ব্রেকিং নিউজ
   বাজা কদমতলা ঘাটে উদ্ধার অজ্ঞাত পরিচয়ের দেহ     মাল নদীতে হড়পা বানে ভেসে গেল বহু মানুষ, এখনও পর্যন্ত মৃত ৮  
Farhan-Akhtars-production-house-is-alleged-for-not-paying-remuneration-to-workers
Farhan Akhtar: দীর্ঘ সময় কাজ করিয়ে বেতন না দেওয়ার গুরুতর অভিযোগে বিদ্ধ ফারহান আখতার

Post By : সিএন ওয়েবডেস্ক
Posted on :2022-08-24 15:32:16


বিতর্কের মুখে ফারহান আখতার (Farhan Akhtar) এবং রিতেশ সিধওয়ানির (Ritesh Sidhwani) প্রযোজনা সংস্থা এক্সেল এন্টারটেইনমেন্ট। তাঁদের প্রযোজনা সংস্থার বিরুদ্ধে বকেয়া টাকা পরিশোধ না করার অভিযোগ উঠেছে। বিষয়টা কী? তাঁদের জনপ্রিয় শো ‘মির্জাপুর ৩’(Mirzapur 3)-এ কাজ চলছে। সেখানে যাঁরা দৈনিক মজুরি কর্মী হিসেবে কাজ করছেন, তাঁদের ২০-২৫ লক্ষ টাকা পরিশোধ না করার অভিযোগ রয়েছে এই দুজনের বিরুদ্ধে।

ফিল্ম স্টুডিও সেটিং অ্যান্ড অ্যালাইড মজদুর ইউনিয়ন (FSSAMU) দাবি করেছে যে প্রোডাকশন হাউস শ্রমিকদের ক্রমাগত নিয়োগ অব্যাহত রেখেছে। কিন্তু চলতি বছর মে মাস থেকে কোনও মজুরি দেওয়া হয়নি।

ফারহান এবং রিতেশের প্রযোজনা সংস্থাকে অভিযুক্ত করে এফএসএসএএমইউ-এর চিঠিতে বলা হয়েছে, 'শ্রমিকদের শ্রম আইনের বিধান অনুসারে অনুমোদিত সীমার বাইরে বর্ধিত ঘন্টার জন্য কাজ করতে বাধ্য করা হয়েছিল।' এফএসএসএএমইউ-এর সাধারণ সম্পাদক গঙ্গেশ্বরলাল শ্রীবাস্তব দাবি করেছেন যে, তাঁরা এই চিঠিটি প্রকাশ্যে আনার পরে, প্রোডাকশন হাউস ৪৮ ঘন্টার মধ্যে বকেয়া নিষ্পত্তি করার কথা জানিয়েছে।

এছাড়াও ওই চিঠিতে অভিযোগ করা হয়েছে যে, কর্মীদের ভাল মানের খাবার বা বসার জায়গা কিছুই দেওয়া হয়নি। ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদকের দাবি, 'এই অভিযোগের কথা জানিয়ে তাঁরা ইতিমধ্যেই এক্সেল এন্টারটেনমেন্টকে তিনটি চিঠি পাঠিয়েছেন।' তিনি আরও বলেন, 'মে মাস থেকে 'মির্জাপুর ৩' সেটে ৩০০ মজুরি শ্রমিক কাজ করছেন এবং তিন মাসের বেশি সময় হয়ে গেলেও কোনও বেতন পাননি।' অভিযোগ, 'সংস্থার তরফে চিঠির কোনও উত্তর দেওয়া হয়নি। তবে মিডিয়ায় খবর ছড়িয়ে পড়তেই সংস্থার তরফে যোগাযোগ করা হয় ও আগামী ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে সমস্ত বাকি বেতন মেটানোর প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছে।'

অন্যদিকে 'এক্সেল এন্টারটেনমেন্ট'-এর তরফে বলা হয়েছে যে, 'ইউনিয়নের পক্ষ থেকে উত্থাপিত এমন অভিযোগের বিষয়ে এই প্রথম আমাদের সচেতন করা হচ্ছে। তবে বলে রাখি যে FSSAMU-র তরফে কোনও চিঠি, ই-মেল বা ফোন কল পায়নি। এক্সেলের বর্তমানে সাত থেকে আটটি প্রজেক্ট রয়েছে এবং এইগুলির কোনওটিতেই বেতন সংক্রান্ত কোনও সমস্যা নেই। বিগত ২২ বছর ধরে আমরা ব্যবসায় আছি, আমরা কখনও এমন অভিযোগ পাইনি।'






All rights reserved © 2021 Calcutta News   Home | About | Career | Contact Us

এই সংক্রান্ত আরও পড়ুন