দেশ
বিতর্কিত কোভ্যাক্সিনের প্রথম ডোজ নিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী

দেশ  |  yesterday

'কৃষি নিয়ে খোলা মনে পরামর্শ দিন'- সাধারণ মানুষকে আহ্বান মোদীর

দেশ  |  yesterday

ডাক্তারদের আরও একটু হাসিখুশি থাকার পরামর্শ দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী

দেশ  |  4 days ago

৫ রাজ্যে ভোটের নির্ঘণ্ট ঘোষণা করে দিল নির্বাচন কমিশন

দেশ  |  4 days ago

ভুয়ো খবরের দিন শেষ, এবার রাশ টানল কেন্দ্রীয় সরকার

দেশ  |  5 days ago

দিল্লি-দাঙ্গার ১ বছর পার,কেমন আছেন সেই মানুষগুলো ?

দেশ  |  6 days ago

১ মার্চ থেকে দেশের ষাটোর্ধ্ব সাধারণ নাগরিকরা পাবেন করোনার টিকা

দেশ  |  6 days ago

'সত্যজিৎ রায় পুরস্কার' ঘোষণা কেন্দ্রের

দেশ  |  7 days ago

খড়গপুরে আইআইটি-র সমাবর্তনে ভার্চুয়াল যোগ প্রধানমন্ত্রীর

দেশ  |  7 days ago

পেট্রল-ডিজেলকে জিএসটির আওতায় আনার প্রস্তাব দিয়েছেন পেট্রোলিয়াম মন্ত্রী

দেশ  |  7 days ago

সুপ্রিম কোর্টে পিছিয়ে গেল রাজীব কুমারের বিরুদ্ধে শুনানি

দেশ  |  7 days ago

মার্চের প্রথম সপ্তাহেই নির্ঘণ্ট ঘোষণা , জল্পনা উসকে দিলেন খোদ নরেন্দ্র মোদী

দেশ  |  a week ago

এবার পুদুচেরিতেও কি অপারেশন পদ্ম?

দেশ  |  a week ago

প্রতিরক্ষায় রফতানির উপর জোর প্রধানমন্ত্রীর

দেশ  |  a week ago

বঙ্গে মোদীর উন্নয়ন যজ্ঞ

দেশ  |  a week ago

'আত্মনির্ভর অসম' গড়তে প্রধানমন্ত্রীর একের-পর-এক প্রকল্প

দেশ  |  a week ago

'নেতাজিই ভারতের প্রথম প্রধানমন্ত্রী'

দেশ  |  a week ago

দিল্লির হুনার হাটে এবার অংশ নিল না পশ্চিমবঙ্গ সরকার

দেশ  |  a week ago

কৃষক নেতাদের নিয়ে বৈঠক করলেন কেজরিওয়াল

দেশ  |  a week ago

ভারত-চিনের মধ্যে ১৬ ঘণ্টা কমান্ডার পর্যায়ে বৈঠক

দেশ  |  a week ago

সর্বশেষ আপডেট
অনেকে পড়ছেন
দিল্লি পুরসভার উপনির্বাচনে ধরাশায়ী বিজেপি

ইদানিং কালে কোনও ভোট বিজেপির ফল এত খারাপ হয়নি। যা হলো দিল্লি পুরসভার উপনির্বাচনে। মাত্র ৫ টি আসনে ভোট হয়েছিল দিল্লি পুরনিগমে। তাতে বিজেপির ঝুলিতে শূন্য। এই উপনির্বাচনের ফলাফলের দিকে নজর ছিল সমস্ত উত্তর ভারতের। দিল্লির কাছে তিন মাসের কৃষি ধর্নাকে কেন্দ্র করে দিল্লি, উত্তর প্রদেশ এবং হরিয়ানার জনতা ক্ষুব্ধ বলে শোনা গিয়েছিল। যে কেন্দ্রগুলিতে ভোট হয়েছে সেগুলি যথাক্রমে উত্তর দিল্লি পুরসভার 'রোহিনী-সি', পূর্ব দিল্লির ত্রিলোকপুরী, কল্যাণপুরী ও চৌহান বাঙ্গার এবং শালিমার বাগ |
রবিবার এই কেন্দ্রগুলিতে ভোট হয়েছিল। এই কেন্দ্রগুলিতে সারা ভারতের মানুষ বসবাস করেন ফলে একই মিনি ভারতের নির্বাচন বলা যেতে পারে। ৫ টি কেন্দ্রের চারটিতে জিতেছে অরবিন্দ কেজরিওয়ালের আপ। এছাড়া খড়ার বাজারে কংগ্রেস একটি আসন জিতেছে। সবচেয়ে তাৎপর্যপূর্ণ বিষয় প্রতিটি কেন্দ্রে অনেকটাই ফারাকে বিজেপি পরাজিত হয়েছে।            

