ব্রেকিং নিউজ
  Weather Update: বজ্রবিদ্যুৎ-সহ বৃষ্টির সম্ভাবনা বঙ্গে      Sourav-Wriddhi: বেহালা ছেড়ে ৪০ কোটির বাড়িতে সৌরভ, কিন্তু বাংলা ছাড়ছেন না ঋদ্ধি     Delhi Rain: ঝড়বৃষ্টিতে বিপর্যস্ত দিল্লি, বিদ্যুৎ-বিভ্রাট, ব্যাহত বিমান চলাচল     Monkeypox: মাঙ্কিপক্স নিয়ে ভারতকে সতর্ক করল হু     Lake Club: আজই খুলছে দুটি রোয়িং ক্লাব, তবে নিষেধাজ্ঞা রয়েছে, উঠছে সতর্কতা নিয়ে প্রশ্ন     Anubrata: এবার ভোট পরবর্তী হিংসা মামলায় মঙ্গলবার তলব অনুব্রতকে     Fire: মহেশতলায় গেঞ্জি কারখানায় বিধ্বংসী আগুন     SSC: ব্রাত্য বসুকে আজই তলব করলেন রাজ্যপাল     Market: ভোজ্যতেল, আলুর পর কি এবার ডালের দামও বাড়ছে? আশঙ্কায় সাধারণ মানুষ     Corona Update: দেশে সংক্রমণ এবং মৃত্যু নিম্নমুখী      Suicide: কিশোর ভারতী স্টেডিয়ামের পাশেই নিরাপত্তারক্ষীদের সুপারভাইজারের ঝুলন্ত দেহ     Ceremony: ৯৫ বছর বয়সে বৃদ্ধ খুঁজে নিলেন স্বপ্নের মহিলাকে, বাঁধলেন গাঁটছড়া     Arjun singh: আজ জেলা নেতৃত্বের সঙ্গে বৈঠক অর্জুনের, তৃণমূলে ফিরতে পারেন ছেলেও     Delhi: মাটিতে জাতীয় পতাকা পেতে নমাজ পাঠ! দিল্লির ঘটনায় তোলপাড় দেশ     Alipurduar: লক্ষ্মীর ভাণ্ডারের টাকা ঢুকছে পুরুষের অ্যাকাউন্টে!     Nabanna: আজ নবান্নে লোকায়ুক্ত বৈঠক, মমতার মুখোমুখি হচ্ছেন না শুভেন্দু     Switzerland: পর্বতমালার ঢালের ঘাসবন সাদা সুগন্ধি পেপার হোয়াইট নার্সিসাসে     Afghanistan: মহিলারা মুখ না ঢেকে খবর পড়লে পরিণতি ভালো হবে না, এবার হুঁশিয়ারি     Auto: পুলিসি হয়রানির প্রতিবাদ, উল্টোডাঙায় একযোগে সব রুটোর অটো বন্ধ     Ukraine: ধ্বংসের মাঝেও সৃষ্টি! খারকিভ পুনর্নির্মাণে উদ্যোগী ইউক্রেন প্রশাসন  
bag-committee-submits-report-in-calcutta-high-court-over-irregularities-in-ssc-group-d-recruitment
SSC: গ্রুপ ডি-র পর এবার গ্রুপ-সি নিয়োগেও দুর্নীতি পেল বাগ কমিটি, বিস্ফোরক রিপোর্ট হাইকোর্টকে


Post By : সিএন ওয়েবডেস্ক
Posted on :2022-05-13 13:41:20


এসএসসির (SSC Group-C) গ্রুপ-সি নিয়োগেও দুর্নীতির হদিশ দিল বিচারপতি বাগের কমিটি। শুক্রবার হাইকোর্টে (Calcutta High Court) সুব্রত তালুকদারের ডিভিশন বেঞ্চে জমা হওয়া এই রিপোর্টে কাঠগড়ায় তোলা হয়েছে শান্তিপ্রসাদ সিনহা এবং সৌমিত্র সরকারকে। প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের (Partha Chatterjee) তৈরি করা নিয়োগ কমিটিকে বেআইনি এবং ভুয়ো আখ্যা দেওয়া হয়েছে এই রিপোর্টে। অর্থাৎ গ্রুপ-সি নিয়োগ (Recruitment Scam) দুর্নীতিতে ফের নাম জড়াল রাজ্য মন্ত্রিসভার হেভিওয়েট সদস্য পার্থবাবুর। যাঁদের নাম বেআইনি নিয়োগে জড়িয়েছে, প্রত্যেকের নামে, শুধুমাত্র প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় ব্যতিক্রম, এফআইআর-এর সুপারিশ দিয়েছে বাগ কমিটি।

