Breaking News
Dengue: ডেঞ্জার 'ডেঙ্গি' রুখতে হটস্পট, বিশেষ ব্যবস্থা স্বাস্থ্য ভবনেরও      Raghav-Parineeti: বর-কনে সাজে রাঘব-পরিণীতি, প্রকাশ্যে 'রাঘনীতি'-র রূপকথার বিয়ের ছবি      Dengue: ডেঙ্গি কিন্তু ডেঞ্জারাস...      India: ৪০০ রানের টার্গেট, শ্রেয়স-গিলের জোড়া সেঞ্চুরিতে পাহাড় সমান রান ভারতের      Resignation: মানসিক চাপ সৃষ্টি করছে টিএমসিপি! অভিযোগ তুলে ইস্তফার ইচ্ছাপ্রকাশ অধ্যক্ষর      Mamata: 'অনেক কাজ করতে পেরেছি...' স্পেন থেকে কলকাতায় ফিরে জানালেন মমতা      Senior Citizen: কেউ আতঙ্কে, কেউ আবার দিব্যি আছেন, শহর কলকাতায় কেমন আছেন একাকী বয়স্করা?      cctv: ঘুমের ব্যাঘাত হওয়ায় মারধর! সিসিটিভি ফুটেজ দেখে গ্রেফতার বৃদ্ধার পরিচারিকা      Mamata: 'বাংলায় বিনিয়োগ করলে...' দুবাইয়ের মঞ্চ থেকে বিনিয়কারীদের পথ দেখালেন মমতা      Parineeti-Raghav:শনিবার সকাল ১০টা বাজতেই শুরু হল পরিণীতি-রাঘবের বিয়ের অনুষ্ঠান     

Encounter

UP: মহিলা কনস্টেবলকে আক্রমণের ঘটনায় অভিযুক্তকে এনকাউন্টার করে নিকেশ করল পুলিস

চলন্ত ট্রেনে মহিলা কনস্টেবলকে আক্রমণ। অভিযুক্তকে এনকাউন্টার (Encounter) করে নিকেশ করল উত্তরপ্রদেশ (Uttar Pradesh) পুলিস (Police)। অভিযুক্তের দুই সঙ্গী এখনও চিকিৎসাধীন। জানা গিয়েছে, গত ৩০ শে অগাস্ট সরযূ এক্সপ্রেসে অচৈতন্য অবস্থায় উদ্ধার করে হয়েছিল ওই মহিলা পুলিস কর্মীর দেহ। গুরুতর অবস্থায় এখনও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন তিনি। অভিযুক্তের খোঁজ পেয়েই এনকাউন্টার করে পুলিস।

উত্তরপ্রদেশ পুলিস সূত্রে জানা গিয়েছে, মহিলা কনস্টেবলকে আক্রমণের ঘটনায় মূল অভিযুক্তের নাম আনিস। শুক্রবার সকালে পুলিসের সঙ্গে গুলির লড়াইয়ে জড়িয়ে পড়ে আনিস ও তার দুই সঙ্গী। পুলিসের গুলি লেগে গুরুতর আহত হন আনিস। পরে তার মৃত্যু হয়। আনিসের দুই সঙ্গী আজাদ খান ও বিশ্বম্ভর দয়ালও গুলিবিদ্ধ হয়েছে। তবে পরে তাদের গ্রেফতার করা হয়েছে। সেই সঙ্গে উত্তরপ্রদেশ পুলিসের এক কর্মী রতন শর্মাও আহত হয়েছেন এনকাউন্টার চলাকালীন।

প্রসঙ্গত, ৩০ অগাস্ট অযোধ্যা স্টেশনে সরযূ এক্সপ্রেসের কামরা থেকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করা হয় এক মহিলা কনস্টেবলকে। ধারা্লো অস্ত্র দিয়ে তাঁর মুখ কোপানো হয়েছিল। সেই সঙ্গে মারধর করে ভেঙে দেওয়া হয় মাথার খুলিও। গুরুতর অবস্থায় ওই পুলিসকর্মীকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এখনও লখনউয়ের হাসপাতালে চিকিৎসা চলছে তাঁর।

3 days ago
Terrorist: ফের ভারতে পাক জঙ্গির হানা! অনুপ্রবেশের সময় গুলিতে নিহত ১ ও আহত ১

২৪ ঘণ্টার মধ্যেই দু'বার সাফল্য পেল নিরাপত্তা বাহিনী। কুপওয়ারার পর এবারে জম্মু-কাশ্মীরের (Jammu & Kashmir) পুঞ্চে ফের এক জঙ্গিকে (Terrorist) নিকেশ করল নিরাপত্তা বাহিনী। সূত্রের খবর, জম্মু-কাশ্মীরের পুঞ্চের (Poonch) কাছে নিয়ন্ত্রণ রেখা দিয়ে জঙ্গিদের অনুপ্রবেশ রুখে দেয় সেনা। এরপরই শুরু হয় সংঘর্ষ। অবশেষে গুলির লড়াইয়ে নিকেশ হয় এক জঙ্গি ও আহত হয়েছে অন্য এক জঙ্গি। নিহত জঙ্গির কাছ থেকে উদ্ধার করা হয়েছে রাইফেল, ম্যাগাজিন, পিস্তল ইত্যাদি।

