আমেরিকায় সালমোনেলা সংক্রমণ

সালমোনেলা।

 একে করোনায় রক্ষে নেই। তার ওপর নয়া আতঙ্ক এই সালমোনেলা।

আমেরিকায় গত আগস্ট এবং সেপ্টেম্বর জুড়ে এই ব্যাকটেরিয়ার ছোবলে অসুস্থ নয় নয় করে ৬৫০ জন। হাসপাতালে ভর্তি করতে হয়েছে প্রায় ১৩০ জনকে। এখনও পর্যন্ত মৃত্যুর খবর নেই। সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন যে তথ্য দিয়েছে, তাতে এই রোগের উৎস হল পেঁয়াজ। আরও পরিষ্কার করে বললে লাল, সাদা এবং হলুদ পেঁয়াজ। সবটাই মেক্সিকো থেকে রপ্তানিকৃত। রপ্তানির উৎসকে সিল করা গেলেও আতঙ্কের চোরাস্রোত এখনও বইছে। কারণ, সেই পেঁয়াজ তো অনেকেরই কাছে রয়েছে এখনও।

কী এই সালমোনেলা?

সালমোনেলা হল খুবই কমন ব্যাকটেরিয়া সংক্রমণ, যা ইন্টেস্টিনাল ট্র্যাক্টকে আক্রমণ করে এবং এর থেকে পেটের নানারকম সমস্যার সৃষ্টি হয়।

এই রোগের লক্ষণ হল ডায়ারিয়া, জ্বর এবং পেটের ব্যথা। বিষাক্ত খাবার খাওয়ার পর ন্যূনতম ৬ ঘণ্টা থেকে শুরু করে ৬ দিনের মধ্যে লক্ষণগুলি ফুটে ওঠে। যার স্থায়িত্ব ৪ থেকে ৭ দিন পর্যন্ত। খুব অল্প হলেও এর থেকে ইউরিন, ব্লাড, বোন জয়েন্ট, নার্ভাস সিস্টেমও আক্রান্ত হতে পারে।

সিডিসি জানিয়েছে, অসুস্থদের সঙ্গে কথা বলে জানা গিয়েছে, বেশিরভাগই ওই ব্যাকটেরিয়ার কবলে পড়েছে কাঁচা পেঁয়াজ খেয়ে। তবে এই রোগের উৎস একাধিক। তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হল কাঁচা মাংস, পোলট্রি এবং সামুদ্রিক মাছ, কাঁচা ডিম, ফল এবং শাকসবজি।

ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের তথ্য বলছে, মশলা থেকেও এই রোগ ছড়িয়েছে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এটা মারণ রোগ নয়। তবে কিছু কিছু ক্ষেত্রে তা ভয়াবহ হতে পারে। বিশেষত, শিশু, বয়স্ক, গর্ভবতী মহিলা, যাদের অঙ্গ প্রতিস্থাপন হয়েছে এবং যাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কম, তাদের ক্ষেত্রে জটিলতা বাড়তে পারে।

তবে চিকিৎসকরা আশ্বস্ত করছেন, এই রোগের নির্দিষ্ট কোনও চিকিৎসা নেই। সাধারণ চিকিৎসার মাধ্যমেই মানুষ ধীরে ধীরে সুস্থ হয়ে ওঠেন।যদিও উদ্বেগের জায়গা একটা থেকেই যাচ্ছে। 

....

3 days ago