মুখেই তর্জন, চিনের অ্যাকাউন্টে রয়েছে ট্রাম্পের টাকা

0

চিনের বিরুদ্ধে যতই হম্বিতম্বি করুন, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের অ্যাকাউন্ট রয়েছে চিনা ব্যাঙ্কে। তিনি চিনে ব্যবসাপত্র চালাচ্ছেন। এই খবর জানিয়েছে নিউইয়র্ক টাইমস। এই অ্যাকাউন্টটি নিয়ন্ত্রণ করে ট্রাম্প ইন্টারন্যাশনাল হোটেলস ম্যানেজমেন্ট। তারা ২০১৩ থেকে ২০১৫ সালে চিনে স্থানীয় করও দিয়েছে। ট্রাম্পের এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, এশিয়ায় হোটেল ব্যবসার সম্ভাবনা খতিয়ে দেখতেই ওই কোম্পানি তৈরি হয়েছে। ট্রাম্প চিনে আমেরিকান কোম্পানিগুলির ব্যবসা করা নিয়ে সমালোচনা করছেন। দুই দেশের মধ্যে বাণিজ্য যুদ্ধও চলছে। ট্রাম্পের ব্যক্তিগত ও ব্যবসায়িক ট্যাক্সের রেকর্ড খতিয়ে দেখে নিউইয়র্ক টাইমস এই তথ্য দিয়েছে।

তাতে দেখা যাচ্ছে, চিনা অ্যাকাউন্ট থেকে তাঁর কোম্পানি ১,৮৮,৫৬১ ডলার স্থানীয় কর দিয়েছে। উল্লেখ্য, ট্রাম্প তাঁর প্রতিদ্বন্দ্বী জো বাইডেনের ছেলে হান্টারের চিনের সঙ্গে কথিত লেনদেন নিয়ে সোচ্চার। যদিও এই অভিযোগের কোনও প্রমাণ মেলেনি। ট্রাম্পের তরফে অবশ্য নিউইয়র্ক টাইমসের এই তথ্য উড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। ২০১৫ সাল থেকে তাঁদের চিনের অফিস বন্ধ। যদিও ওই সংবাদপত্র দেখিয়েছে, ট্রাম্প চিনে জমি কেনাবেচার ব্যবসার দিকে নজর দিয়েছিলেন। সাংহাইয়ে অফিস খোলার পর থেকেই এই কাজ বেড়ে গিয়েছে। চিনের প্রকল্পের জন্য পাঁচটি ছোট কোম্পানিকে তিনি ১,৯২,০০০ ডলার লগ্নিও করেছেন।