সেনা সূত্রে খবর, সোমবার গভীর রাতে জম্মু কাশ্মীরের পুঞ্চের দেগওয়ার সেক্টরে নিয়ন্ত্রণ রেখা দিয়ে ভারতে প্রবেশের চেষ্টা করছিল জঙ্গিদের একটি দল। যার ইঙ্গিত পেতেই সেনা জওয়ানরা তল্লাশি শুরু করে গোটা এলাকা ঘিরে। এরপরই পাক জঙ্গিদের দেখতে পেয়ে তাদের বাধা দেয়। কিন্তু জঙ্গিরা গুলি চালাতে শুরু করলে এরপর সেনা জওয়ানরাও তাদের লক্ষ্য করে গুলি চালায়। এরপর গুলির লড়াইতে নিহত হয় এক জঙ্গি। অন্য একজন আহত হয়। সূত্রের খবর, নিরাপত্তা বাহিনী ও জম্মু-কাশ্মীরের যৌথ অভিযানে জঙ্গি নিকেশ করা হয়েছে। ওই এলাকায় আর কোনও জঙ্গি লুকিয়ে রয়েছে কি না, সে বিষয়ে জোর খোঁজ শুরু করেছে সেনা বাহিনী।

সূত্রের খবর, নিহত জঙ্গির দেহ উদ্ধার করা হলেও অন্য এক জঙ্গিকে এখনও খুঁজে পাওয়া যায়নি। তাকে গুলি করার পরেই সে নিয়ন্ত্রণ রেখার দিকে পালাতে থাকে। আরও জান গিয়েছে, নিহত জঙ্গির কাছ একে ৪৭ রাইফেল, ম্যাগাজিন, ১৫ রাউন্ড একে ৪৭ গুলি, ৫টি ৯ এমএম পিস্তল, ১টি ১৫ এমএমের পিস্তল ও প্রচুর বুলেট উদ্ধার করা হয়েছে। উল্লেখ্য,স্বাধীনতা দিবসের আগে ভারতে এক বড়সড় হামলার পরিকল্পনা করছে পাক সংগঠনের জঙ্গিরা, এমনটাই সূত্রের খবর। ফলে ভারত-পাকিস্তান আন্তর্জাতিক সীমান্তে নজরদারি বাড়ানো হয়েছে।

2 months ago
Encounter: কাশ্মীরের কুলগামে সেনা-জঙ্গি গুলির লড়াই, নিহত তিন সেনা জওয়ান

আবার রক্তাক্ত ভূস্বর্গ। জম্মু-কাশ্মীরের কুলগাম জেলায় শুক্রবার সন্ধ্যায় সেনা-জঙ্গি গুলির লড়াই শুরু হয়। সূত্রের খবর, গুলির লড়াইয়ে নিহত হয়েছেন তিন সেনা জওয়ান। তবে সেনাবাহিনী জঙ্গিদের ঘিরে ফেলতে সক্ষম হয়েছে। এখনও চলছে গুলির লড়াই। নিরাপত্তাকর্মীরা গোপন সূত্রে খবর পান, কুলগামের হালান বনাঞ্চল এলাকায় জঙ্গিরা লুকিয়ে রয়েছে। সেই সূত্র ধরেই সেনাবাহিনী, পুলিস যৌথ অভিযান শুরু করে।

বেগতিক বুঝে জঙ্গিরা নিরাপত্তাবাহিনীর উপর গুলি চালাতে শুরু করে। প্রস্তুত ছিল সেনাও। পাল্টা জবাব দিতে থাকে। তখনই জঙ্গিদের ছোড়া গুলিতে নিহত হন তিন সেনা জওয়ান। ওই এলাকায় সশস্ত্র জঙ্গিদের বাগে আনতে এখনও অভিযান চালানো হচ্ছে বলে সেনা সূত্রে খবর।

ভারতীয় সেনার তরফে একটি টুইট বার্তায় জানানো হয়েছে, ‘‘কুলগামের হালানের জঙ্গিদের উপস্থিতি সম্পর্কে খবর পেয়ে শুক্রবার সন্ধ্যায় অভিযান শুরু করে নিরাপত্তা বাহিনী। গুলির লড়াইয়ে তিন জন কর্মী গুরুতর জখম হয়ে শহিদ হন। এখনও তল্লাশি অভিযান চলছে।’’ প্রয়োজনে আরো সেনা বাড়ানো হবে বলে জানানো হয়েছে সেনার তরফে।

