৩০ মে, ২০২৪

Dengue: বিধাননগর পুর এলাকায় এবার ডেঙ্গিতে শিশুর মৃত্যু, পথে নেমে সচেতনতার বার্তা ফিরহাদের
CN Webdesk      শেষ আপডেট: 2022-11-09 15:24:42   Share:   

ফের ডেঙ্গিতে (dengue) আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু (death) ৮ বছরের এক নাবালিকার। সে বিধাননগর (Bidhannagar) পুরনিগমের ১৮ নং ওয়ার্ডের পূর্ব নারায়ণতলার বাসিন্দা। ঘটনায় একদিকে যেমন শোকের ছায়া গোটা এলাকায়, অন্যদিকে অভিযোগ ওঠেছে পুরসভার গাফিলতির।

স্থানীয় সূত্রে যেমনটা জানা গিয়েছে, নারায়ণতলার বাসিন্দা ঋত্বিকা সাউ বেশ কয়েকদিন ধরেই জ্বরে (fever) ভুগছিল। মঙ্গলবার তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তড়িঘড়ি বিসি আর শিশু হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানেই চিকিত্সা হচ্ছিল তার। তবে মাঝরাতেই হাসপাতাল থেকে পরিবারের কাছে খবর আসে ঋত্বিকার মৃত্যু হয়েছে। পরিবারের দাবি, ডেঙ্গিতে আক্রান্ত ছিল ছোট ঋত্বিকা। তার শরীরে এনএসওয়ান ভাইরাসের দেখা মিলেছিল।

তবে এমন ঘটনার পরই ক্ষুব্ধ স্থানীয়রা। স্থানীয়রা সরাসরি অভিযোগ করেছেন পুরসভার গাফিলতির। স্থানীয়দের অভিযোগ, এলাকায় কম পরিমাণে দেওয়া হয় ব্লিচিং অথবা মশার উপদ্রব থেকে বাঁচার অন্য সরঞ্জাম। আর দিলেও তার কোনও প্রভাব তাঁরা দেখতে পান না। সকাল থেকেই ঘরের দরজা জানলা বন্ধ করে রাখতে হয়। যেখানে ডেঙ্গি আক্রান্তে সংখ্যা হু-হু করে বাড়ছে সেখানে উদাসীন মনোভাব পুরসভার।

অন্যদিকে ১৮ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর এই বিষয়ে দুঃখপ্রকাশ করে জানান, তিনি যথা সম্ভব চেষ্টা করে যাচ্ছেন। তবে মৃত্যু বেদনাদায়ক। তিনি দুঃখিত, আগামীদিনেও তাঁর যা করণীয় তাই করবেন। 

অন্যদিকে এদিনই রাজপথে নেমে মানুষকে সচেতনতার বার্তা দেন মেয়র ফিরহাদ হাকিম (Firhad Hakim)। এদিন তিনি ভবানীপুরের (Bhabanipur) একাধিক এলাকায় ঘুরে ঘুরে মানুষকে বার্তা দেন। তিনি স্পষ্টতই বলেন, আগে মানুষকে সচেতন হতে হবে, শুধুমাত্র পুরসভার ভূমিকা যথেষ্ট নয়। এবছর মাত্রারিক্তভাবে ডেঙ্গির প্রভাব বেড়েছে তাই নিজস্ব উদ্যোগে মানুষকে এই রোগ মোকাবিলা করতে হবে। না হলে একা পুরসভার পক্ষ থেকে কখনই সম্ভব নয় এই রোগ মোকাবিলা করা। 


Follow us on :