ব্রেকিং নিউজ
premature-baby-guiness-book-of-world-records
World record: ২১ সপ্তাহেই পৃথিবীর আলো দেখে গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ড

Post By : সিএন ওয়েবডেস্ক
Posted on :2021-11-14 14:45:02


ওজন ৪২০ গ্রাম। বয়স মাত্র ২১ সপ্তাহ। ইতিমধ্যে এমন অস্বাভাবিক ঘটনার জেরে গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে নিজের জায়গা বানিয়ে নিয়েছে ছোট্ট কার্টিস জাই-কিথ মিনস। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বার্মিংহামের আলবামায় শিশুটির জন্ম। বর্তমানে তার বয়স ১৬ মাস।

উল্লেখ্য, বিশ্বের সবচেয়ে কম সময় মায়ের গর্ভে থাকা এবং বেঁচে যাওয়া শিশু হিসেবে রেকর্ডসে ঠাঁই নিয়েছে সে। কার্টিসের মা মিশেল চেলি বাটলারস গত বছরের ৪ জুলাই হাসপাতালে ভর্তি হন। প্রথমদিকে গর্ভকালীন কোনওরকম জটিলতা দেখা যায়নি তাঁর। কিন্তু পাঁচ মাসের মাথায় শারীরিক অবস্থার অবনতি হতে শুরু করে। হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার পরদিনই যমজ সন্তানের জন্ম দেন মিশেল চেলি। তার ঠিক একদিন পর মারা যায় একটি শিশু। 

ডাক্তারি হিসেব অনুযায়ী, কার্টিসের জন্মগ্রহণ করার কথা ছিল ১১ নভেম্বর। তবে নির্ধারিত সময়ের প্রায় ১৯ সপ্তাহ আগে ৫ জুলাই পৃথিবীর আলো দেখে কার্টিস। আর তারপরই শুরু হয় জীবন-মরণ লড়াই। 

চিকিৎসকরা জানান, এধরনের শিশুর বেঁচে থাকার সম্ভাবনা থাকে মাত্র এক শতাংশ। তাই একেবারেই আশাবাদী ছিলেন না চিকিৎসকরা। সবাইকে তাক লাগিয়ে দিয়ে আধুনিক চিকিৎসায় সাড়া দেয় কার্টিস। সময়ের সাথে সাথে বেড়েও ওঠে। শারীরিক বৃদ্ধিও ঘটে। কার্টিসকে রাখা হয়েছিল ভেন্টিলেশনে। তিন মাস পর তাকে ভেন্টিলেটর থেকে নরমাল বেডে দেওয়া হয়। হাসপাতালে ২৭৫ দিন থাকার পর অবশেষে নিজের বাড়ি যায় কার্টিস। তবে কার্টিসকে এখনও সাপ্লিমেন্ট অক্সিজেন সরবরাহ করতে হয়। খাবার খাওয়াতে হয় নলের মাধ্যমে। তবে কার্টিস এখন সুস্থ।  এমন ঘটনা সত্যি নজিরবিহীন। 

প্রসঙ্গত, কার্টিসের ঠিক এক মাস আগেই  'বিশ্বের সবচেয়ে প্রিম্যাচিওর' শিশু হিসেবে গিনেস বুকে জায়গা পেয়েছিল রিচার্ড হ্যাচিনসন। ২০২০ সালের ৫ জুন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের উইসকনসিনে জন্মগ্রহণ করে রিচার্ড। গর্ভ ধারণের ঠিক ২১ সপ্তাহ ২ দিনে জন্ম হয় তার।  আর কার্টিসের জন্ম হয়  গর্ভধারণের ২১ সপ্তাহ ১ দিনের মাথায়।







All rights reserved © 2021 Calcutta News   Home | About | Career | Contact Us

এই সংক্রান্ত আরও পড়ুন