2 months ago


Encounter: উত্তর কাশ্মীরের কুপওয়ারে এনকাউন্টার, নিহত ২ জঙ্গি

কুপওয়ারে এনকাউন্টার (Encounter)। ঘটনায় নিহত ২ জঙ্গি। উত্তর কাশ্মীরের কুপওয়ার জেলার মাচিল সেক্টরের পিনচাদ এলাকার ঘটনা। তল্লাশি অভিযানে গিয়ে জঙ্গি (Militant) ও নিরাপত্তা বাহিনীর মধ্যে বন্দুকযুদ্ধ শুরু হয়। ঘটনায় দুই জঙ্গিকে নিকেশ করে সেনা।

এক আধিকারিক জানিয়েছেন, গোপন সূত্রে খবর পায় জঙ্গিদের উপস্থিতি রয়েছে ওই এলাকায়। খবর পেয়ে পুলিস ও সেনাবাহিনীর একটি যৌথ দল ওই এলাকায় অভিযান শুরু করে। তিনি আরও বলেন, সেনা বাহিনীর যৌথ দল সন্দেহভাজন স্থানের দিকে তল্লাশি করার সঙ্গে সঙ্গেই জঙ্গিরা ওই সেনা দলটির উপর গুলি চালায়। তারই প্রতিশোধ নেওয়া হয়েছিল  এনকাউন্টারের মধ্যমে। অভিযান চলাকালীন দুই জঙ্গি নিহত হয়েছে।

5 months ago
Encounter: পুলওয়ামার গ্রামে স্থানীয়দের বেরনো নিষেধ, সেনা-জঙ্গি গুলির লড়াই

ফের সীমান্তের জঙ্গি-সেনার মধ্যে চলছে গুলির (Encounter) লড়াই। সূত্রের খবর, শনিবার সকালে জম্মু ও কাশ্মীরের (Jammu-Kashmir) পুলওয়ামায় (Pulwama) জঙ্গিদের সঙ্গে নিরাপত্তা বাহিনীর এনকাউন্টার শুরু হয়। গোটা এলাকা ঘিরে রেখেছে নিরাপত্তাবাহিনী।

জানা গিয়েছে, ওই এলাকায় জঙ্গিরা লুকিয়ে রয়েছে বলে গোপন সূত্রে খবর পায় পুলিস। সঙ্গে সঙ্গে জঙ্গি দমন অভিযানে নামে সেনাবাহিনী। খবর অনুযায়ী, দক্ষিণ কাশ্মীরের পুলওয়ামার মিত্রিগ্রাম এলাকায় অভিযান চালায় নিরাপত্তা বাহিনী। এলাকাজুড়ে তল্লাশি শুরু করে।

সেসময় নিরাপত্তা বাহিনীকে লক্ষ্য করে গুলি চালায় জঙ্গিরা। সঙ্গে সঙ্গে সেনা জওয়ানরাও পাল্টা গুলি চালাতে শুরু করেন। প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত হতাহতের কোনও খবর পাওয়া যায়নি। সূত্রের খবর, প্রতিবেদন প্রকাশিত হওয়া অবধি গুলির লড়াই চলছে। এর আগেও বহুবার উপত্যকায় সেনা-জঙ্গির এনকাউন্টারের মতো ঘটনা ঘটেছে।

উল্লেখ্য, ওই এলাকায় থাকা বাসিন্দাদের বাড়ি থেকে বেরোতে নিষেধ করেছে প্রশাসন। যতক্ষণ না পুলিস নির্দেশ দেবে ততক্ষণ নিরাপত্তার জন্য বাড়ির মধ্যেই থাকার কথা জানিয়েছে পুলিস।

6 months ago


Kashmir: কাশ্মীরি পণ্ডিত হত্যায় অভিযুক্ত জঙ্গি নিকেশ সেনা অভিযানে

উপত্যকায় ফের বড়সড় সাফল্য নিরাপত্তা বাহিনীর। নিরাপত্তা বাহিনীর এনকাউন্টারে (Encounter) খতম এক জঙ্গি। কাশ্মীরি পণ্ডিত হত্যায় যুক্ত ছিল মৃত সন্ত্রাসবাদী। এমনটাই সেনা সূত্রে খবর। মঙ্গলবার ভোরে জম্মু ও কাশ্মীরের (Jammu And Kashmir) অবন্তিপোরা এলাকার এই ঘটনায় গোপন সূত্রে খবর পায় সেনাবাহিনী। একটি বাড়িতে জঙ্গিরা লুকিয়ে রয়েছে, এরপরই তল্লাশি অভিযান চালায় বাহিনী। জওয়ানদের দেখে জঙ্গিরা গুলি ছুড়তে থাকে অভিযুক্ত সন্ত্রাসবাদী। পালটা জবাব দেন জওয়ানরাও।

টানা গোলাগুলির লড়াইয়ের শেষে নিরাপত্তা বাহিনীর হাতেই নিকেশ হয় ওই জঙ্গি। পাল্টা আহত হয়েছেন নিরাপত্তা বাহিনীর দুই জওয়ান। তাঁদের ভর্তি করা হয়েছে একটি হাসপাতালে। গোটা এলাকা নিরাপত্তার চাদরে মুড়ে ফেলা হয়েছে। ওই এলাকায় আরও জঙ্গি লুকিয়ে থাকতে পারে বলে মনে করছে পুলিস।