....

an hour ago

ভিডিও খবর

Popular TV Programme

ভোটের মধ্যেই পরবর্তী মুখ্য নির্বাচন কমিশনার হচ্ছেন সুশীল চন্দ্র

শুক্রবারই পাঁচ রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনের নির্ঘন্ট ঘোষণা করেছেন মুখ্য নির্বাচন কমিশনার সুনীল আরোরা। কিন্তু ফল ঘোষণা আর করা হবে না তাঁর। কারণ তার আগেই তিনি অবসর নেবেন। কিন্তু ভোটের মাঝখানে, আগামী ১৩ এপ্রিল মেয়াদ শেষ হচ্ছে সুনীল আরোরার। ফলে শুক্রবারই মুখ্য নির্বাচন কমিশনার হিসেবে তাঁর শেষ সাংবাদিক বৈঠক ছিল। সাধারণত ভোট ঘোষণা এবং ফল ঘোষণার দিন আনুষ্ঠানিক সাংবাদিক সম্মেলন করেন মুখ্য নির্বাচন কমিশনার। কিন্তু এবারই সম্ভবত ছেদ পড়ছে দীর্ঘদিনের এই রীতিতে।

যদিও এরমধ্যেই প্রশ্ন উঠছে পাঁচ রাজ্যের গুরুত্বপূর্ণ নির্বাচনের মাঝপথেই কি মুখ্য নির্বাচন কমিশনারকে পরিবর্তন করা ঠিক হবে? এতে কমিশনের কাজকর্মে প্রভাব বা ধারাবাহিকতা বিঘ্নিত হবে না তো? নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা যাচ্ছে, সুনীল আরোরা অবসর নেবেন সেটা মাথায় রেখেই যাবতীয় ব্যবস্থা এবং প্রস্তুতি সারা হয়েছে। ফলে ধারাবাহিকতা ছেদ পড়ার সম্ভবনা নেই। ফলে সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে বর্তমান নির্বাচন কমিশনার সুশীল চন্দ্র মুখ্য নির্বাচন কমিশনারের দায়িত্ব পেতে পারেন। জানা গিয়েছে, ১৯৮০ সালের ক্যাডার, ইন্ডিয়ান রেভিনিউ সার্ভিসের অফিসার সুশীল চন্দ্র। তাঁর অবসর নেওয়ার কথা আগামী বছর।

আজই বিধানসভা ভোটের দিনক্ষণ ঘোষণা করতে পারে নির্বাচন কমিশন

শুক্রবারই পশ্চিমবঙ্গ সহ দেশের চার রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনের দিনক্ষণ ঘোষণা হয়ে যেতে পারে। নির্বাচন কমিশন সূত্রে এমনটাই জানা যাচ্ছে। যদিও সরকারিভাবে এই কথা এখনও জানায়নি কমিশন। শুক্রবার সকাল থেকেই দিল্লির নির্বাচন কমিশনের সদর দফতরে দফায় দফায় বৈঠক চলছে। যদিও জানা যাচ্ছে, এদিন বিকেল সাড়ে চারটেই সাংবাদিক বৈঠক করবেন মুখ্য নির্বাচন কমিশনার। তাই ভোটের নির্ঘন্ট ঘোষণা হওয়ার সম্ভবনা তৈরি হয়েছে বলেই মনে করছেন বিষেষজ্ঞমহল।

কমিশন সূত্রে খবর, পশ্চিমবঙ্গে ছয় থেকে আট দফায় ভোটগ্রহণ হতে পারে। উল্লেখ্য গত লোকসভা নির্বাচনে সাত দফায় ভোট হয়েছিল। কিন্তু এবার করোনা আবহে পশ্চিমবঙ্গে আরও এক-দুই দফা বাড়তে পারে। কারণ বুথের সংখ্যা বেড়ে এক লাখের বেশি করা হচ্ছে সামাজিক দূরত্ববিধি বজায় রাখার জন্য। যদিও বাকি তিন রাজ্য (অসম, কেরালা এবং তামিলনাড়ু) এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল পুদুচেরিতে কম দফায় ভোট হতে পারে বলে সূত্রের খবর।

