শিরোনাম
sunderban-drinking-water-contaminated
Sunderban সুন্দরবনে পানীয় জলে আন্ত্রিকের সমস্যা মেটাতে নতুন প্রকল্প


Post By : সিএন ওয়েবডেস্ক
Posted on :2021-11-22 15:33:19

এমনিতেই একের পর এক প্রাকৃতিক দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্ত দক্ষিণ ২৪ পরগনার সুন্দরবনবাসী। চাষের জমি থেকে বসত ভিটে, চোখের সামনে নষ্ট হয়ে যেতে দেখেছেন দুর্গত বাসিন্দারা। আমফান, বুলবুল, ফণি ও ইয়াসের মতো ঘূর্ণিঝড়ে সুন্দরবনের বিস্তীর্ণ এলাকা প্লাবিত হয়েছিল। বেশিরভাগ জায়গায় কোথাও বাঁধ উপচে, কোথাও বাঁধ ভেঙে নোনা জল ঢুকে পড়েছিল। যার জেরে ক্ষতিগ্রস্ত হয় সুন্দরবনের পানীয় জলের পরিষেবা। এর ফলে সামান্য পানীয় জল পেতে মানুষকে মাথা খুঁড়ে মরতে হয়েছে।  

শুধু পানীয় জল পাওয়াই সমস্যা, এমন নয়। যে জল মিলছে, তাও অনেক ক্ষেত্রে দূষিত। নদীর নোনা জল ঢুকে যাওয়ায় বিভিন্ন টিউবওয়েলে পুকুরের জল ভর্তি হয়ে জল দূষিত গিয়েছিল। ফলে আন্ত্রিক ও কলেরার মতো রোগ লেগেই থাকত। যার জেরে বেশ বিপাকে পড়েছিলেন সুন্দরবনের কয়েক লক্ষ মানুষ। বসিরহাট মহকুমার সুন্দরবনের সন্দেশখালি, হিঙ্গলগঞ্জ, হাসনাবাদ ও মিনাখাঁর বিস্তীর্ণ এলাকা এই সমস্যায় জর্জরিত হয়েছিল। সেই সমস্যা সমাধানে সুন্দরবনবাসীকে স্বচ্ছ পানীয় জলের পরিষেবা দিতে উদ্যোগী হল ক্যালকাটা রোটারি ক্লাবের আলিপুর শাখা।

টাটার তৈরি জল শোধন মেশিনের সাহায্য নিয়ে সন্দেশখালি ১ নং ব্লকের ন‍্যাজাটে বসল স্বচ্ছ পানীয় জলের প্রকল্প। প্রায় ৫ থেকে ৬ লক্ষ টাকা ব্যয়ে এই মেশিন থেকে ঘণ্টায় ১০০০ লিটার করে জল পাবেন সুন্দরবনের মানুষ। উপকৃত হবেন প্রায় সাত থেকে আটটি গ্রাম। স্বচ্ছ পরিশুদ্ধ পানীয় জল পেতে দীর্ঘ পথ অতিক্রম করতে হত এতদিন এলাকাবাসীকে। এখন হাতের নাগালেই এই পরিশুদ্ধ জল পেয়ে যথেষ্টই খুশি তাঁরা। আগামী দিনে সুন্দরবনের একাধিক এলাকায় অর্থাৎ হিঙ্গলগঞ্জ, হেমনগর ও সন্দেশখালি সহ দক্ষিণ ২৪ পরগনার কাকদ্বীপ ও গোসাবাতেও এই জল প্রকল্প সূচনা করার চিন্তাভাবনা রয়েছে উদ্যোক্তাদের। 

জীবনধারনের জন্য জল হল অন্যতম উপাদান। তাই জল সংকটে থাকা মানুষের পাশে থাকার এই মহতী উদ্যোগে খুশি সুন্দরবনবাসী।




All rights reserved © 2021 Calcutta News   Home | About | Career | Contact Us