পুলিস জানিয়েছে যে, রবিবার কাশ্মীরি পন্ডিত সঞ্জয় শর্মাকে হত্যার জন্য দায়ী সন্ত্রাসীকে মঙ্গলবার সকালে আওয়ান্তিপোরা এনকাউন্টারে নিকেশ করা হয়েছে। নিহত সন্ত্রাসীকে পুলওয়ামার আকিব মুস্তাক ভাট হিসাবে চিহ্নিত করা হয়েছে। সে প্রথমে একটি সন্ত্রাসী সংগঠনের হয়ে কাজ করত। কিন্তু বর্তমানে সে TRF-এর সঙ্গে ছিল।

উল্লেখ্য, গত বছর সন্ত্রাসীরা সাধারণ মানুষের উপর প্রায় ৩০টি হামলা চালিয়েছিল। তিনজন কাশ্মীরি পন্ডিত, রাজস্থানের একজন ব্যাঙ্ক ম্যানেজার, জম্মুর একজন মহিলা শিক্ষক এবং আটজন পরিযায়ী শ্রমিক-সহ ১৮ জন নিহত হয়েছিল বলে খবর।

7 months ago
Yogi: বিধায়ক খুনের সাক্ষীকেও খুন! প্রয়াগরাজে পুলিস এনকাউন্টারে ঝাঁঝরা অভিযুক্ত

বিএসপি বিধায়ক রাজু পল হত্যাকাণ্ডের মূল সাক্ষীকে খুনে অভিযুক্ত ছিল আরবাজ নামে এক দুষ্কৃতী। সেই অভিযুক্ত দুষ্কৃতীকে এনকাউন্টারে ঝাঁঝরা করলো  উত্তরপ্রদেশ পুলিস। প্রয়াগরাজ একদা এলাহাবাদের ধুমনগঞ্জ এলাকার নেহরু পার্কে হওয়া এই এনকাউন্টারে সাক্ষী খুনে ওই অভিযুক্ত নিহত হয়েছেন। সম্প্রতি এমনটাই জানিয়েছে যোগী আদিত্যনাথ প্রশাসন।

প্রয়াগরাজ পুলিসের দাবি, 'পাল্টা আরবাজের গুলিতে রাজেশ মৌর্য নামে এক পুলিস ইনস্পেক্টর জখম হয়েছেন।' উত্তরপ্রদেশ পুলিসের এক কর্তা বলেন, 'শুক্রবার উমেশ খুনে জড়িত ছিলেন আরবাজ। সূত্র মারফত খবর পেয়ে তাঁকে গ্রেফতারের জন্য অভিযান চালায় পুলিস। সে সময় আরবাজ গুলি চালানোয়, পাল্টা গুলি চালাতে বাধ্য হয়েছিল পুলিস। গুলিবিদ্ধ অবস্থায় আরবাজকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসকরা আরবাজকে মৃত ঘোষণা করেন।'

প্রসঙ্গত, ২০০৫ সালে উত্তরপ্রদেশে বহুজন সমাজ পার্টির (বিএসপি) বিধায়ক রাজু পল খুন হয়েছিলেন। এই খুনে অভিযোগ ওঠে কুখ্যাত দুষ্কৃতী তথা প্রাক্তন সাংসদ আতিক আহমেদের বিরুদ্ধে। সেই মামলার সাক্ষী ছিলেন রাজুর বন্ধু উমেশ পল। গত কয়েক বছরে একাধিক বার আক্রান্ত হয়েছিলেন উমেশ। কিন্তু এবার আর শেষরক্ষা হয়নি।

7 months ago
Kashmir: ফের জঙ্গি দমনে সাফল্য নিরাপত্তা বাহিনী, গুলির লড়াইয়ে খতম ৩ জঙ্গি

ফের জঙ্গি দমনে সাফল্য পেল নিরাপত্তা বাহিনী। বুধবার সকালে জম্মু ও কাশ্মীরের (Jammu and Kashmir) সিধরা এলাকায় শুরু হয় গুলির (Encounter) লড়াই। জঙ্গিরা ওই এলাকায় গা-ঢাকা দিয়েছে বলে গোপন সূত্রে খবর পেয়েছিল নিরাপত্তা বাহিনী। এরপর ওই এলাকায় অভিযান চালাতেই সেনাকে লক্ষ্য করে গুলি চালায় জঙ্গিরা। সেনার গুলিতে নিহত হয় ৩ জঙ্গি (Terrorist)।                                     