প্রসঙ্গত গত ২২ ফেব্রুয়ারি অসমের এক জনসভায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ইঙ্গিত দিয়েছিলেন মার্চের প্রথম সপ্তাহেই ভোটের নির্ঘন্ট প্রকাশ করতে পারে। কিন্তু কার্যক্ষেত্রে আরও আগেই বিধানসভা নির্বাচনের দিনক্ষণ ঘোষণা করে দিতে পারে। তবে রাজনৈতিক মহলের একাংশ এমনও করছেন, শুক্রবার ভোটের দিনক্ষণ ঘোষণা করলেও নির্বাচনি বিজ্ঞপ্তি দিন কয়েক পর জারি করা হতে পারে।

গুজরাতে বিশ্বের সবচেয়ে বড় চিড়িয়াখানা বানাচ্ছে আম্বানি গোষ্ঠী

গুজরাতের জামনগরে বিশ্বের সবচেয়ে বড় চিড়িয়াখানা এবং পশুপাখিদের একটি পুনর্বাসন কেন্দ্র গড়ছেন আম্বানি গোষ্ঠী। তাঁদের দাবি, এটিই হতে চলেছে বিশ্বের সবচেয়ে বড় চিড়িয়াখানা। যেখানে থাকবে কোমোডো ড্রাগন থেকে শুরু করে বিরল চিতা, আফ্রিকার সিংহ কিংবা ভিন প্রজাতির পাখির বৃহত্তম সম্ভার। রিলায়েন্স সংস্থার কর্পোরেট বিষয়ক প্রধান পরিমল নাথবনি জানিয়েছেন, গুজরাতে মুকেশ আম্বানির রিলায়েন্স, বিশ্বের সবথেকে বড় চিড়িয়াখানা বানাবে। এবং এটি তৈরির কাজ শেষ হবে ২০২৩ সালের মধ্যে। তিনি জানিয়েছেন, গুজরাতের জামনগর সমুদ্র উপকূলের কাছে এই চিড়িয়াখানাটি তৈরী হতে চলেছে ২৮০ একর জমির উপর। তবে কত খরচ হতে পারে এই প্রশ্নের উত্তর এড়িয়ে গিয়েছেন সংস্থার মুখপাত্র। তবে বিশ্বের প্রায় সমস্ত জন্তু, পাখি, সরীসৃপ থাকবে এই চিড়িয়াখানায়। একটি বিষয়ে জোর দেওয়া হয়েছে যে, অন্যান্য শহরে চিড়িয়াখানা শহরের আকর্ষণ বাড়ায় কিন্তু জামনগরের এই জু গার্ডেনটি দেখবার জন্যই দেশ তথা বিশ্বের নানান প্রান্ত থেকে মানুষ এই দেশের দ্রষ্টব্য স্থান হিসাবেই ভিড় জমাবেন। শোনা গেলো মুকেশের ছোট ছেলে অনন্ত আম্বানির ইচ্ছাতেই এই প্রজেক্ট। এবং এটির দায়িত্বে থাকবেন অনন্ত নিজেই। কিন্তু হঠাৎ এই ব্যবসা কেন? জানা গিয়েছে ইন্দোরনেশিয়ার এক বড় শিল্পপতি চিড়িয়াখানা খুলে কোটি কোটি ডলার লাভ করছেন। এমনকি ওই দেশের বাণিজ্যের শীর্ষে উঠে এসেছেন। এবার সেই লক্ষ্যেই নামছেন মুকেশ আম্বানি। তাঁদের চিড়িয়াখানার নাম হতে চলেছে, ‘গ্রিনস জুলজিকাল রেসকিউ অ্যান্ড রিহেবিলেশন কিংডম’।  আর এখানে থাকবে ফ্রগ হাউস, ড্রাগন আইল্যান্ড, ল্যান্ড অব রোডেন্ট, অ্যাকোয়াটিক কিংডোম সহ একাধিক বিভাগ।  একেকটি বিভাগের জন্য বিশ্বের নানা প্রান্ত থেকে আনা হবে বিরল প্রজাতির পশুপাখি।

