১৮ জুন, ২০২৪

AYAN: ঘুঘুর বাসা অফিস! ৩৭ ঘন্টা তল্লাশির পর ইডির হাতে গ্রেফতার শান্তনু ঘনিষ্ঠ অয়ন
CN Webdesk      শেষ আপডেট: 2023-03-20 13:01:02   Share:   

দীর্ঘ ৩৭ ঘন্টা তল্লাশির পর গ্রেফতার শান্তনু (SHANTANU) ঘনিষ্ঠ অয়ন শীল (AYAN Seal)। আজ স্বাস্থ্য পরীক্ষার পর, তাঁকে ব্যাঙ্কশাল কোর্টে তুলবে ইডি। কেন্দ্রীয় সংস্থা (Ed) নিয়োগ দুর্নীতির তদন্ত শুরু করতেই, একে একে সামনে এসেছে রথী-মহারথীদের নাম। ইডির হেফাজতের আছে অনেকে, এবার অয়নকে হেফাজতে নিলো ইডি। শনিবার শান্তনু যোগ পেয়ে, শান্তনু ঘনিষ্ঠ প্রোমোটার অয়ন শীলের বাড়িতে হানা দেয় ইডির একটি দল। শনিবার দুপুরের পর থেকেই অয়নের বাড়িতে, সল্টলেকের অফিসে তল্লাশি শুরু হয়। তল্লাশি করে প্রায় ৪০০ ওএমআর সিট-সহ প্রার্থীদের তালিকা, অ্যাডমিট কার্ড উদ্ধার করে ইডি। সেই সঙ্গেই তাঁকে জেরা করতে থাকে ইডির আরও একটি দল।

শনিবারের পাশাপাশি গোটা রবিবারজুড়ে চলে অয়নের বাড়ি, ফ্ল্যাট, অফিসে তল্লাশি। তল্লাশি চলাকালীন রবিবারই ইডির তরফে জানানো জন্য হয় যে, অয়নের সল্টলেকের অফিসই ছিল কুন্তলের কন্ট্রোল রুম। রবিবার তল্লাশির পর ইডির তরফে জানিয়ে দেওয়া হয়েছিল যে প্রায় ৫০-৬০ কোটি টাকার লেনদেনের  হিসেব খুঁজে পাওয়া গিয়েছে। পাশাপাশি এও জানানো হয়েছিল যে, ওই টাকার যে তালিকা সেই তালিকা টুকরো টুকরো করে ফেলে দেওয়া হয়েছিল। সেই তালিকা খুঁজে পেয়েছে ইডি। সেগুলোকেই পরীক্ষা করে দেখছেন বলে জানিয়েছিল ইডির আধিকারিকেরা। দীর্ঘ ৩৭ ঘন্টা চলে তল্লাশি।

এরপরে সোমবার সকালে গ্রেফতার করা হয় অয়ন শীলকে। অয়নের সঙ্গে বিভিন্ন পুরসভার চেয়ারম্যানের যোগাযোগের কথা আগেই প্রকাশ করেছিল সিএন। সেই সঙ্গে রবিবার তল্লাশি চলাকালীন ইডির তরফে জানানো হয় শুধু শিক্ষা দফতরে নয়, বিভিন্ন পুরসভা-সহ আরও বেআইনি নিয়োগে যুক্ত ছিল অয়ন ও শান্তনু। গোটা রাজ্যজুড়ে ছড়িয়েছিল তাঁদের এজেন্ট।  সেই এজেন্টদের তথ্য ইডির হাতে এসেছে বলে দাবি ইডি সূত্রে। সে সমস্ত নথি ও তথ্য খুঁটিয়ে পরীক্ষা করা হচ্ছে বলে খবর।


Follow us on :