ব্রেকিং নিউজ
cambodia-mourns-rat-death
rat: ইঁদুরের মৃত্যুতে রাষ্ট্রীয় শোক কম্বোডিয়ায়

Post By : সিএন ওয়েবডেস্ক
Posted on :2022-01-14 14:16:59


বিশ্বাস করানো মুশকিল কিন্তু এটাই বাস্তব যে একটি ইঁদুরের মৃত্যুতে শোকস্তব্ধ কম্বোডিয়া। আমরা ইঁদুরের সম্বন্ধে জানি যে কোথাও আগুন লাগলে প্রথম বুঝতে পারে ইঁদুর। লুকোনো আগুনের ঘ্রান পেলেই ইঁদুর বেরিয়ে আসে মানুষ বুঝতে পারে কোথাও আগুনে লেগেছে। এ ছাড়া গল্পে আছে একবার এক জ্বালে আটকে থাকা সিংহকে বাঁচিয়েছিলো এক ইঁদুর। তা ছাড়া টম এন্ড জেরির কার্টুনতো বাচ্চাদের বিশেষ আকর্ষণের কিন্তু সেসব তো গল্প ,বাস্তব নেই।

বাস্তবে ইঁদুর একটি অতি বিরক্তিকর প্রাণী ক্ষতি ছাড়া কোনও উপকারে আসে না। ইঁদুর কেউ বিজ্ঞানের কাজ ছাড়া কেউ পোষেও না। কিন্তু এই ইঁদুর বা মাগওয়া একটি দেশকে বারবার মাইনসের হাত থেকে বাঁচিয়েছে।

এই মাগওয়ার জন্ম আফ্রিকার তাঞ্জানিয়ায়। সেখান থেকে ট্রেনিং দিয়ে যুদ্ধের কাজে নামায় কম্বোডিয়া সরকার। কম্বোডিয়ায় এক সময়ে রাজতন্ত্র ছিল। শোনা যায় তাদের বিরুদ্ধে গেলেই প্রাণদণ্ড হতো। ১৯৭০ থেকে সেখানে কমিউনিস্ট আন্দোলন শুরু হয় এবং রাজাকে সরিয়ে ১৯৭৫ এ সমাজতন্ত্রের শাসন শুরু হয়। এরপর কম গৃহযুদ্ধ হয় নি, আমেরিকা এবং দক্ষিণপন্থীরা পুরোনো রাজতন্ত্রকে ফিরিয়ে আনার চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয়। ওই দেশে চাদর বেছানোর মতো মাইন বিছিয়ে রাখা হয়েছে বারম্বার। ৪০ হাজার মানুষের প্রাণ যায় ওই মাটিতে বিছানো মাইন। এই মাইনের গন্ধ পায় সাধারণত ইঁদুররা। কিন্তু যুদ্ধক্ষেত্রে ইঁদুরকে ব্যবহার করা হয়েছে খুবই কম। এই ইঁদুরকেই মাগওয়া নাম দেওয়া হয়।


এই কম্বোডিয়ার ইঁদুরটিকে সে দেশে নিয়ে আশা হয় ২০১৬ তে।  এরপর ইঁদুরটি বহু মাইন্ খুঁজে দিয়ে হাজার হাজার মানুষের প্রাণ বাঁচাতে সাহায্য করে। ইদানিং শরীর ভালো যাচ্ছিলো না তার। সৈনিকদের সঙ্গে খেলে তার দিন কাটছিলো।  এরপর ৮ বছর বয়সে সম্প্রতি তার মৃত্যু হয়। তার মৃত্যুতে সরকার থেকে সাধারণ মানুষ শোকাচ্ছন্ন হয় পরে।  রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় তার শেষকৃত্য সম্পন্ন হয়। দীর্ঘ ৫ বছর সে দেশকে সাহায্য করে । স্বর্ণপদক পায় তার বীরত্বে। স্মৃতিসৌধ তৈরি হচ্ছে তার নামে।






All rights reserved © 2021 Calcutta News   Home | About | Career | Contact Us

এই সংক্রান্ত আরও পড়ুন