‘অভিষেকের স্ত্রীর পদবী জানতেও চাইনি’, এনপিআর নিয়ে সুর চড়ালেন মমতা

0
352

সিএএ, এনআরসি নিয়ে এর আগে বহুবার কেন্দ্রের বিজেপি সরকারকে তোপ দেগেছিলেন তৃণমূল নেত্রী তথা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এবার সুর চড়ালেন এনপিআর নিয়ে। সিএএ, এনআরসি ও এনপিআর-এর প্রতিবাদে তৃণমূল ছাত্র পরিষদের রানি রাসমনি রোডের ধরণা মঞ্চে রোজ নিয়ম করেই যাচ্ছেন তিনি। বৃহস্পতিবারও সন্ধ্যের পর সেখানে যান মুখ্যমন্ত্রী। তবে তিনি এদিন বিজেপি বিরোধী আক্রমণের তীর অনেকটা ব্যক্তিগত পর্যায়ে নিয়ে গেলেন। এনপিআর তথ্যে নাম ও পদবি উল্লেখ করতে হবে কেন প্রশ্ন তুলে এদিন তিনি বলেন, ‘এত কিছু ওরা জানতে চায়, অথচ আমি তো অভিষেকের বউয়ের পদবি জানি না, জানার প্রয়োজনও মনে করি না। আমার গাড়ির সারথীর পদবিও জানি না। প্রশাসনে আমার সঙ্গে যাঁরা কাজ করেন, তাঁদের কারও পদবি আমি জানি না। জানতেও চাই না’। পাশাপাশি তিনি আরও বলেন, এবারের গঙ্গাসাগর মেলায় ৫৫ লক্ষ মানুষের সমাগম হয়েছিল, আর সেখানে ৪০টি শিশুর জন্ম হয়েছে। আর পূণ্যতীর্থ গঙ্গাসাগরে এসে সন্তানের জন্ম দিয়ে বাড়ি ফেরার মতো সুখের অনুভূতির কোনও ব্যাখ্যা হয়? অথচ ওরা বলছে তোমার পদবি কী? বাবার নাম কী? উল্লেখ্য, ন্যাশনাল পপুলেশন রেজিস্টার (NPR) নিয়ে প্রথম থেকেই সরব তৃণমূল নেত্রী। শুক্রবার দিল্লিতে এনপিআর নিয়ে কেন্দ্রের ডাকা জরুরী বৈঠকেও রাজ্যের কোনও প্রতিনিধি তিনি পাঠাচ্ছেন না। এরমধ্যেই তৃণমূল নেত্রীর মুখে এই ধরণের ব্যক্তিগত প্রসঙ্গ বাংলার রাজনীতিতে সোরগোল পড়ে গিয়েছে।