০৫ মার্চ, ২০২৪

Budget: মোদী সরকারের অন্তর্বর্তী বাজেটে কী কী ঘোষণার সম্ভাবনা, জানালেন অর্থনীতিবিদরা
CN Webdesk      শেষ আপডেট: 2024-01-31 20:15:35   Share:   

মানুষের মনে কুপ্রভাব পড়বে, এমন কোনও ঘোষণা মোদী সরকার বাজেট ঘোষণায় করবে না, মন্তব্য অর্থনীতিবিদ রতন খাসনবিশের। নির্বাচন মিটলে পূর্ণাঙ্গ বাজেটে বড় কোনও সংস্কারী সিদ্ধান্ত নিতে পারে। কিন্তু এই বাজেটে আগামী দিনে সরকারকে সেই দিশা দেখানো হতে পারে। আয়কর কাঠামো বদলানোর কোনও ভরসা এখনও পর্যন্ত দেননি নির্মলা সীতারমণ, এমনটাই বলছেন অর্থনীতিবিদ রতন খাসনবিশ। তিনি নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের মূল্যবৃদ্ধি নিয়েও উদ্বেগ প্রকাশ করেন। এই মূল্যহ্রাসে ডিজেলের মূল্য কমানোর পক্ষে সওয়াল করেন এই অর্থনীতিবিদ। এই মুহূর্তে বিশ্ববাজারে অপরিশোধিত তেলের দাম কম, সেই সুযোগের সদ্ব্যবহার করতে পারে মোদী সরকার, মন্তব্য অর্থনীতিবিদ রতন খাসনবিশের।

এটা যেহেতু অন্তর্বর্তীকালীন বাজেট, তাই বড় কোনও সিদ্ধান্ত থাকবে না। অর্থনীতিবিদ রতন খাসনবিশের সুরই শোনা গিয়েছে অর্থনীতিবিদ দীপঙ্কর দাশগুপ্তের গলায়। তিনি বলছেন, ২০২৩-২৪ বাজেটের তুলনায় খুব একটা বদল এই অন্তর্বর্তী বাজেটে আনবেন না অর্থমন্ত্রী।  তাঁর মত, জিডিপি বাড়ানোয় উদ্যোগ নিয়েছে মোদী সরকার। ভারতের পরপর দুই বছর জিডিপি বৃদ্ধির হার ৭ শতাংশ, যা বিশ্বের অনেক তাবড় দেশের জন্য ঈর্ষার কারণ। এই হার আরও বাড়াতে আগামী দিনে উত্পাদন শিল্পের দিকে হয়তো আরও বেশি নজর দেবে সরকার, মন্তব্য দীপঙ্কর দাশগুপ্তের।

অর্থনীতিবিদ তথা অধ্যাপক সুমন মুখোপাধ্যায় বলছেন, দেশের দেড়-দুই শতাংশ মানুষ করদাতা। তাই সেসব মানুষের প্রত্যাশার অন্যতম কর কাঠামোয় বদল। তাঁর দাবি, রাজস্ব ঘাটতি বাড়ছে, কৃষি বিল আইনে কার্যকর হলে কৃষিজীবীরা উপকৃত হতো। ফলে নিয়ন্ত্রিত হতো মূল্যবৃদ্ধি।

বিশ্বজুড়ে মন্দার বাজার। মার্কিন এবং ব্রিটিশ অর্থনীতি বৃদ্ধির মুখ দেখছে না। তার মধ্যে ইউরোপ আর এশিয়ায় চলছে যুদ্ধ।  কিন্তু এই যুদ্ধ ও আর্থিক মন্দার প্রভাব ভারতীয় অর্থনীতিতে পড়েনি। আর্থিক সমীক্ষাকারী সংস্থাগুলো ভারতীয় অর্থনীতির বৃদ্ধিকে কুর্নিশ জানিয়েছে। সিএন-কে এমনটাই জানালেন রায়গঞ্জ বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের প্রধান দেবাশিস বিশ্বাস।

অর্থনীতিবিদ অর্জিতা দত্তের দাবি, গত আর্থিক বছরে মাত্র ১.৬ শতাংশ মানুষ আয়কর দাতা হিসেবে নথিভুক্ত। ক্ষুদ্র শিল্পে উত্সাহ জোগাতে কেন্দ্র-রাজ্য একাধিক প্রকল্প নিয়েছে। ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের সুবিধার্থে জিএসটি কাঠামোর সীমা বাড়ানোর আবেদন করেন অর্থনীতিবিদ অর্জিতা দত্ত।

অন্তর্বর্তী বাজেট কী, ব্যাখ্যা করলেন অর্থনীতিবিদ অনির্বাণ দত্ত। তিনি বলেন, অন্তর্বর্তী বাজেট আগামী তিন-চার মাসের খরচ চালাতে ঘোষণা করা হয়। তবে পাঁচ বছর আগে ভোট অন অ্যাকাউন্টে সব ঘোষণা করা হয়েছিল। এই বাজেটেও সম্ভবত জনমোহিনী ঘোষণা থাকবে, অনুমান অনির্বাণ দত্তের।

পয়লা ফেব্রুয়ারি বাজেট বক্তৃতায় কোন দিশা দেখান অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ এখন সেদিকে তাকিয়ে আম আদমি।


Follow us on :