০২ মার্চ, ২০২৪

Brigade: ১৬ বছর পর DYFI-এর ডাকে 'ইনসাফ' ব্রিগেড, শহর আজ লাল রঙে রঙিন
CN Webdesk      শেষ আপডেট: 2024-01-07 12:06:15   Share:   

৫০ দিনের ইনসাফ যাত্রার পর এবার ব্রিগেডে শক্তি প্রদর্শন করতে চলেছে সিপিএমের যুব সংগঠন। অধিকারের লড়াই লড়তে আজ মাঠে নেমেছেন তাঁরা। তাই মাংসভাত তাঁদের কাছে আতিশয্য। ডিমভাতেই পেট ভরিয়ে ব্রিগেডের ময়দানে নামবেন তাঁরা। কাতারে কাতারে বাম কর্মীরা সমাবেশে যোগ দিলেও সংখ্যাটা এই মুহূর্তে বলা মুশকিল। রাজ্যের প্রত্যেক জেলা থেকেই সমর্থকরা ইতিমধ্যে আসতে শুরু করেছেন বিগ্রেড ময়দানে। হাইভোল্টেজ লোকসভা ভোটের আগে, রাজ্য়জোড়া কর্মসূচিতে বিপুল সাড়া দেখে উচ্ছ্বসিত সিপিএম।

ফের একবার শহরের বুকে শোনা যাচ্ছে গণসঙ্গীত। শোনা যাচ্ছে 'ও আলোর পথ যাত্রী'। একেবারেই বদলে গিয়েছে শহরের চেহারা। দুপুর ১২টা থেকে ব্রিগেড শুরু হওয়ার কথা। বামেদের যুব সংগঠন ডিওয়াইএফআইয়ের ডাকে এই ব্রিগেড সমাবেশে। প্রায় ১৬ বছর পর ফের ব্রিগেডে সমাবেশ করছে সিপিআইএম-এর যুব সংগঠন ডিওয়াইএফআই। বলা চলে, ২০২৪-এর লোকসভা ভোটের পূর্বে এটি প্রথম ব্রিগেডে সমাবেশ। এবারের ব্রিগেডের ক্যাপ্টেন DYFI-র রাজ্য সম্পাদিকা মীনাক্ষী মুখোপাধ্যায়। ক্যাপ্টেনের বার্তা শুনতে হাজার হাজার যুব বাম সদস্য গতকাল অর্থাৎ শনিবার রাত থেকে আসতে শুরু করেছেন শহরে। গতকাল রাত থেকেই কলকাতা শহরে ভিড় করতে শুরু করেছেন বাম কর্মী সমর্থকরা। শহরের ৭টি পয়েন্ট থেকে মিছিল করে আসছেন দলীয় কর্মী সমর্থকরা।

ইনসাফ ব্রিগেড ব্যানার টাঙানো মূল মঞ্চটি দৈর্ঘ্যে ৩২ ফুট ও চওড়ায় ২৪ ফুট। দ্বি-স্তরীয় মূল মঞ্চে থাকবে চার ফুট বাই চার ফুটের রস্টাম। এখানেই বক্তব্য রাখবেন নেতা, নেত্রীরা। মূল মঞ্চের ডান দিক ও বাঁ দিকে দৈর্ঘ্যে ৪০ ফুট ও চওড়ায় ৪০ ফুটের দুটি আলাদা মঞ্চ থাকছে। এই মঞ্চ দুটিতে থাকবেন মৃত বাম কর্মীদের পরিবারের সদস্য ও পার্টি নেতৃত্ব। ব্রিগেডজুড়ে এবং আশেপাশের রাস্তায় লাগানো হচ্ছে ৬৫০ মাইক। এবারই প্রথম ব্রিগেডে মঞ্চ তৈরি হচ্ছে পার্ক স্ট্রিটের সামনে অর্থাৎ ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়ালের দিকে মুখ করে।  

শহর আজ অনেকদিন পর লাল রঙে রঙিন হয়ে গিয়েছে। ব্রিগেড প্যারেড ময়দানে ধীরে ধীরে ভরতে শুরু করেছে। দূর দূরান্ত থেকে বামফ্রন্টের কর্মী সমর্থকরা ভিড় করেছেন সমাবেশে। সকাল থেকে হাওড়া-শিয়ালহ স্টেশনের চেহারাটাই বদলে গিয়েছে। ট্রেন ভরে ভরে বাম কর্মী সমর্থকরা নামতে শুরু করেছেন। আজ একাধিক ট্রেন বাতিল রয়েছে। তাতে পরোয়া নেই যে ট্রেন পেয়েছেন সেই ট্রেনেই তাঁরা কলকাতায় এসে হাজির হয়েছেন। জেলা থেকে বাসে করেও কর্মী সমর্থকরা আসতে শুরু করেছেন। 



Follow us on :