ডিজিটাল মাধ্যমে এবার নজরদারি, দেশের সার্বভৌমত্বে আঘাত হলে শাস্তি

আগেই আঁচ করা গিয়েছিল সোশাল মিডিয়ায় রাশ টানতে চলেছে কেন্দ্রীয় সরকার। এবার সেটাই সত্যি হল। বৃহস্পতিবারই হল সরকারি ঘোষণা। ডিজিটাল মাধ্যমে এবার নজরদারি চালাবে কেন্দ্র। এদিন কেন্দ্রীয় তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদ এই সংক্রান্ত নিয়মাবলী বা গাইডলাইন (Code) প্রকাশ করলেন। পাশাপাশি তিনি জানিয়ে দিলেন, তিন মাসের মধ্যে নিয়মবিধি প্রণয়ন করবে কেন্দ্র। এই সময়ের মধ্যে সকলকে বোঝাপড়া করে নিতে হবে। এদিন ওই গাইডলাইন প্রকাশ করার সময় রবিশঙ্কর প্রসাদ বলেন, ‘দেশের সার্বভৌমত্ব ও অখণ্ডতার প্রতি আঘাত হানলে কড়া শাস্তি হবে সেই নির্দিষ্ট ডিজিটাল মাধ্যমের’।


নতুন গাইডলাইন অনুযায়ী, সোশাল মিডিয়ায় ফরওয়ার্ড করা মেসেজ নিয়ে কড়া ব্যবস্থা করা হয়েছে। জানানো হয়েছে, ইন্টারনেটের কোনও মাধ্যমের প্রোফাইলে বেআইনি তথ্য থাকলে, সেই তথ্য প্রকাশের কারণ দেখাতে হবে। আবার ফরওয়ার্ড করা মেসেজ কে প্রথম পাঠিয়েছে সেটা খুঁজে বের করা হবে। আর যদি দেখা যায়, সেটি বিদেশ থেকে ফরওয়ার্ড হয়ে এসেছে তাহলে দেখা হবে ভারতের কে প্রথম সেটি ফরওয়ার্ড করেছে। কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর দাবি, নেটমাধ্যমের সাহায্যে দেশের সীমানার বাইরে থেকেও মানুষ সন্ত্রাসবাদ ও হিংসা ছড়ানোর চেষ্টা করে চলেছে। এমন অভিযোগও তাঁদের কাছে জমা পড়েছে। যদিও রবিশঙ্কর প্রসাদ জানিয়েছেন, ‘ভারতবর্ষে ব্যবসা করার ক্ষেত্রে ডিজিটাল মাধ্যমের পথে কোনও বাধা দেওয়া হবে না। তাদের কাজ প্রশংসনীয়। স্পষ্ট বলে দেওয়া ভাল, সরকার কিন্তু সমালোচনাকে স্বাগত জানায়। নেটমাধ্যমের সাহায্যে মানুষ প্রশ্ন তুলতে পারেন। সেটার প্রয়োজন রয়েছে। নেটমাধ্যমের অপব্যবহার হলে নেটাগরিকরাই তার বিরুদ্ধে পদক্ষেপ করেন। কিন্তু যে ভাবে মহিলাদের আপত্তিকর ছবি কাটছাঁট করে সোশাল মাধ্যমে দেখানো হচ্ছে, সেটা অন্যায়। এছাড়া বর্তমানে অর্থনৈতিক প্রতারণা ও ভুয়ো খবরে ভরে যাচ্ছে দেশ’।
অপরদিকে ওটিটি (OTT) প্ল্যাটফর্ম এবং ডিজিটাল সংবাদমাধ্যমের উপরও নানান নিয়ম আরোপ করার ইঙ্গিত দিয়েছেন কেন্দ্রীয় তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী প্রকাশ জাভড়েকর। তিনি জানান, ওটিটি প্ল্যাটফর্ম ও ডিজিটাল সংবাদমাধ্যমকে একটি কমিটি তৈরি করতে হবে। যারা নজরদারি করবে বিষয়বস্তুর উপর। নেতৃত্বে থাকবেন কোনও উচ্চ আদালত ও শীর্ষ আদালতের অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি। বিষয়বস্তু নিয়ে অভিযোগ জমা পড়লে তার জন্য আদালতে শুনানি হবে। সবমিলিয়ে এবার থেকে ইন্টারনেটে বিতর্কিত ও আপত্তিজনক পোস্টের উপর নজরদারি চালানো হবে।

