ব্রেকিং নিউজ
  (15:40 PM)-ফের আগামি কাল গোয়া সফর করবেন অভিষেক বন্দোপাধ্যায়     (15:37 PM)-রাজ্য সরকারের সামাজিক প্রকল্পের জন্য ১০০০ কোটি টাকা ঋণ অনুমোদন করল বিশ্ব ব্যাঙ্ক     (14:19 PM)-কালিম্পং জেলার সামসিং ফাঁড়ির মণ্ডলগাও এবং খাসমহল গ্রামে ভল্লুকের আতঙ্ক      (14:17 PM)- বাঁকুড়ার গঙ্গাজলঘাটিতে হাতির দলের তাণ্ডব। জখম ও মৃত একাধিক গবাদিপশু      (14:15 PM)-বাসন্তীতে উদ্ধার চারটি বেআইনি আগ্নেয়াস্ত্র। ধৃত এক। এলাকায় চাঞ্চল্য      (14:14 PM)-অবৈধ গ্যাস সিলিন্ডার রাখার অভিযোগে মঙ্গলকোটে গ্রেপ্তার এক ব্যক্তি     (14:13 PM)-ডোমজুড়ে পাওয়ার হাউসে অগ্নিকাণ্ড। একটি স্পঞ্জ কারখানায় আগুন     (14:12 PM)-বোমা বিস্ফোরণে জখম তিন শিশু। বহরমপুরের টিকটিকিপাড়া এলাকার ঘটনা     (10:42 AM)-মুম্বাইয়ের বহুতলে সকাল ৭টা নাগাদ আগুন, মৃত ২, হাসপাতালে ভর্তি ১৫     (10:40 AM)-৫ বি তিলজলা রোডে এক প্রৌঢ়ের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার, প্রাথমিক ধারণা আত্মহত্য়া     (10:03 AM)-প্রয়াত প্রাক্তন ফুটবলার তথা কোচ সুভাষ ভৌমিক     (08:15 AM)-২৪ ঘণ্টায় দেশে আক্রান্তের সংখ্যা ৯৪,৭৭৪, সুস্থ ২,৫১,৭৭৭      (08:07 AM)-করোনায় মৃত ৩৫, সংক্রমণের হার কমে ১২.৫৮ শতাংশ      (08:06 AM)-গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে মোট করোনা আক্রান্ত ৯,১৫৪     (07:59 AM)-২২ থেকে ২৪ জানুয়ারি হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টির সম্ভাবনা     (07:58 AM)-পশ্চিমী ঝঞ্ঝার জেরে রাজ্য জুড়েই বৃষ্টির সম্ভাবনা  
kashmir-film-mithun-pallavi-vivek-release
Cinema: মিঠুন চক্রবর্তী, অনুপম খের ও পল্লবী যোশী অভিনীত 'দ্য কাশ্মীর ফাইল' মুক্তির প্রতীক্ষায়


Post By : সিএন ওয়েবডেস্ক
Posted on :2021-12-12 08:58:59


তাশখন্দ ফাইলস খ্যাত পরিচালক বিবেক অগ্নিহোত্রী বছর চারেক গবেষণা করে কাশ্মীরের পটভূমিকায় তাঁর পরবর্তী ছবি দ্য কাশ্মীর ফাইলের কাজ শেষ করেছেন। ছবিটি  প্রযোজনা করেছেন অভিনেত্রী পল্লবী যোশী। কিছুদিন আগে প্রযোজক, পরিচালক  ও মিঠুন চক্রবর্তী  মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে গিয়েছিলেন  এই ছবির প্রোমোশন উপলক্ষে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন শহরে প্রবাসী ভারতীয়রা দ্য কাশ্মীর ফাইল ছবিটির প্রদর্শন দেখে আবেগ বিহ্বল হয়ে পড়েন। ছবি প্রদর্শনের শেষে দর্শকরা উঠে দাঁড়িয়ে এই ছবির প্রযোজক, পরিচালক ও শিল্পীদের স্ট্যান্ডিং অবেশন জনিয়েছেন। এই ছবির পরিচালক বিবেক অগ্নিহোত্রী এক সাক্ষাৎকারে জনিয়েছেন, কাশ্মীরের পটভূমিকায় এই ধরনের ছবি ভারতবর্ষে আগে তৈরি হয়নি। সবাই কাশ্মীরকে সংঘর্ষপ্রবণ এলাকা মনে করে এড়িয়ে যান। কিন্তু এখানকার আসল  সমস্যাটা কেউ খোঁজার চেষ্টা করেন না। এই ছবিতে আমরা সেই সমস্যার প্রতি দৃষ্টিপাত করার চেষ্টা করেছি।

ছবির প্রোমোশন কেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রেই প্রথম করা হল? এই প্রশ্নের উত্তরে বিবেক এক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন, তাঁরা চেয়েছিলেন ভারতে মুক্তি পাওয়ার আগে গ্লোবাল লেভেলে ছবিটি প্রদর্শিত হোক। যাতে এই ছবির  মাধ্যমে আমেরিকার মানুষও কাশ্মীরের প্রকৃত সমস্যা সম্পর্কে খানিকটা অবগত হওয়ার সুযোগ পান।


বলিউডের মশলা ছবির দাপটের মাঝে এই ধরনের বাস্তববাদী চলচ্চিত্র প্রযোজনা করার সাহস কিভাবে দেখালেন পল্লবী ? এই প্রশ্নের উত্তরে এক সাক্ষাৎকারে পল্লবী জানিয়েছেন,     কাশ্মীরে বসবাসকারী কাশ্মীরি পন্ডিতদের উপর যে নির্মম অত্যাচার হয়েছে  এবং এই কারণে অত্যাচারিত কাশ্মীরি পন্ডিত সম্প্রদায় যেভাবে কাশ্মীর ছেড়ে চলে গিয়েছেন, তার উপর কেউ সেভাবে আলোকপাত করেননি। তাই আজ থেকে প্রায় বছর দুয়েক আগে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসকারী কাশ্মীরি পন্ডিত পরিবারের মধ্যে যাঁরা সরাসরি কাশ্মীরের গণ্ডগোলে ভীষণভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছিলেন, সেইসব মানুষের কাছে গিয়ে তাঁদের কাছ থেকে কাশ্মীরের ঘটনার হৃদয়বিদারক   কাহিনী শুনে সেগুলির সাক্ষাৎকার ভিত্তিক রেকর্ডিং করা হয়। পল্লবী জানান, একেক  দিনে তাঁরা চার-পাচজন কাশ্মীরি পন্ডিতদের সাক্ষাৎকার গ্রহণ করেন। এইসব সাক্ষাৎকারের হৃদয়বিদরক করুণ কাহিনী শুনে তাঁদের চোখের জল বাধ মানতে চায়নি। এইসব সত্যি ঘটনার থেকেই দ্য কাশ্মীর ফাইলের কাহিনী, চিত্রনাট্য রচিত হয়েছে।