রিপোর্টে ঠিক কী বলা আছে? হাইকোর্টে জমা পড়া রিপোর্টে উল্লেখ, শান্তিপ্রসাদ সিনহার নির্দেশে পরীক্ষায় সফল না হয়েও পরীক্ষার্থীদের চাকরিতে নিযুক্ত করা হয়েছিল। বৈধ নিয়োগ হয়েছে শর্মিলা মিত্রর নেতৃত্বে। কিন্তু ডক্টর সৌমিত্র সরকার ও শান্তিপ্রসাদ সিনহা, প্যানেলের মেয়াদ উত্তীর্ণ হয়ে যাওয়ার পরও নিয়োগ করেছেন। সমরজিৎ আচার্য ও শান্তিপ্রসাদ সিনহা ৩৮১টি বেআইনি নিয়োগ করেছেন। রিপোর্টে বেআইনি নিয়োগে উঠে এসেছে অশোককুমার সাহার নামও।

বাগ কমিটির রিপোর্টের তাৎপর্যপূর্ণ পর্যবেক্ষণ, কল্যাণময় গঙ্গোপাধ্যায়ের নির্দেশে সই স্ক্যান করা হয়ছে। ২২০ জন লিখিত এবং পার্সোনালিটি টেস্ট পাশ করেননি। তাঁরাও সুপারিশপত্র পেয়েছেন।

বাগ কমিটির সুপারিশে শাস্তির পক্ষে সওয়াল করে বলা:

১) মে ২০১৯ সালে ৩৮১ জনকে বাতিল তালিকা থেকে চাকরি দেওয়া হয়েছে।

২) এস পি সিনহার স্বাক্ষর ছিল, ২৯ জন তালিকার বাইরে থেকে চাকরি পেয়েছেন।

৩) ডিসিপ্লিনারি অ্যাকশন অশোককুমার সাহা, এসপি সিনহার বিরুদ্ধে।

৪) ৩৮১ জনের নাম রেকমেন্ড করেছিলেন এসপি সিনহা ও সমরজিৎ আচার্য্য। তাঁদের বিরুদ্ধে ইন্ডিয়ান পেনাল আইনে তদন্ত হওয়া উচিত

৫) কল্যাণময় গাঙ্গুলি কেন রেকমেন্ড করেছিলেন, তাও কমিটির নজরে এসেছে। তাঁর বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলার তদন্ত হওয়া দরকার

মামলাকারীদের তরফে আইনজীবী বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্যের সওয়াল, 'দুটো রিপোর্ট বলছে গভীর ষড়যন্ত্র হয়েছে। গ্রুপ-ডি-তে আগে এই তদন্ত কমিটি বলেছে দুর্নীতি হয়ছে। এখন গ্রুপ-সি-তেও দুর্নীতি হয়েছে। সেটাও রিপোর্টে উল্লেখ রয়েছে। তাই এই নিয়োগ দুর্নীতিতে সিবিআই তদন্তের প্রয়োজন। না হলে, অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতির নেতৃত্বে স্বাধীন কমিটি তদন্ত করুক। রাজ্যের হাতে তো তদন্তভার ছিল। কিন্তু দেখা গেল রক্ষকই ভক্ষক। শুধু তো গ্রুপ সি বা গ্রুপ ডি নয়, এখন দেখা যাচ্ছে এসএসসি-র নিয়োগ পুরোটাই এই দুর্নীতি হয়েছে। এখানে প্রচুর টাকার খেলা সেটা প্রকাশ্যে আসা উচিত।'

যদিও এসকে সিনহার আইনজীবী সপ্তাংশু বসু বলেছেন, 'কমিটি তৈরি হলেও সেই কমিটির কোনও বৈঠক হয়নি। নিষ্ক্রিয় ছিল এই কমিটি, তাই এই নিয়োগ কমিটির বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ ভুল।' রাজ্য সরকারের তরফে পাল্টা সওয়াল করে বলা হয়েছে, সিবিআই তদন্তের দরকার নেই। কোর্টের তত্ত্বাবধানে সিট তদন্ত করুক। রাজ্য পুলিসের শীর্ষকর্তারা সিটের সদস্য হোক। যাঁদের বেআইনি নিয়োগ হয়েছে, তাঁদের খুঁজে বের করতে পারবে না কেন্দ্রের সংস্থা।

এদিন পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের আইনজীবী তাঁর মক্কেলকে এই মামলায় যুক্ত করতে আবেদন করেন ডিভিশন বেঞ্চে। স্কুল সার্ভিস কমিশনের আইনজীবী বলেছেন, এসএসসি তদন্তে সহযোগিতা করতে রাজি। তার আগে আমরা বাগ কমিটির রিপোর্ট খতিয়ে দেখতে চাই।

এই সওয়াল-জবাবের পর হাইকোর্ট সিবিআই তদন্তের উপর অন্তর্বর্তী স্থগিতাদেশের মেয়াদ বাড়িয়েছে ১৮ মে পর্যন্ত। সেদিন সম্ভবত এই মামলার রায় দেবে বিচারপতি তালুকদারের ডিভিশন বেঞ্চ।






All rights reserved © 2021 Calcutta News   Home | About | Career | Contact Us

এই সংক্রান্ত আরও পড়ুন