পরীক্ষার উত্তরপত্র দেখে হেসে গড়াগড়ি

স্কুলে পড়া না পারা কিংবা পরীক্ষার খাতায় এর দেখে ওর দেখে লেখা, সে তো চলেই আসছে। তবে এবার ঘটল এক অবাক করা কাণ্ড। সম্প্রতি এক ছাত্রের উত্তরপত্র ভাইরাল হয়ে ছড়িয়ে পড়েছে সর্বত্র। যা দেখে নেট নাগরিকরা হেসেই গড়াগড়ি। ঠিক কী ছিল ওই উত্তরপত্রে ? দেখা যাচ্ছে, ওই ছাত্র তাঁর উত্তরপত্রে যতরকম সম্ভব আজগুবি উত্তর লিখেছেন, যেসবের সঙ্গে প্রশ্নের কোনও মিলই নেই।  

যা দেখে কেউ কেউ তো আবার সোশ্যাল মিডিয়ায় মন্তব্য করেন, যে শিক্ষক উত্তরপত্র দেখেছেন, তিনি কোমায় চলে যাননি তো! নেটিজেনদের একাংশের মজার ছলে মন্তব্য, যে ছাত্র এই কাজটি করেছে, বলা যায়, সে খুব ট্যালেন্টেড। তবে ওই উত্তরপত্রে ১০ এর মধ্যে ০ দেওয়া হয়েছে। 

স্কুল-কলেজে সব সময়ই বিভিন্ন ধরনের ছাত্র-ছাত্রী দেখা যায়। এদের মধ্যে অনেকে অল্পেতেই পড়া বুঝে নেয়। আবার অনেকে কিছুতেই সেটি বুঝতে পারে না। এক-একজনের ক্ষমতা এক-এক রকমের হয়। কিন্তু তা বলে উত্তরপত্রে যা খুশি লেখা, এটা অনেককেই অবাক করেছে। 

সেই মজার উত্তরপত্র একবার দেখে নেওয়া যাক। এই মজাদার উত্তরপত্রটি ইনস্টাগ্রামে ফান কি লাইভে শেয়ার করা হয়েছে। তার পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ছিল আসলে ভাকরা-নাঙ্গাল প্রোজেক্ট নিয়ে। যদিও সেই প্রশ্নের উত্তরের শুরুতেই ছাত্র লিখেছেন যে সতলুজ নদীর উপর রয়েছে এই ভাকরা-নাঙ্গাল বাঁধ। 

এখানেই শেষ নয়, উত্তর ধীরে ধীরে যত এগতে থাকে, তার মধ্যে দেখা গিয়েছে আরও চমক। ওই প্রশ্নের উত্তরের মধ্যেই জায়গা করে নিয়েছে সর্দার প্যাটেল, টাটা, পণ্ডিত জওহরলাল নেহরু, গোলাপের ক্ষেত, চিনি, লন্ডন, জার্মানি এবং বিশ্বযুদ্ধ ইত্যাদির মতো বিষয়ও। যার সঙ্গে প্রশ্নের কোনও সম্পর্কই নেই। এসব দেখেই শিক্ষকের চক্ষু চড়কগাছ।

 তবে শিক্ষকও থাকতে না পেরে শেষমেশ সেই উত্তরপত্রে লিখেছেন, এই উত্তর দেখে কোমায় চলে গেছি। এখানে ভূগোল, ইতিহাস, কলা, সাহিত্য সব একাকার। তবে নেট নাগরিকদের কেউ কেউ বলছেন, সত্যি ছেলের এলেম আছে। 

....

14 hours ago