‘অযথা’ যাতায়াত রুখতেই 'সামান্য বেশি' ভাড়া নেওয়া হচ্ছে, সাফাই রেলের

গত বছরের মার্চ মাস থেকেই বন্ধ ছিল দেশের সমস্ত যাত্রীবাহী ট্রেন পরিষেবা। উদ্ভূত করোনা পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে যাতে সংক্রমণ দ্রুত ছড়িয়ে না পড়ে তার জন্যই বন্ধ করে দেওয়া হয় যাত্রীবাহী ট্রেন চলাচল। এরপর কিছু শ্রমিক স্পেশাল ট্রেন চললেও সাধারণ ট্রেন পরিষেবা এখনও চালু করেনি রেলমন্ত্রক। মে মাসের পর থেকে ধাপে ধাপে যাত্রীবাহী ট্রেন আংশিকভাবে চালু হয়েছে বটে তবে সেগুলি বিশেষ (Special) ট্রেন হিসেবেই চলছে। এরজন্য বাড়তি ভাড়া গুণতে হচ্ছে যাত্রীদের। এই বিশেষ ট্রেনের নামে কেন অতিরিক্ত অর্থ দিতে হবে যাত্রীদের? বিভিন্ন মহলে উঠছিল প্রশ্ন। এবার রেলমন্ত্রক এই নিয়ে ব্যাখ্যা দিল। রেলের সাফাই, অযথা ট্রেনে যাতায়াত বন্ধ করতে সামান্য বেশি টাকা নেওয়া হচ্ছে ভাড়ায়। এরফলে প্রয়োজন ছাড়া মানুষ ট্রেনে চরবেন না, ফলে করোনা সংক্রমণও ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা কমবে।

রেলমন্ত্রকের তরফ থেকে আরও বলা হয়েছে, করোনা পরিস্থিতির জন্য প্যাসেঞ্জার ট্রেনের ভাড়া ওই একই দূরত্বের অসংরক্ষিত মেল, এক্সপ্রেস ট্রেনের ভাড়ার সমান করা হয়েছে। প্রত্যেক যাত্রীকেই সিট রিজার্ভ করে ট্রেনে চাপতে হচ্ছে। ফলে অযথা ভিড় ঠেকানো গিয়েছে। করোনা সংক্রমণ যাতে দ্রুত ছড়িয়ে না পড়ে তার জন্যই এই সিদ্ধান্ত। রেলের দাবি, বর্তমানে প্রায় ৬৫ শতাংশ মেল ও এক্সপ্লেস ট্রেন চলছে। সাবার্বান ট্রেন পরিষেবা প্রায় ৯০ শতাংশ চালু হয়ে গিয়েছে। বর্তমান সময়ে ১২৫০ মেল-এক্সপ্লেস ট্রেন ও ৩২৬ প্যাসেঞ্জার ট্রেন চালাচ্ছে রেল। তবে স্বল্প দূরত্বের ট্রেন মোট ট্রেনের মাত্র তিন শতাংশ বলেই দাবি রেলের। লকডাউনের পরে পুরনো টাইমটেবিল অনুযায়ী ট্রেন এখনও চালু হয়নি।

ষাটোর্ধ্বদের সরকারি করোনা টিকা বিনামূল্যে, বেসরকারিতে লাগবে টাকা

কেন্দ্রীয় সরকার আগেই জানিয়েছিল ষাটোর্ধ্ব ব্যক্তি এবং ৪৫ বছরের নীচে যাদের কো-মর্বিডিটি আছে তাঁদের করোনার টিকা দেওয়া হবে পরবর্তী পর্যায়ে। আগামী ১ মার্চ থেকেই শুরু হচ্ছে করোনার টিকার এই দ্বিতীয় পর্যায়। বুধবারই নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীসভা এই বিষয়ে চুরান্ত ছাড়পত্র দিল। তবে দ্বিতীয় পর্যায়ে যেমন সরকারি টিকা কেন্দ্র থেকে টিকা নেওয়া যাবে, তেমনই বেসরকারি কেন্দ্র থেকেও টিকা নিতে পারবেন ইচ্ছুকরা। তবে বেসরকারি কেন্দ্র থেকে টিকা নিতে গেলে টাকা দিতে হবে ইচ্ছুকদের।  তবে কত টাকা দিতে হবে সেটা এখনও জানানো হয়নি।  কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক অবশ্য আগামী তিন-চারদিনের মধ্যেই সেটা জানিয়ে দেওয়া হবে। ঠিক হয়েছে দ্বিতীয় দফায় প্রাথমিকভাবে ১০,০০০ সরকারি এবং ২০,০০০ বেসরকারি কেন্দ্রে টিকা প্রদান করা হবে। অপরদিকে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে চিঠি লিখে জানিয়েছেন, রাজ্যের প্রত্যেকটি মানুষকেই বিনামূল্যে টিকা দিতে চান।



