free-ration-centre-extend-bengal-happy
Ration: বিনামূল্যে রেশন মার্চ পর্যন্ত বাড়িয়ে দিল কেন্দ্র


Post By : সিএন ওয়েবডেস্ক
Posted on :2021-11-25 15:32:48

করোনাকালে লকডাউনের ফলে কর্মহীন হয়ে পড়েন অনেক মানুষ। ছোট ব্যবসায়ীরা, যাঁদের রুটি-রুজি নির্ভর করত দোকানের ওপর, দীর্ঘদিন বন্ধ থাকার দরুণ সংকটের মুখে পড়েন অনেকে। তখনই রাজ্য সরকারের পাশাপাশি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী গরিব কল্যাণ যোজনায় চালু করেন বিনামূল্যে রেশন। যার মেয়াদ ছিল আগামী ৩০ শে নভেম্বর পর্যন্ত। 

বিনামূল্যে রেশনের মেয়াদ বৃদ্ধির জন্য প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে চিঠি লিখেছিলেন তৃণমূল সাংসদ সৌগত রায়। আর এই বিষয়ে বুধবার কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার বৈঠকে বড় সিদ্ধান্ত নিল মোদি সরকার। জানানো হয়, ২০২২ এর মার্চ মাস পর্যন্ত বাড়ানো হল প্রধানমন্ত্রীর গরিব কল্যাণ যোজনার মেয়াদ। এই সিদ্ধান্তে কার্যত খুশি আপামর জনগণ। 

যাদপপুরের এক রেশন দোকানের মালিক জানিয়েছেন, যদি চারমাস সত্যি বাড়িয়ে থাকে, তাহলে তো খুবই ভালো। যাঁদের কেন্দ্রীয় সরকারের কার্ড রয়েছে, তাঁরা রেশন পাবেন।

রেশন নিতে এসে এক গ্রাহক জানালেন, অনেকদিন ধরেই তাঁরা শুনছিলেন, বাড়ানো হবে রেশনের মেয়াদ। কয়েকদিন আগে খবরের কাগজেও দেখেছেন। দেশের সর্বস্তর থেকে প্রতিবাদ জানানো হয়েছিল, যাতে রেশন পরিষেবা আগামী বছর অবধি বাড়ানো হয়। আর সাধারণ মানুষ ভোট, ইলেকশন এসব বোঝে না। তারা স্বার্থ বোঝে। কেন্দ্রীয় সরকার মার্চ অবধি  বাড়িয়ে দিয়েছে, এই সিধান্তকে তিনি স্বাগত জানান।

প্রসঙ্গত, কেন্দ্রের খাদ্য ও গণবন্টন বিভাগ জানিয়েছে, পঞ্চম ধাপে খাদ্যশস্যের জন্য কেন্দ্র সরকার আনুমানিক ৫৩৩৮৮.৫২ কোটি টাকা ভর্তুকি বরাদ্দ করেছে। পঞ্চম ধাপে খাদ্যশস্যের মোট পরিমাণ দাঁড়াবে  প্রায় ১৬৩ লক্ষ মেট্রিক টন।

কেন্দ্রীয় সরকারের এই মেয়াদ বৃদ্ধির ফলে স্বভাবতই খুশি রেশন গ্রাহকরা। সাধারণ মানুষের জন্য যে কোনও প্রকল্পই, তা ভোটমুখী হোক কিংবা না হোক, আখেরে সাধারণ মানুষের লাভ। এমনটাই মনে করেন প্রত্যেকে। বিনামূল্যে রেশন দেওয়ার প্রকল্প কোভিডকালে যেভাবে সাধারণ মানুষের উপকারে এসেছে, আগামী দিনেও তা সুবিধা দেবে বলে মনে করছেন নাগরিকরা।




All rights reserved © 2021 Calcutta News   Home | About | Career | Contact Us