হেঁশেল
সর্বশেষ আপডেট
অনেকে পড়ছেন
ছুটির বিকেলে চায়ের সাথে ‘চিড়েভাজা’

প্রয়াত কবি/সাহিত্যিক সুকুমার রায় লিখেছিলেন " খাই খাই করো কেন, এসো বসো আহারে ..."| বসন্তকালে সবারই হজমশক্তি ভালো থাকে এবং পেটের রুগীরও পেটের অবস্থা মন্দের ভালো থাকে।  হজম ভালো মানে খিদেও পায় ঘন ঘন। একটা সময়ে বাংলার মানুষ মুড়ির সাথে চিড়েভাজাও খেতেন। কিন্তু আজকাল কে আবার বানাবে? তাই বাজারে চিড়ে ভাজার রকমারি প্যাকেট এসে গেছে। কিন্তু ওই প্যাকেটের চিড়ের স্বাদ বাড়ির বানানোর মতো মোটেই নয়। বরং সহজেই বানিয়ে ফেলুন না বাড়িতে ...


উপকরণঃ আলুভাজার মতো ছোট এবং সরু করে আলু কাটুন। লঙ্কাকুঁচি কেটে রাখুন। সামান্য হলুদ গুঁড়ো, সামান্য কালো জিরে এবং চাই সাদা তেল।


রেসিপিঃ আলুর সঙ্গে হলুদ গুঁড়ো এবং কালো জিরে মিশিয়ে সাদা তেলে ভেজে ওতেই লংকা কুঁচি দিয়ে দিন। ভাজা আলু তুলে রাখুন, এবার কম আঁচে সাদা তেলে পরিমান মতো নুন দিয়ে চিড়ে ভিজে ফেলুন। তেলে শুকনো চিড়ে দেওয়ার সাথে সাথে ফুলে উঠলে তুলে পাত্রে রাখুন। চিড়ে ভাজার নিয়মই হচ্ছে অল্প অল্প করে ভেজে তুলে রাখতে হবে। এবার ভাজা আলুর সাথে চিড়ে মিশিয়ে খেয়ে করে দেখে নিন নুন ঠিক আছে কি না। এবার চা-এর সাথে বিকেলের 'টা' তৈরি।

....

4 days ago

ভিডিও খবর

Popular TV Programme

ক্লিয়ার সি ফুড স্যুপ

শীতে স্যুপের জুড়ি নেই। গরম স্যুপ ঠাণ্ডার সমস্যার দূর করে। এছাড়া শরীরকে ভেতর থেকে গরম রাখে।

জানুন কীভাবে তৈরি করবেন ক্লিয়ার সি ফুড স্যুপ

উপকরণ

জলপাই তেল ১ টেবিল চামচ, রসুন কুচি ২ কোয়া, আদা কুচি ১ টেবিল চামচ, লেবুর খোসা মিহি কুচি ১ চা-চামচ, শুকনো লঙ্কাগুঁড়ো সিকি চা-চামচ, ৪ কাপ চিকেন স্টক, সয়াসস ১ টেবিল চামচ, ১ টেবিল চামচ লেবুর রস, পাতলা টুকরা করা ৩টি গাজর, ডাইস করা ১০০ গ্রাম স্ক্যালোপ, খোসা ছাড়ানো বড় চিংড়ি টুকরো করে কাটা ১০০ গ্রাম, তিলের তেল ১ টেবিল চামচ, কচি পেঁয়াজ ৪টি (কুচি করা) এবং ধনেপাতা কুচি ২ টেবিল চামচ।

যেভাবে তৈরি করবেন

একটি বড় সসপ্যানে তেল গরম করে রসুন, আদা, লেবুর খোসা এবং লঙ্কাগুঁড়ো দিয়ে গন্ধ আসা পর্যন্ত রান্না করেত থাকুন। এরপর চিকেন স্টক, সয়াসস এবং লেবুর রস দিয়ে ফুটে ওঠা পর্যন্ত রান্না করুন। এবার গাজর যোগ করুন। উনুনের আঁচ কমিয়ে ১৫ মিনিট পর্যন্ত নাড়তে থাকুন। স্ক্যালপ, চিংড়ি, তিলের তেল এবং পেঁয়াজ দিয়ে কয়েক মিনিট রান্না করুন। রান্না হলে নামিয়ে ধনে পাতা দিয়ে পরিবেশন করুন।

বিবিখানা পিঠে

শীতে খেজুরের রসের কদর বেড়ে যায়। নানাভাবে এই রস খাওয়া যায়। এই রস দিয়ে তৈরি হয়ে থাকে সুস্বাদু বাহারি পিঠে। খেঁজুরের রসের দুধ চিতই, পায়েস হয়তো খেয়ে থাকবেন আপনিও। তবে বিবিখানা পিঠের স্বাদও কিন্তু ভোলার নয়।
আসুন জেনে নিই কীভাবে তৈরি করবেন বিবিখানা পিঠে-
উপকরণ
চালের গুঁড়ো দেড় কাপ, খেজুরের ঘন রস ১ কাপ, ডিম ১টা, নুন সামান্য, দুধ ২ টেবিল চামচ, ঘি ১ চা চামচ।
যেভাবে তৈরি করবেন
সব উপকরণ একসঙ্গে মেখে ব্যাটারের মতো বানিয়ে নিন। এরপর কড়াইতে তেল অথবা ঘি মেখে তাতে এই ব্যাটার ছড়িয়ে উনুনে প্রথমে মাঝারি আঁচে ২-৩ মিনিট রাখতে হবে। এর পর অল্প আঁচে রাখতে হবে। টুথপিক অথবা সরু কাঠি দিয়ে মাঝখানে ঢুকিয়ে দেখতে হবে। টুথপিকে কিছু লেগে না এলে বুঝতে হবে পিঠে হয়ে গেছে। ঠাণ্ডা হলে কেটে পরিবেশন করুন।

