সঙ্কট কোমরবিটি ও ঠান্ডায়

0

করোনা সংক্রমণ অনেকটাই কমলেও এখনও ভারতে প্রবল দাপট। তবে সাড়ে ছ’মাসে কি শক্তি কমেছে? বিশেষজ্ঞরা বলছেন, তা ঠিক নয়। কিন্তু তৃতীয় বিশ্বের মানুষের গড় অভ্যন্তরীণ শক্তি অনেকটা বেশি বলেই মৃত্যুর হার কম। অনেকেই বুঝতেই পারেননি যে তাঁর শরীরে ভাইরাস প্রবেশ করেছে। এখানেই বিজ্ঞানীরা বলছেন, শীত আসছে। এই শীতেই জন্ম করোনা ভাইরাসের এবং এই সময়ে শক্তি বৃদ্ধি করবে ভাইরাস। যে ভয়টা করছে শীত প্রধান দেশগুলো। ভয় আছে উত্তর ও মধ্য ভারতেও|

পাশাপাশি কোমরবিটি এক মহা সমস্যা। দেখা যাচ্ছে প্রণব মুখোপাধ্যায় থেকে তমোনাশ ঘোষ মারা যাচ্ছেন এই কোমরবিটিতে অর্থাৎ শরীরে অন্য রোগ যথা রক্তচাপ,সুগার,COPD ইত্যাদি রোগ থাকলে স্টেরোয়েড ওষুধের প্রভাবে ওই রোগগুলি বেড়ে মৃত্যুর দিকে নিয়ে যাচ্ছে। একই সমস্যা হয়েছে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় বা এই ধরনের রুগীদের। অথচ ১০১ বছরের হীরেন বন্দ্যোপাধ্যায় নীরোগ বলে করোনা তাঁকে কাহিল করতে পারেনি। সুতরাং শীত ও কোমরবিটির রুগীদের সতর্ক হতেই হবে।