একজন আধিকারিক জানিয়েছেন, জঙ্গিদের উপস্থিতি সম্পর্কে সুনির্দিষ্ট তথ্যের ভিত্তিতে সিধরা এলাকায় যৌথ বাহিনীর অভিযান শুরু করেছিল। সন্দেহজনক স্থানে প্রবেশ করার সঙ্গে সঙ্গে লুকিয়ে থাকা জঙ্গিরা বাহিনীর উপর গুলি চালায়। এরপর পাল্টা গুলি চালায়  সেনারা। এনকাউন্টারে তিন জঙ্গি খতম হয়।

জানা গিয়েছে, ঘটনাস্থল থেকে অস্ত্র ও গোলাবারুদ উদ্ধার করা হয়েছে। জঙ্গিদের শনাক্ত করা হচ্ছে। তারা কোন জঙ্গি গোষ্ঠীর সদস্য ছিল তা এখনও জানা যায়নি। এদিকে গত ২৪ ডিসেম্বর উরি থেকেও প্রচুর পরিমাণে অস্ত্রশস্ত্র ও বিস্ফোরক উদ্ধার করা হয়েছিল। উল্লেখ্য, গত সপ্তাহে কাশ্মীরের শোপিয়ান এলাকায় তিন লস্কর জঙ্গিকে খতম করেছিল কাশ্মীর পুলিস। জানা যায়, এলাকায় নজরদারি চালানোর সময়ে আচমকাই পুলিসকে লক্ষ্য করে গুলি চালাতে থাকে জঙ্গিরা। পালটা আক্রমণেই মৃত্যু হয় তিন জঙ্গির।

9 months ago


Kashmir: কাশ্মীরে নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে নিহত ৩ এলইটির জঙ্গি

মঙ্গলবার দক্ষিণ কাশ্মীরের (Kashmir) শোপিয়ান (Shopian)জেলার জৈনপোরার মুঞ্জ মার্গ এলাকায় নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে জঙ্গিদের বন্দুকযুদ্ধ (Encounter) হয়। পুলিস সূত্রে খবর, এই সংঘর্ষে  তিন লস্কর-ই-তৈবা (এলইটি) (LeT terrorists) সন্ত্রাসী নিহত হয়েছে। এই সন্ত্রাসীদের শনাক্ত করার প্রক্রিয়া চলছে বলে জানিয়েছে পুলিস।

জিএনএস-এ পৌছানো রিপোর্টে বলা হয়েছে, গোপন সূত্রে খবর পেয়ে সেনাবাহিনীর ১আরআর  এবং ১৭৮ সিআরপিএফ-এর একটি যৌথ দল মুঞ্জ মার্গে অভিযান শুরু করে। বাহিনীর যৌথ দল সন্দেহভাজন স্থানের দিকে গেলে লুকিয়ে থাকা জঙ্গিরা বাহিনীকে লক্ষ্য করে গুলি চালায়। এরপর শুরু হয় গুলির লড়াই।

উল্লেখ্য, ইতিমধ্যে দুই সন্ত্রাসীকে শোপিয়ানের লতিফ লোন এবং অনন্তনাগের উমর নাজির হিসাবে চিহ্নিত করা হয়েছে। পুলিস জানিয়েছে, লতিফ লোন একজন কাশ্মীরি পন্ডিত পুরাণ কৃষ্ণ ভাটের হত্যার সঙ্গে জড়িত ছিল। আর  উমর নাজির নেপালের তিল বাহাদুর থাপা হত্যার সঙ্গে জড়িত ছিল।

পুলিস সন্ত্রাসীদের কাছ থেকে ৪৭ রাইফেল ও দুটি পিস্তল উদ্ধার করেছে। কাশ্মীর জোন পুলিস একটি টুইট বার্তায় জানিয়েছ, "নিষিদ্ধ সন্ত্রাসী সংগঠন এলইটি-এর সঙ্গে জড়িত ৩ সন্ত্রাসী নিহত হয়েছে।"

9 months ago
CRPF: ছত্তিশগড়ের বিজাপুরে যৌথ বাহিনীর গুলিতে নিহত তিন মাওবাদী, এলাকা ঘিরে তল্লাশি

শনিবার ভোর থেকেই শুরু হয়েছে ছত্তিশগড়ের (Chhattisgarh) বিজাপুর জেলায় পুলিস এবং সিআরপিএফের (CRPF) যৌথবাহিনীর সঙ্গে মাওবাদীদের গুলির লড়াই। এনকাউন্টারে (encounter) এক মহিলা-সহ তিন মাওবাদী নিহত হয়েছে বলে জানান এক পুলিসকর্তা।

বস্তার রেঞ্জের আইজি পি সুন্দররাজ সংবাদ সংস্থাকে জানিয়েছেন, গোপন সূত্রে খবর পেয়ে নিরাপত্তা বাহিনীর যৌথ দল মাওবাদী বিরোধী অভিযানে নামে। সকাল ৭.৩০টার দিকে গুলির লড়াই শুরু হয়। রাজধানী রায়পুর থেকে প্রায় ৪০০ কিলোমিটার দূরে মিরতুর থানার পোমরার জঙ্গলে চলে এই গুলির লড়াই।