হোম মেড ফ্রাইড রাইস

না দোকানের বা বিয়েবাড়ির নয়, চিনা দোকানের তো নয়ই, একদম বাড়ির বানানো ভাত ভাজা। শীতের দুপুরে কিংবা অফিস থেকে ফিরে রাতের ডিনার, খেতেই পারেন বাড়ির বানানো ফ্রাইড রাইস |

কী কী লাগবে ?
১) চারজনের মতো ভাত,  ২) একটি গাজর কুচি কুচি করে কাটা, ৩) স্প্রিং ওনিয়ন ছোট করে কাটা, ৪) টমেটো একটা বড় টুকরো টুকরো করে কাটা,  ৫) একটা বড় অথবা মাঝারি দুটো পেয়াঁজ কুচি করে কাটা, ৬) লঙ্কা কুঁচি, ৭) বাদাম তেল |


প্রস্তুতি :-


সাদা তেলে গাজর, টমেটো, স্প্রিং ওনিয়ন, পেয়াঁজ ভেজে নি।ন লালচে হয়ে যাওয়ার পর ভাত ছেড়ে দিন ওই কড়াইতে ভেজে নিন, সামান্য নুন, লঙ্কা এবং ভিনিগার থাকলে ওই ভাজার মধ্যে দিয়ে আরও ২ মিনিট ভেজে তুলে নিন। হয়ে গেল ফ্রাইড রাইস।
যদি একটু আমিষ করতে চান তো লাগবে, দুটো ডিম, ১০০ গ্রাম চিংড়ি মাছ। প্রথমে চিংড়ি মাছ ভেজে নিন কুড়কুড়ে করে। আলাদা করে রাখুন। এবার ওই ভাত ভাজার মধ্যে ছড়িয়ে দিন চিংড়ি এবং দুটো ডিম ফেটিয়ে ভাতের মধ্যে ছড়িয়ে ফের কিছুক্ষণ ভাজুন তারপর তুলে নিন |

চিকেন ডাম্পলিং সুপ

ডাম্পলিং চিনের খুব জনপ্রিয় একটা খাবার। ধীরে ধীরে এর জনপ্রিয়তা ছড়িয়ে পড়েছে চিনের বাইরে। আর সুপ তো সারা বিশ্বেই প্রচলিত। এবার দেখে নিন চাইনিজ ডাম্পলিং সুপের রেসিপি। ঠিকমতো বানাতে পারলে একদম চাইনিজ রেস্তরাঁর মতোই স্বাদ পাবেন।


উপকরণ
মুরগির বুকের মাংস দেড় কাপ, আদা রসুন পেস্ট ১ টেবিল চামচ, নুন পরিমাণমতো, বিনস কুচি ১/২ কাপ, পেঁয়াজ কিউব করে কাটা ১/২ কাপ, বাটার ৪ টেবিল চামচ, হেভি ক্রিম (না থাকলে ডানো ক্রিম বা নেসলে ক্রিম দিলেও হবে), থাইম ১/২ চা চামচ, গোল মরিচ গুঁড়ো ১ চা চামচ, চিকেন স্টক ৩ কাপ (তরল স্টক না পাওয়া গেলে কিউব স্টক জলে গলিয়ে ব্যবহার করতে হবে), ময়দা ১ কাপ + ২ টেঃ চামচ, মটর শুঁটি ১/২ কাপ, বেকিং পাউডার ১/২ চা চামচ, রসুন কুচি ২ টো, কাঁচালঙ্কা কুটি পরিমাণমতো, ধনেপাতা কুচি পরিমাণমতো, ভেজিটেবল তেল ১ টেবিল চামচ।


পদ্ধতি
একটা প্যানে তেল ও ১ টেবিল চামচ বাটার দিয়ে মাংসের টুকরোগুলো একটু ভাজা ভাজা করে তুলে নিন, এবার সে প্যানে গাজর, বিনস, পেয়াজ কুচি দিয়ে একটু হালকা ভেজে ময়দা, রসুন কুচি, বাটার দিয়ে কিছু সময় নেড়ে চিকেন স্টক, মটরশুঁটি, ক্রিম, ভাজা মাংস, থাইম দিয়ে রান্না করুন। একটা বোলে ১ কাপ ময়দা, পরিমাণমতো গোল মরিচ , বেকিং পাউডার, নুন, হেভি ক্রিম দিয়ে ভালো করে মেখে ছোট ছোট বলের আকার দিয়ে স্যুপের প্যানে ছেড়ে দিয়ে প্যানে ঢাকনা দিয়ে ১৫ মিনিটের মতো রান্না করুন। যখন বলগুলো আকারে বড় হয়ে যাবে এবং সব সেদ্ধ হয়ে যাবে তখন  কাঁচা লঙ্কা কুচি ও ধনেপাতা কুচি দিয়ে নেড়ে মিক্স করে পরিবেশন করেন। (অল বাংলা রেসিপি)