ব্রেকিং নিউজ
  বেপরোয়া ট্রাক্টরের ধাক্কায় মৃত সাইকেল আরোহী, উত্তেজনা দুর্গাপুরে     মধ্যরাতে ডোমজুড়ের একটি লরির গ্যারেজে হঠাৎ অগ্নিকাণ্ড, আতঙ্ক     ভাটাপাড়ায় এক স্বর্ণ ব্যবসায়ীকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে খুনের চেষ্টার অভিযোগ দুই দুষ্কৃতীর বিরুদ্ধে     বৌভাতের অনুষ্ঠান থেকে ফেরার পথে খড়্গপুরে দুর্ঘটনার কবলে যাত্রী বোঝাই বাস! গুরুতর আহত ১০ জন  
Sajid-Khan-shares-his-bad-patch-in-Big-Boss-16-what-is-this
Big Boss: দুঃসময়ে অর্থ সাহায্য করেছিলেন সেলিম খান! বিগ বসের ঘরে বসে অকপট সাজিদ খান

Post By : সিএন ওয়েবডেস্ক
Posted on :2022-11-24 14:43:09


ঝগড়া, বন্ধুত্ব,ভালোবাসায় জমে উঠেছে জনপ্রিয় রিয়্যালিটি শো ‘বিগ বস' সিজন-১৬ (Bigg Boss 16)। প্রত্যেকদিনই ঘটেছে নতুন নতুন কিছু। এককথায় প্রতিটি পর্বই নাটকীয় মোড়ে ভরা। সম্প্রতি বুধবারের পর্বে সাজিদ খান (Sajid Khan) এবং অর্চনা গৌতমেরে (Archana Gautam) বচসা দেখতে পেয়েছেন সকলে। হাইপার হয়ে পড়েছিলেন সাজিদ। এমনকি সাজিদ অন্ন মুখে নেবেন না বলে গোঁ ধরে বসেন। বিগ বস ও সঞ্চালক সলমন খানের কাছে ঝামেলার মীমাংসা দাবি করেন। বাকি বিগ বস প্রতিযোগীরা তাঁকে বোঝানোর  চেষ্টা করেন। কিন্তু তিনি তাঁর সিদ্ধান্ত থেকে এক পাও নড়েননি। কি এমন হয়েছিল?

বেশ কয়েকটি পর্বে দেখা যাচ্ছিল, অর্চনা ও সাজিদের সম্পর্ক ক্রমশ খারাপ হচ্ছে। কেউই কাউকে ছাড়তে নারাজ। এদিন তাঁদের মধ্যে ঝামেলা বাধে। নিজেদের মধ্যে ঝগড়া করতে করতে বাবা-মাকেও টেনে আনলেন দুই প্রতিযোগী। অর্চনা সাজিদের বাবার প্রসঙ্গ টানতেই রাগে ফেটে পড়েন তিনি। চিৎকার করতে থাকেন সাজিদ। বিগ বস তাঁকে চিকিৎসার কক্ষে যেতে বললেও সাজিদ যেতে রাজি হননি। অর্চনা যে অভিযোগ করেছেন, তা মিথ্যা। সে কথা সলমন খান না বলা অবধি তিনি শান্ত হবেন না বলে জানান।

এরপরে সাজিদ ইমোশনাল হয়ে পড়েন। কাঁদতে কাঁদতে বাবার কথা বলতে থাকেন তাঁর  বিগবস বন্ধুদের। অতীতের দুর্দিনের কথা শেয়ার করে নেন। তাঁর কথায়, “বাবা যখন চলে গিয়েছিল, আমার ১৪ বছর বয়স। আত্মীয়দের বাড়ি বাড়ি গিয়ে আর্থিক সাহায্য চেয়েছি, কিন্তু আমায় ফিরিয়ে দেওয়া হয়েছে। পরিচারককে দিয়ে বলে পাঠিয়েছে, তাঁরা বাড়ি নেই। আমি চলে এসেছি কাঁদতে কাঁদতে, কী করব বুঝতে পারছিলাম না। আমার মায়ের তরফের আত্মীয়রা সাহায্য করেছিল। তাতেই শেষবিদায় দিতে পেরেছিলাম বাবাকে।”

সাজিদ আরও বলেন, “চোখের সামনে বাবাকে শেষ হয়ে যেতে দেখেছি অতিরিক্ত মদ খাওয়ার জন্য। যকৃৎ ফেটে গিয়েছিল বাবার। চোখ-মুখ দিয়ে রক্ত বেরিয়ে আসছিল। যিনি একমাত্র সে সময় পাশে দাঁড়িয়েছিলেন, তিনি সলমন খানের বাবা, সেলিম।”

সাজিদ বলেন, সে দুঃসময়ে  সেলিম খান তাঁদের কিছু টাকা দিয়ে উপকার করেছিলেন। সেই টাকায়  দু’মাস খাবার কেনেন আর বিদ্যুতের বিল মেটান তিনি। সাজিদের অবস্থা দেখে ভয় পেয়ে যান বাকি বিগবস প্রতিযোগীরা।






All rights reserved © 2021 Calcutta News   Home | About | Career | Contact Us

এই সংক্রান্ত আরও পড়ুন