ডিস্ট্রিক্ট রিজার্ভ গার্ড (ডিআরজি), স্পেশাল টাস্ক ফোর্স (এসটিএফ) এবং সেন্ট্রাল রিজার্ভ পুলিস ফোর্স (সিআরপিএফ)-এর কর্মীরা অভিযানে নামে। মাওবাদীদের বিভাগীয় কমিটির সদস্য মোহন কাদতি এবং সুমিত্রার উপস্থিতির কথা জানতে পেরেছিল বাহিনী। গুলির লড়াইয়ে তিন সঙ্গীর মৃত্যুর পর তাঁদের দেহ ফেলে রেখেই অন্যেরা পালিয়ে যায়। সুন্দররাজ জানিয়েছেন, গোটা এলাকা ঘিরে ফেলে তল্লাশি অভিযান শুরু করেছে যৌথ বাহিনী।

10 months ago


Encounter: ভুয়ো এনকাউন্টারে খুন? প্রাক্তন এসপি সহ ১৩ পুলিসকর্মীর বিরুদ্ধে এফআইআর

এক-দুজন নয়। ১৩ জন পুলিসকর্মীর বিরুদ্ধে খুনের মামলা! হ্যাঁ, এমনই চাঞ্চল্যকর ঘটনা ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের চিত্রকূটে। এঁদের মধ্যে একজন প্রাক্তন পুলিস সুপারও (Ex SP) রয়েছেন। শনিবার সরকারি সূত্রে জানা গিয়েছে, আদালতের নির্দেশেই এই পদক্ষেপ। অতিরিক্ত পুলিস সুপার শৈলেন্দ্রকুমার রাই জানিয়েছেন, শুক্রবার সন্ধ্যায় বাহিলপূর্ব থানায় এঁদের বিরুদ্ধে এফআইআর (FIR) করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার স্পেশাল জাজ বিনীতনারায়ণ পাণ্ডে ওই নির্দেশ দেন। এক মহিলা অভিযোগ করেন, ২০২১ সালের ৩১ মার্চ তাঁর স্বামীকে পুলিস তুলে নিয়ে যায় এবং ভুয়ো এনকাউন্টার (Fake Encounter) দেখিয়ে তাঁকে খুন (Murder) করে। এরই শুনানি শেষে বিচারক ওই নির্দেশ দেন।

ওই মহিলার আইনজীবী রাজেন্দ্র যাদব বলেন, ঘটনার পর ওই মহিলা পুলিসের দরজায় দরজায় ঘুরেছেন বিচারের আশায়। কিন্তু কোনও ফল হয়নি। তাই নিরুপায় হয়ে তিনি আদালতের (Court) দ্বারস্থ হন। যে ১৩ জনের বিরুদ্ধে এফআইআর করা হয়েছে, তাঁদের মধ্যে তদানীন্তন পুলিস সুপার অঙ্কিত মিত্তাল ছাড়াও রয়েছেন চারজন সাব ইন্সপেক্টর, তিনজন হেড কনস্টেবল, পাঁচজন কনস্টেবল এবম বাকিরা অজ্ঞাতপরিচয়।

এঁদের বিরুদ্ধে কড়া ধারা দেওয়া হয়েছে। সেগুলির মধ্যে উল্লেখযোগ্য হল খুন (৩০২), ইচ্ছাকৃতভাবে আঘাত করা (৩২৩), অপহরণ (৩৬৪) এবং ডাকাতি (৩৯৬)। পুলিস ইতিমধ্যেই ওই অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে তদন্ত শুরু করেছে।    

one year ago
Kashmir: কুলগামে সেনাকে গুলি, প্রত্যাঘাতে নিহত ২ জঙ্গি

দক্ষিণ কাশ্মীরের কুলগাম জেলার নওপোরা-খারপোরা গ্রামের ত্রুবজিতে নিরাপত্তা বাহিনী এবং জঙ্গিদের গুলির লড়াই। এই সংঘর্ষে নিহত দুই জঙ্গি। প্রতিরক্ষা মন্ত্রক সূত্রে সোমবার এমনটাই জানানো হয়েছে। এক আধিকারিক জানান, জঙ্গি উপস্থিতির খবর পেয়ে পুলিস, সেনা এবং সিআরপিএফ-এর একটি দল ওই এলাকায় তল্লাশি অভিযান শুরু করে। বাহিনীর উপস্থিতি টের পেয়ে লুকিয়ে থাকা জঙ্গিরা প্রথমে গুলি চালায়। পাল্টা গুলিতে দুই জঙ্গি নিহত হয়েছে।

এদিকে, গত সপ্তাহেও জম্মু-কাশ্মীরে জঙ্গি দমনে বড়সড় সাফল্য পেয়েছে সেনাবাহিনী। দীর্ঘ লড়াইয়ের পর তিন পাক জঙ্গি-সহ সাত জঙ্গিকে নিকেশ করে নিরাপত্তা বাহিনী। কাশ্মীরের আইজি বিজয় কুমার সংবাদমাধ্যমকে বলেন, 'রবিবার কুপওয়ারায় গুলির লড়াই চলেছে। আর তাতে দুই লস্কর-ই-তইবা জঙ্গি মারা গিয়েছে। সোমবার ভোরের দিকে আরও এক পাক জঙ্গিকে খতম করা হয়েছে। সোপিয়ানের এক স্থানীয় জঙ্গিও নিহত হয়েছে।'

