম্পত্তি কেনা হয়েছে। মূলত, অর্থ তছরূপ খুঁজে বের করার জন্য ধৃতের ১৪ দিনের হেফাজত চাইছি। কোনও তছরূপ না পেলে অযথা হেনস্থা করবো কেন?






All rights reserved © 2021 Calcutta News   Home | About | Career | Contact Us

এই সংক্রান্ত আরও পড়ুন