ভারতের আকাশে ইমরান

ইমরান খান প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর প্রথম শ্রীলংকা সফরে যাচ্ছেন। কলম্বো যেতে হলে পাকিস্তানের যে কোনও বিমানকে ভারতের উপর দিয়েই যাওয়াটাই স্বাভাবিক এবং এটাই পথ নতুবা সম্পূর্ণ আরব সাগর পার হয়ে ভারত মহাসাগরে পড়ে শ্রীলংকায় প্রবেশ করতে পারে যেটা বেশ সমস্যার। ভারতের কাছে পাকিস্তান এই সফরের বিষয়ে অনুমতি চাইলে তাদের প্রধানমন্ত্রীর সফরকে অনুমতি দেওয়া হয়। 
প্রসঙ্গত ২০১৯ এ ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি যখন সৌদি এবং আমেরিকা সফরে যান তখন পাকিস্তান তার আকাশ ব্যবহার করতে দেয় নি। কারণ দর্শানো হয়েছিল, কাশ্মীরের মানবধিকার লঙ্ঘন। এবারেও কিন্তু ভারত সেই ধরণের কোনও অজুহাত খাড়া করে নি। আন্তর্জাতিক প্রটোকল অনুযায়ি সম্পর্ক স্থাপনের জন্য কোনও দেশের উচিত নয় বিদেশকে অসহযোগিতা করা।

সাতবারের সাংসদের দেহ মিলল মুম্বইয়ের হোটেলে

মুম্বইয়ের একটি হোটেলের ঘর থেকে মিলল দাদরা ও নাগর হাভেলির সাত বারের সাংসদ মোহন দেলকরের মৃতদেহ। পুলিশের প্রাথমিক অনুমান ওই নির্দল সাংসদ আত্মহত্যা করেছেন। সূত্রের খবর, হোটের রুম থেকে একটি গুজরাটি ভাষায় লেখা সুইসাইড নোটও উদ্ধার করেছে মুম্বই পুলিশ। যদিও পুলিশের বক্তব্য, দেহ ময়নাতদন্তের পরই মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা সম্ভব। ফলে কোনও সম্ভবনাই উড়েয়ে দেওয়া যায়না। দাদরা ও নাগর হাভেলির সাত বারের সাংসদ মোহন দেলকর এলাকায় যথেষ্ঠ প্রভাবশালী ছিলেন। পাশাপাশি তিনি সংসদে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ কমিটির সদস্যও ছিলেন মোহন দেলকর। তিনি তিনবার কংগ্রেসের এবং তিনবার বিজেপির টিকিটে লোকসভায় জিতে সাংসদ হয়েছেন। তবে শেষবার নিজের প্রতিষ্ঠিত নবশক্তি পার্টির চিহ্নে জিতেই সাংসদ ছিলেন। সোমবারই তাঁর মৃতদেহ উদ্ধার হয় মুম্বইয়ের এক বিলাশবহুল হোটেলের ঘর থেকে। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে মুম্বই পুলিশ।

মার্চের প্রথম সপ্তাহেই ভোট ঘোষণা, অসমে ইঙ্গিত দিলেন মোদি

সোমবার বিকেল সাড়ে তিনটে নাগাদ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বিশেষ বিমান কলকাতা বিমানবন্দরে অবতরণ করে। এর আগে এদিন সকালে তিনি অসমের ধোমাজি এলাকায় এক সভা করলেন। সেখান থেকেই তিনি ইঙ্গিত দিলেন কবে ভোট ঘোষণা করতে পারে জাতীয় নির্বাচন কমিশন। অসমের সভা থেকে এদিন প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘মার্চের প্রথম সপ্তাহেই কমিশন বিধানসভা ভোটের দিন ঘোষণা করতে পারে। কমিশন নিজের কাজ করবে। তবে তার আগে যতবার সম্ভব আমি অসমে আসব’। উল্লেখ্য, একবার নির্বাচনের দিনক্ষণ ঘোষণা হলেই কোনও সরকারি প্রকল্প উদ্বোধন বা ঘোষণা করা যায়না। প্রশাসন চলে যায় নির্বাচন কমিশনের আওতায়। তাই ভোটের আগে সরকারি সফরে অসম ও পশ্চিমবঙ্গ সহ পাঁচটি রাজ্যে যতবার সম্ভব সফর করতে চান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এদিন প্রধানমন্ত্রী ইঙ্গিত দিলেন, গত বারও ৪ মার্চ ভোটের দিনক্ষণ জানিয়েছিল কমিশন। তাই এইবার একই সময় ঘোষণা হতে পারে।