ব্রেকিং নিউজ
no-water-no-road-vote-boicott-howrah
নেই জল, নেই রাস্তা, ভোট বয়কটের ডাক হাওড়ায়


Post By : সিএন ওয়েবডেস্ক
Posted on :2021-11-11 15:18:14


দীর্ঘ বঞ্চনার অভিযোগ। নেই জল, নেই রাস্তা।একের পর এক নির্বাচন আসে , সরকার গঠন হয়। কিন্তু বঞ্চনার অভিযোগ জমতেই থাকে সাধারণ মানুষের মধ্য়ে। সামনেই পুরসভা নির্বাচন। গণতান্ত্রিক পদ্ধতির মাধ্য়মে ভোটে আম জনতা রাজনৈতিক নেতাদের ভাগ্য় নির্ধারণ করেন।কিন্তু এতে তাঁদের নিজেদের ভাগ্য় নির্ধারিত হয় কি? বোধহয় হয় না।রাস্তা, পানীয় জল সহ নানা বিষয়ে বঞ্চনার বিস্তর অভিযোগ পুঞ্জীভূত হয়। এক্ষেত্রেও তার ব্য়তিক্রম হয় নি।রাস্তার বেহাল দশা  ও পানীয় জলের অভাব ও নিকাশি ব্যবস্থার দাবিতে হাওড়ার ৪৬ নম্বর ওয়ার্ডের উনসানী ষষ্ঠীতলার বাসিন্দারা ভোট বয়কটের ডাক দিলেন।

গরপা মোড়ের পর থেকে ষষ্ঠীতলা পর্যন্ত এলাকা জুড়ে লাগানো হলো পোস্টার। পাশাপাশি ওয়ার্ডটি সংরক্ষিত করা যাবে না।  আগের মতো সাধারণ প্রার্থীদের জন্য রাখতে হবে। জগাছা থানার উনসানি দক্ষিণপাড়া,লস্করপাড়া, মীরপাড়া, মিস্ত্রীপাড়া, মল্লিকপাড়া এলাকার প্রায় তিরিশ হাজার মানুষের বাস হলেও এলাকার নাগরিকদের দাবি, সেই ওয়ার্ডে মাত্র ৫ শতাংশ তপশিলি সম্প্রদায় মানুষের বাস। এখন সেই ওয়ার্ডটিতে আসন সংরক্ষিত করা হচ্ছে বলে তাঁরা জানতে পেরেছেন। যা বিগত ৫০ বছর ধরে ছিল না। ওয়ার্ডটিতে জেনারেল কাস্ট প্রার্থীই চাই।  না হলে ভোট দেওয়া হবে না জানিয়ে অতি সম্প্রতি এলাকা পোস্টারে ছয়লাপ হয়ে যায়। 

এছাড়াও জমা জলের নিকাশি ব্যবস্থা ও অবিলম্বে পানীয় জলের বন্দোবস্ত করতে হবে, এই দাবিতে ভোট বয়কটের ডাক। ভরা বর্ষায় কোমর সমান জলে দুর্বিষহ জীবন কাটাতে হয় এলাকাবাসীকে। তার উপর জমা জলে রয়েছে সাপ সহ অন্য়ান্য় পোকামাকড়ের উপদ্রব। রীতিমতো আতঙ্কে দিন কাটান পুরনাগরিকরা।স্থানীয়রা পাকা রাস্তার দাবিতে সরব। ভোটের সময় রাজনৈতিক নেতাদের দেখা মেলে, কিন্তু ভোট ফুরোলই আর কেউ খোঁজ নেয় না, এমনই অভিযোগ এলাকাবাসীর। অন্য়ান্য় জায়গায় টাইম কল দিলেও এখানে পানীয় জলের পরিষেবা থেকে বঞ্চিত বাসিন্দারা। ফলে এবারে ভোট বয়কটের পথে হাঁটছেন পুরবাসীরা।

এক দুই বছর নয, বঞ্চনার শুরু বাম আমল থেকেই। বর্তমান সরকারও উদাসীন, অভিযোগ, বছরের পর বছর প্রশাসনের কাছে রাস্তা ও পানীয় জলের দাবিতে দরবার করেও কোনও সুরাহা হয়নি। চরম দুর্ভোগে পুর নাগরিকরা। এবার নিজেদের দাবিতে অনড় পুরবাসীরা, তাই ভোট বয়কটকেই হাতিয়ার করলেন তাঁরা। বেহাল রাস্তা, এলাকায় জল জমে থাকা, পানীয় জলের সমস্যা এইসব বিষয়ে নাগরিকদের অসুবিধার কথা স্বীকার করেছেন ৪৬ নম্বর ওয়ার্ডের তৃণমূল কংগ্রেস ওয়ার্কিং প্রেসিডেন্ট তাইবুর রহমান দর্জি।

অন্যদিকে তিন বছর ধরে কর্পোরেশনের পক্ষ থেকে নাগরিক পরিষেবা শিকেয় উঠেছে, নাগরিক পরিষেবা পাওয়া থেকে বঞ্চিত মানুষ। তাই মানুষের ক্ষোভ- বিক্ষোভ হওয়া স্বাভাবিক, বললেন বিজেপি নেতা রথীন চক্রবর্তী ।





All rights reserved © 2021 Calcutta News   Home | About | Career | Contact Us