তিনি আরও বলেন, পুলওয়ামায় গুলির লড়াইয়ে লস্কর-ই-তইবার এক স্থানীয় জঙ্গির মৃত্যু হয়েছে। কুলগামে জইশ-ই-মহম্মদ ও আরও এক লস্কর-ই-তইবা জঙ্গিকে খতম করা হয়েছে। মোট সাত জঙ্গির মৃত্যু হয়েছে। তাদের মধ্যে তিন জন পাকিস্তানের ও বাকি চার জন স্থানীয় জঙ্গি।’’

উল্লেখ্য, একের পর এক কাশ্মীরি পণ্ডিতের উপর হামলা করছিল জঙ্গিরা। ৩৬ বছর বয়সী দক্ষিণ কাশ্মীরের কুলগাঁম জেলার গোপালপরা এলাকার একটি হাইস্কুলের শিক্ষিকা রজনী বালাকে গুলি করে হত্যা করে জঙ্গিরা। গুরুতর আহত অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন। লাগাতার এই ঘটনার জেরে নিরাপত্তা দ্বিগুন করা হয়েছে সীমান্তে।


one year ago
Kashmir: উপত্যকায় জঙ্গি দমনে বড়সড় সাফল্য, সেনা অভিযানে নিহত ৪ জঙ্গি

জম্মু-কাশ্মীরে জঙ্গি দমনে বড়সড় সাফল্য পেল সেনাবাহিনী। দীর্ঘ লড়াইয়ের পর তিন পাক জঙ্গি-সহ সাত জঙ্গিকে নিকেশ করেছে  নিরাপত্তা বাহিনী।  সোমবার এমনটাই জানিয়েছে কাশ্মীর পুলিস।

কাশ্মীরের আইজি বিজয় কুমার সংবাদমাধ্যমকে বলেন, 'রবিবার কুপওয়ারায় গুলির লড়াই চলেছে। আর তাতে দুই লস্কর-ই-তইবা জঙ্গি মারা গিয়েছে। সোমবার ভোরের দিকে আরও এক পাক জঙ্গিকে খতম করা হয়েছে। সোপিয়ানের এক স্থানীয় জঙ্গিও নিহত হয়েছে।'

তিনি আরও বলেন, পুলওয়ামায় গুলির লড়াইয়ে লস্কর-ই-তইবার এক স্থানীয় জঙ্গির মৃত্যু হয়েছে। কুলগামে জইশ-ই-মহম্মদ ও আরও এক লস্কর-ই-তইবা জঙ্গিকে খতম করা হয়েছে। মোট সাত জঙ্গির মৃত্যু হয়েছে। তাদের মধ্যে তিন জন পাকিস্তানের ও বাকি চার জন স্থানীয় জঙ্গি।’’

উল্লেখ্য, একের পর এক কাশ্মীরি পণ্ডিতের উপর হামলা করছিল জঙ্গিরা। ৩৬ বছর বয়সী দক্ষিণ কাশ্মীরের কুলগাঁম জেলার গোপালপরা এলাকার একটি হাইস্কুলের শিক্ষিকা রজনী বালাকে গুলি করে হত্যা করে জঙ্গিরা। গুরুতর আহত অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন। লাগাতার এই ঘটনার জেরে নিরাপত্তা দ্বিগুন করা হয়েছে সীমান্তে।

one year ago


Encounter: অমরনাথ যাত্রায় হামলার ছক, দুই লস্কর জঙ্গিকে হত্যা করল পুলিস, জানাল কাশ্মীর জোন পুলিস

