ব্রেকিং নিউজ
mobile-housewife-murder
Crime: সারাদিন মোবাইলে কথা, সন্দেহের জেরে খুন গৃহবধূ?


Post By : সিএন ওয়েবডেস্ক
Posted on :2021-11-14 20:14:08


স্ত্রী নাকি সারাদিন মোবাইল ফোনে কথা বলত। স্বামীর সন্দেহ, অন্য কোনও পুরুষের সঙ্গে তার অবৈধ সম্পর্ক রয়েছে। এ নিয়ে পরিবারে অশান্তি কম হয়নি। দীর্ঘদিন ধরে এই নিয়ে বচসা, গণ্ডগোল, একাধিকবার সালিশি সভা-অনেক কিছুই হয়েছে। কিন্তু ওই গৃহবধূ বরাবরই তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ অস্বীকার করে গেছেন। 

অবশেষে শনিবার রাতে ঘটে গেল মর্মান্তিক ঘটনা। গৃহবধূকে উদ্ধার করা হল মৃত অবস্থায়। কীভাবে মৃত্যু, তা পরিষ্কার নয়। তবে মৃতার মায়ের অভিযোগ, তাঁর মেয়েকে মুখে বালিশ চাপা দিয়ে শ্বাসরোধ করে খুন করা হয়েছে এবং এই কাজ করেছে তাঁর জামাই। মৃতার ভাই-ও একই অভিযোগ তুলে দিদির স্বামীর কঠিন শাস্তির দাবি তুলেছেন। 

ঘটনাটি ঘটেছে বসিরহাট মহকুমার হিঙ্গলগঞ্জ থানার সাহেবখালি গ্রাম পঞ্চায়েতের রমাপুর এলাকায়। মৃতার নাম রূপা মন্ডল, বয়স ২৮ বছর। স্বামী গুণসিন্ধু মন্ডল। তাঁদের একটি পুত্র সন্তানও আছে। 

মৃতার মায়ের অভিযোগ, মৃত্যুর পর তাঁদের কোনওরকম খবরই দেওয়া হয়নি। একটা ফোন করেও খবর দেওয়ার প্রয়োজন মনে করেনি কেউ। তাঁর ছেলে পাড়ায় ঘুরতে ঘুরতে খবর পায়, দিদি আর বেঁচে নেই। এরপর খবর নিয়ে তাঁরা জানতে পারেন গোটা বিষয়টি। 

তবে এবিষয়ে মৃতার ভাসুর জানান, শিশুটি ঘরের বাইরে ছিল। কিন্তু প্রথমে তিনি রূপাকে দেখতে পাননি। ভেবেছিলেন, আশপাশে কোথাও গেছে হয়তো। কিন্তু পরে আশপাশে খোঁজ নিয়েও জানতে পারেন, সে কোথাও যায়নি। তখনই খোঁজাখুঁজি শুরু হয়। দেখা যায়, ঘরটি ভিতর থেকে বন্ধ। শ্বশুরবাড়ির লোকজনের অভিযোগ, সে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। খবর পেয়ে পুলিস আসে। মৃতদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বসিরহাট জেলা হাসপাতালে পাঠানো হয়। মৃত বধূর স্বামী গুণসিন্ধুকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করছে হিঙ্গলগঞ্জ থানার পুলিস।

এখন প্রশ্ন হল, এটি খুন, নাকি আত্মহত্যা? আর যদি খুনই হয়ে থাকে, তাহলে শুধুমাত্র ফোন করার সন্দেহে, নাকি এর পিছনে অন্য কোনও ঘটনা রয়েছে? এই সমস্ত বিষয়েই তদন্ত শুরু করেছে হিঙ্গলগঞ্জ থানার পুলিস। 




All rights reserved © 2021 Calcutta News   Home | About | Career | Contact Us