ব্রেকিং নিউজ
golden-age-career-amitabh-bachchan
big b : কেরিয়ারের স্বর্ণ যুগে ডায়েট বা জিম কিছুই করেননি অমিতাভ বচ্চন

Post By : সিএন ওয়েবডেস্ক
Posted on :2022-01-14 15:22:15


বলিউডের বিগ বি যখন তার ফিল্মি ক্যারিয়ারের তুঙ্গে, যখন তিনি সারা ভারতের চলচ্চিত্র প্রেমীদের নয়নের মনি, সুপারস্টার অ্যাংরি ইয়াংম্যান অমিতাভ বচ্চন সেই সময় তিনি কোনদিন ডায়েট ও করেননি বা জিমেও যাননি। এক সাক্ষাত্কারে তিনি নিজেই সে কথা বলেছেন । বিগ বি বলেছেন যে তার অভিনয় জীবনের স্বর্ণ যুগে তিনি কোনোদিন নিয়মিত শরীর চর্চাও করেননি , আর ওনার  কোন ডায়েট প্ল্যান ও ছিল না। তার মতে এসব করবার প্রয়োজন ও হোতনা আর সময়ও ছিল না।  সেই সময় যখন যা মন চাইত তাই খেতেন।

বিগ বি তাঁর চাকরি জীবনের বেশ কয়েক বছর কলকাতায় কাটিয়েছেন। সেই ষাটের দশকে কলকাতার পার্ক স্ট্রিটের রেস্তরাঁ বিলাস ও নাইট লা ইফের খ্যাতি ছিল বিশ্বব্যাপী । যুবক অমিতাভ কলকাতার সেই স্বর্ণ যুগের সব আনন্দ চুটিয়ে উপভোগ করেছেন । সেই সময় শনি, রবিবারের সন্ধ্যায় তিনি যেমন বন্ধু বান্ধবদের সাথে পার্ক স্ট্রিটের ট্রিঙ্কাস ও ব্লুফক্সে যেতেন উষা আয়ার ( উত্থুপ), প্যাম ক্রেনের মনমাতানো ইংরেজি সঙ্গীতের টানে একই ভাবে বিখ্যাত ইতালিয়ান রেস্তরাঁ ফারফোস, কন্টিনেন্টাল রেস্তরাঁ মক্যাম্বো , স্কাইরুম , মুল্যাঁরুশ, গ্রেট ইস্টার্ন হোটেলের জিভে জল আনা কন্টিনেন্টাল খাবারের বিশেষ ভক্ত ছিলেন তিনি।

প্রন ককটেল, ফিশ মুনিয়ার, চিকেন সুপ্রিম বেলে হেলেন, চিকেন স্টেক, ফ্রায়েড ফিস এন্ড টার্টর সস, ভেটকি মেওনিজ, চিকেন ট্রেটরাজিনি, ফিশ ডায়না, পোচড ভেটকি লাইম বাটার সস, চিকেন কর্ডন ব্লু, লবস্টার থার্মিডোর, বেকড আলাস্কা, ক্যারামেল কাস্টার্ড, ব্ল্যাকফরেস্ট প্রভৃতি খাবার গুলির স্বাদ তারিয়ে তারিয়ে উপভোগ করতেন যুবক অমিতাভ । যার জন্য পৃথিবীর বিভিন্ন প্রান্তে চষে বেড়ালেও কলকাতার প্রতি ওনার একটা আলাদা টান আজও অটুট আছে।  তিনি সর্বদা সকলকে বলেন যে মন ঠিক না থাকলে কলকাতায় কাটিয়ে এসো, মন ভাল হয়ে যাবে।

যাই হোক ক্যারিয়ারের তুঙ্গে থাকার সময়ও অমিতাভ বম্বের বিভিন্ন বিখ্যাত হোটেল রেস্তরাঁর খাবার পছন্দ করতেন । বম্বে তাজ  মহল হোটেলের চকলেট পেস্ট্রি খুব পছন্দের ছিলো । এছাড়া তাজ প্রেসিডেন্ট হোটেলের ইতালিয়ান  রেস্তরাঁ  ট্রাটোরিয়ার ইতালিয়ান খাবার ও ওবেরয় টাওয়ার্সের ফ্রাঁঞ্জিপানি রেস্তরার কন্টিনেন্টাল খাবার ও চায়না গার্ডেনের চাইনিজ খাবার অমিতাভের খুবই প্রিয় ছিল।

তবে শারীরিক কারণে অমিতাভ অনেক দিন থেকেই নিরামিষাশি। বেশ কয়েক বছর যাবত ঘরের তৈরি ফুলকা , ঘি দেওয়া বাজরার রুটি, ডাল ,পনিরের তরকারি ,ভিন্ডি মশলা , রাজমা মশালা ,চিনি দিয়ে ঘরে পাতা টক দই,ইডলি, সম্বর, কখনো নিরমিষ বাঙালি সব্জি ও তিনি খেয়ে থাকেন । বেশ কয়েকদিন যাবত ওনার লিভারের অবস্থা ভাল না হয়ায় এখন খুবই নিয়ম মেনে খুবই কম খাওয়া দাওয়া করে থাকেন। আর প্রথম জীবনে জিমে না গেলেও বেশ কয়েক বছর যাবত অমিতাভ নিয়মিত জিমে যান এবং নিয়ম করে যোগাসন করেন । সকালে মর্নিং ওয়াক ও করেন। এই বয়েসে ও তিনি নিয়মিত কাজ করে চলেছেন । নিয়ম করে ব্লগ লেখেন  এবং নানান কর্ম কাণ্ডের সাথে নিজেকে জড়িয়ে রেখেছেন । এই সত্তর উর্দ্ধ বয়েসেও ফিটনেসের ক্ষেত্রে অমিতাভ তার অনেক হাটুর বয়সি নায়কদের ও পিছনে ফেলে দিয়ে থাকেন।






All rights reserved © 2021 Calcutta News   Home | About | Career | Contact Us

এই সংক্রান্ত আরও পড়ুন