কাশ্মীরে জঙ্গি দমনে বড়সর সাফল্য পেল নিরাপত্তা বাহিনী। শ্রীনগরের বেমিনা এলাকায় একটি এনকাউন্টারে লস্কর-ই-তৈবা (এলইটি) এর সঙ্গে যুক্ত একজন বিদেশী সহ দুই জঙ্গি নিহত হয়েছে। অমরনাথ যাত্রায় নাশকতার উদ্দেশ্যে জম্মু কাশ্মীরে ঢোকা দুই লস্কর জঙ্গিকে হত্যা করল পুলিস। সোমবার গভীর রাতে পুলিশের সঙ্গে গুলির লড়াই হয় জঙ্গিদের। একটি টুইট বার্তায়, কাশ্মীর জোন পুলিস, কাশ্মীর জোনের ইন্সপেক্টর জেনারেল (আইজিপি) বিজয় কুমারকে উদ্ধৃত করে জানিয়েছে, "নিষিদ্ধ সংগঠন এলইটি-এর দুই জঙ্গি শ্রীনগরের বেমিনা এলাকায় শ্রীনগর পুলিসের সঙ্গে সংঘর্ষে নিহত হয়। একজন পুলিস সদস্যও সামান্য আঘাত পেয়েছেন।" তিনি আরও বলেছিলেন যে নিহতদের মধ্যে একজনকে পাকিস্তানের ফয়সালাবাদ থেকে আবদুল্লাহ গৌজরি নামে চিহ্নিত করা হয়েছে, এটিকে একটি বড় সাফল্য বলে অভিহিত করা হয়েছে। আইজিপি কাশ্মীর আরও বলেছেন যে, " অমরনাথ যাত্রায় হামলার উদ্দেশ্য নিয়ে হ্যান্ডলাররা তাদের পাঠিয়েছিল। দুজন একই গ্রুপ, যারা সোপোর বন্দুকযুদ্ধ থেকে পালিয়েছিল। আমরা তাদের গতিবিধির উপর নজর রাখছি।" কাশ্মীর জোন পুলিস টুইট উদ্ধৃত করে জানিয়েছে।

অন্য একজন নিহত জঙ্গির কাছ থেকে উদ্ধার হওয়া নথি অনুসারে, তাকে অনন্তনাগ জেলার আদিল হুসেন মীর ওরফে সুফিয়ান ওরফে মুসাব হিসাবে চিহ্নিত করা হয়েছে। পুলিস রেকর্ড অনুসারে, তিনি ২০১৮ সালে ওয়াঘা থেকে ভিজিট ভিসায় পাকিস্তান পাড়ি দিয়েছিলেন, জানান আইজিপি কাশ্মীর।

সন্ত্রাসীদের কাছ থেকে ২ টি AK-47 রাইফেল, ১০ টি ম্যাগজিন, লাইভ রাউন্ড, Y-SMS ডিভাইস, ম্যাট্রিক্স শীট, পাকিস্তানি ওষুধ এবং অন্যান্য অপরাধমূলক উপাদান সহ বেশ কিছু অস্ত্র ও গোলাবারুদ উদ্ধার করা হয়েছে।

one year ago
Encounter: কাশ্মীরে ফের গুলির লড়াই, খতম ৪ জঙ্গি

কাশ্মীরের দুটি পৃথক জায়গায় জওয়ানদের সঙ্গে সংঘর্ষে নিহত চার জঙ্গি। পুলিস সূত্রে জানা গিয়েছে, পুলওয়ামার ড্রাবগামে জঙ্গি কার্যকলাপের খবর পায় বাহিনী। এরপরই শনিবার তারা অভিযানে নামে। জঙ্গিরা জওয়ানদের লক্ষ্য করে গুলি ছুঁড়লে সংঘর্ষ শুরু হয়। সংঘর্ষে তিন স্থানীয় লস্কর জঙ্গি নিহত হয়। পুলিসের দাবি, নিহতদের মধ্যে জুনেইদ আহমেদ শিরগোজরি পুলওয়ামার গাডুরা, ফজ়িল নাজ়ির বাট ড্রাবগাম ও ইরফান আহমেদ মালিক পুলওয়ামার আরাবল নিকাসের বাসিন্দা। তিনজনের বিরুদ্ধেই বাহিনীর উপর হামলা-সহ বিভিন্ন জঙ্গি কার্যকলাপে যুক্ত থাকার অভিযোগ ছিল। নিহত জঙ্গিদের কাছ থেকে দু’টি এ কে-৪৭ রাইফেল ও একটি পিস্তল ও গোলাবারুদ উদ্ধার করা হয় বলে জানিয়েছে পুলিস। সাধারণ নাগরিকদের ক্ষতি এড়িয়ে সফল অভিযানের জন্য বাহিনীকে অভিনন্দন জানিয়েছেন জম্মু-কাশ্মীর পুলিসের আইজি বিজয় কুমার।

এছাড়া গান্ডেরবালের ক্রিসবাল পালপোরা সঙ্গম এলাকায় পুলিসের একটি ‘ছোট’ দলের সঙ্গে ‘আচমকাই’ সংঘর্ষ হয় লস্কর জঙ্গি আদিল প্যারার। সংঘর্ষে নিহত হয় আদিল। তার বিরুদ্ধে পুলিশকর্মী গুলাম হাসান দার ও সইফুল্লা কাদরিকে হত্যার অভিযোগ ছিল। সইফুল্লার উপরে হামলার সময়ে তাঁর ৯ বছরের মেয়েও আহত হয় বলে জানা গিয়েছে।

কাশ্মীর জোন পুলিস সূত্রে জানা গিয়েছে, ২৪ ঘণ্টায় উপত্যকায় নিহত জঙ্গির সংখ্যা দাঁড়াল এ পর্যন্ত ৫ জন। চলতি বছরে এখনও পর্যন্ত বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে কাশ্মীরে নিহত হয়েছে ১০০ জন জঙ্গি।

one year ago