ব্রেকিং নিউজ
  (12:20 PM)-এখনও সংকট কাটেনি পদ্মশ্রী পুরস্কারপ্রাপ্ত কার্টুনিস্ট নারায়ণ দেবনাথের     (12:18 PM)-মদন মিত্রকে এবার সতর্ক করল দল     (11:17 AM)-ওমিক্রন আক্রান্তের সংখ্যা গোটা দেশে বেড়ে দাঁড়াল ৮২০৯, সুস্থ ৩১০৯     (11:14 AM)-করোনা রুখতে সকাল ১০টার পর থেকে বন্ধ গ্যালিফ স্ট্রিটের পাখিবাজার     (11:02 AM)-সিঁথি থানা এলাকায় রামলীলা বাগানের একটি বাড়িতে ভোররাতে আগুন লাগল     (08:54 AM)-প্রখ্যাত কত্থক শিল্পী পণ্ডিত বিরজু মহারাজ প্রয়াত     (08:48 AM)-সিরিয়াল দেখার ফাঁকে কসবায় দুঃসাহসিক চুরি     (08:48 AM)-রাজ্যের করোনা আক্রান্ত কমলেও মৃত্যুসংখ্যা উর্ধ্বমুখীই     (08:47 AM)-তাপমাত্রা স্বাভাবিকের নিচে, ফের বঙ্গে শীতের আমেজ  
no-development-echchai-ghosh-sarovar-durgapur-bengal
অবহেলিত দুর্গাপুরের ইচ্ছাই ঘোষ সরোবর


Post By : সিএন ওয়েবডেস্ক
Posted on :2021-11-10 16:49:02


ইতিহাসের স্মৃতি বিজড়িত দূর্গাপুরের ইচ্ছাই ঘোষ সরোবর। সংস্কারের অভাবে দীর্ঘদিন নোংরা-আবর্জনা এবং আগাছা জমেছে সরোবরে। বহুবার সংস্কারের কথা বলা হলেও প্রতিশ্রুতি রাখা হয়নি, অভিযোগ এমনটাই। যার জেরে ক্ষোভে ফুঁসছেন এলাকার মানুষ। 

দুর্গাপুর নগর নিগমের ২২ নম্বর ওয়ার্ডেই পড়ে বেঙ্গল অম্বুজা উপনগরী। শহরের প্রাণকেন্দ্র সিটি সেন্টারের গা ঘেঁসা এই অঞ্চলে রয়েছে ইচ্ছাই ঘোষ সরোবর। ইতিহাসের পাতায় মোড়া এই সরোবর এখন অনাদরে। প্রায় কুড়ি বিঘা জমি জুড়ে  স্মৃতি বিজড়িত এই ইচ্ছাই ঘোষের সরোবর। প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছিল, এই সরোবরটির রক্ষণাবেক্ষণ করা হবে, সৌন্দর্যায়ন করা হবে। যাতে পর্যটনের অন্যতম পীঠস্থান হতে পারে এই সরোবর। 

স্থানীয় এক ব্যক্তি গৌতম ডাঙড় জানান, একটা সময় শীত এলেই পরিযায়ী পাখিরা ভিড় জমাত এখানে। কিন্তু আজ তারাও আর আসে না। সংস্কারের অভাবে আগাছায় ঢেকেছে গোটা সরোবর। নোংরা-আবর্জনা সবই ফেলা হচ্ছে এই সরোবরটিতে। আগে এই সরোবরের জলেই এলাকার মানুষ ধর্মীয় আচার-রীতি সবই করত। আজ সেই দিন আর নেই। নোংরা-আবর্জনার মাঝে পড়ে হাঁসফাঁস করছে এই স্থান।

স্থানীয়দের একাংশের অভিযোগ, ইচ্ছাকৃতভাবে দুর্গাপুরের ইচ্ছাই ঘোষ সরোবরের সংস্কার করা হচ্ছে না, আর যার জন্য এই সরোবর আজ একটু একটু করে দখল হয়ে গেলেও হুঁশ নেই কারও। অবিলম্বে ইচ্ছাই ঘোষের সরোবর সংস্কারের দাবি তুলেছেন স্থানীয়রা।

 স্থানীয় বাসিন্দা রিনা চ্যাটার্জি জানান, অনেকদিন ধরেই শুনছি সংস্কারের কাজ হবে, তবে তা কবে হবে জানা নেই। আগে এখানকার ফুল তুলে মন্দিরে পুজো হত। এখন সবটাই জঙ্গলে পরিণত হয়েছে। পুকুরটা ঠিক হলে বহু মানুষের উপকার হত। মন্দিরে পুজোরও বেশ সুবিধা হত।   

এত বড় একটি সরোবর সংস্কার আর সৌন্দর্যায়নের দায়িত্বে রয়েছে আসানসোল দুর্গাপুর উন্নয়ন পর্ষদ বা এডিডিএ।  ২০০৯ সাল থেকে এই সরোবরকে প্রোমোটারিরাজের গ্রাসের মুখ থেকে ফিরিয়ে আনতে আন্দোলন শুরু হয়েছিল। এরপর রাজ্যে ক্ষমতায় আসে তৃণমূল কংগ্রেস। স্বাভাবিকভাবেই স্বশাসিত আসানসোল দুর্গাপুর উন্নয়ন পর্ষদ বা এ ডি ডি এ-র চেয়ারম্যানের পদে বসেন তৃণমূল কংগ্রেসের বিধায়ক। বর্তমান চেয়ারম্যান তাপস বন্দ্যোপাধ্যায় এখন রানীগঞ্জের তৃণমূল বিধায়ক। 

তাপস বন্দ্যোপাধ্যায় জানালেন, খুব তাড়াতাড়ি এই সরোবরের সংস্কারের কাজ শুরু হবে, একই সাথে হবে উন্নয়নমূলক অনেক কাজ। আর সবটাই হবে এই সরোবরকে ঘিরে।

দূর্গাপুর নগর নিগমের বিজেপি কাউন্সিলার চন্দ্রশেখর বন্দ্যোপাধ্যায়ের অভিযোগ, গোটা ব্যাপারটার মধ্যে একটা রহস্য কাজ করছে। তাঁর অভিযোগের তির আসানসোল দূর্গাপুর উন্নয়ন পর্ষদ বা এ ডি ডি এ-র বিরুদ্ধে। তিনি জানান, ওই জায়গা সংস্কার করে নানা ধরনের আলোকসজ্জা, বোর্টিংয়ের ব্যবস্থা করা যেতেই পারে। কিন্তু ওরা এসব না করে জমি নিয়ে বিবাদ সৃষ্টি করছে। 

এখন দেখার বিষয়, এই ইচ্ছাই ঘোষের সরোবর কি আবার আগের স্বমহিমায় ফিরে আসবে, নাকি থেকে যাবে এভাবেই অবহেলিত। 





All rights reserved © 2021 Calcutta News   Home | About | Career | Contact Us