রাজ্যে আর্কটিক স্কুয়া

0
213

বহু বছর পর রাজ্য হাজির আর্কটিক স্কুয়া। বকখালির ফ্রেজারগঞ্জের মোহনায় উড়ে এসে কিছুক্ষণের জন্য বসেছিল এই পাখি। বার্ড ফটোগ্রাফার ন্যাচারালিস্ট জয়ন্ত মান্না এবংহ তারই তিন সহকর্মী দক্ষিণ সুন্দরবনের ফ্রেজারগঞ্জ বঙ্গোপসাগরের কার্গিল মোহনায় দেখতে পান পরিযায়ী পাখি।
আসল নাম প্যারাসিটিক জেগার। স্কুয়া পরিবারের এই আর্কটিক স্কুয়া সামুদ্রিক পাখি। জার্মান শব্দ জেগার মানে শিকারি। ডেনমার্কের উত্তরে স্কুভয় দ্বীপে রয়েছে পাখিদের নিবিড় বসতি। সেই থেকেই ইংরেজি স্কুয়া শব্দ এসেছে। পাখিটির ডাক অনুনাসিক। উড়ান বাজের মতো। তাদের মাথা, ঘাড় হলদেটে সাদা, মাথায় কালো টুপি, ডানায় সাদার ছিঁটে।
ইউরোপ, এশিয়ার উত্তর এবং উত্তর আমেরিকায় এই আর্কটিক স্কুয়াদের জন্ম, বৃদ্ধি। উত্তর আয়ারল্যান্ডে প্রচুর এই পাখিদের দেখা মেলে। স্কুয়াদের খাদ্য মরা ইঁদুর, পোকামাকড়, ছোট পাখি। তবে খাবারের বেশিটাই অন্য পাখিদের থেকে ছিনিয়ে নেওয়া।
এরাজ্যে বিরল এই পরিযায়ী। চেন্নাই ,ওড়িশা, কর্নাটকে দেখা যায় এদের। সাধারনত এদের দেকতে পাওয়া যায় মার্চ -এপ্রিল মাসে। এশিয়ায় দেখা যায় অক্টোবর থেকে এপ্রিল ।

SHARE