০৫ অক্টোবর, ২০২৩

Pakistan: ইমরান খান এবং শেহবাজ শরিফের থেকেও তাঁদের স্ত্রীরা বেশি ধনকুবের!
CN Webdesk      শেষ আপডেট: ০৫ অক্টোবর, ২০২৩   Share:   

পাকিস্তানের বর্তমান পরিবর্তিত রাজনীতিতে চাঞ্চল্যকর তথ্য প্রকাশিত। পরিসংখ্যান অনুযায়ী, পাকিস্তানে বিশিষ্ট মন্ত্রীদের থেকে তাঁদের স্ত্রীরা নাকি বেশি সম্পদের মালিক। সম্প্রতি পাকিস্তান নির্বাচন কমিশন ৩০ জুন ২০২০-তে শেষ হওয়া অর্থবর্ষের সম্পদের বিবৃতি প্রকাশ করেছে। সেই পরিসংখ্যানে উল্লেখ, পাকিস্তানের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান পাকিস্তানি মুদ্রার হিসেব অনুযায়ী ২ লক্ষ টাকার মালিক। এছাড়া উত্তরাধিকার সূত্রেও তিনি বেশ কিছু সম্পত্তির অধিকারী। তবে দেশের বাইরে তিনি কোনও ধরনের সম্পদ ক্রয় করেননি। তিনি কোনও শিল্পক্ষেত্রে বিনিয়োগ করেননি। পাকিস্তানি বৈদেশিক মুদ্রা অ্যাকাউন্টে ৩,২৯,১৯৬ ডলার এবং ৫১৮-পাউন্ড স্টার্লিং ছাড়াও ৬০ মিলিয়নের বেশি অর্থ রয়েছে। অন্যদিকে তাঁর স্ত্রী বুশরা বিবি চারটি সম্পত্তির মালিক। তাঁর ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে ১৪২.১১ মিলিয়ন টাকা আছে। যা ইমরানের থেকেও বেশি।

পাকিস্তানের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেহবাজ শরিফ। তাঁর প্রথম স্ত্রী নুসরত শরিফও তাঁর থেকে বেশি সম্পত্তির মালিক। নুসরত শরিফের অর্থের পরিমাণ ২৩০.২৯ মিলিয়ন টাকা। তাঁর কৃষিভিত্তিক নয়টি সম্পত্তি রয়েছে। এছাড়াও লাহোর ও হাজারাতে প্রাসাদসম বাড়ি রয়েছে। বিভিন্ন শিল্পক্ষেত্রে তিনি বিনিয়োগ করেছেন বলে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম সূত্রে খবর।

তবে শেহবাজ শরিফের সম্পত্তির পরিমাণ ১৪১.৭৮ মিলিয়ন ডলার। পাকিস্তানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রানা সানাউল্লাহের ৯৮ মিলিয়ন মূল্যের ১৩টি সম্পত্তি রয়েছে। তাঁর ৭.৫ মিলিয়ন মূল্যের একটি গাড়ি রয়েছে। এছাড়াও ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে ১৬ মিলিয়ন টাকা রয়েছে। তাঁর স্ত্রীও বিপুল পরিমাণ সোনার মালিক। তাঁর স্ত্রীর কাছে ৫৮৩০ ক্যারেট সোনা রয়েছে। এই পরিসংখ্যান থেকে স্পষ্টভাবে প্রকাশিত পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীদের স্ত্রীরা তাঁদের থেকে অনেক বেশি অর্থের মালিক।


Follow us on :