শিরোনাম
football-match-kakdwip-sunderban-bengal
Football ফুটবলে মাতোয়ারা সুন্দরবনের কাকদ্বীপ


Post By : সিএন ওয়েবডেস্ক
Posted on :2021-11-22 16:24:05

মাছেভাতে বাঙালির প্রিয় খেলা মানেই ফুটবল। সেই ফুটবল আজও মনপ্রাণ দিয়ে খেলেন দক্ষিণ সুন্দরবনের কাকদ্বীপ ব্লকের দক্ষিণ রামগোপালপুরের বাসিন্দারা।

এই এলাকার খেলোয়াড়দের মনোভাব বাড়াতে ফুটবল প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয় প্রতি বছরই। এবছরও তার ব্যতিক্রম হয়নি। কিন্তু ক্ষোভ-আক্ষেপ সবটাই জড়িয়ে আছে খেলার কোনও মাঠ না থাকার কারণে। নির্দিষ্ট খেলার মাঠ না থাকায় রামগোপালপুর হরেন্দ্রনগর রামচন্দ্র বিদ্যায়তন মাঠে দুদিন ব্যাপী ম্যাচের আয়োজন করা হয়। প্রায় তিন বছর গ্রামবাসীদের তত্ত্বাবধানে কিছু খেলাপ্রিয় মানুষের জন্য খুদেদের নিয়ে ফুটবল ক্যাম্প চলে। তাদের মনোবল বাড়াতে আর ফুটবলের অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখতে প্রতি বছর ফুটবল খেলার আয়োজন করা হয়।

পাঁচ-ছয় হাজার মানুষের চাষাবাদ নির্ভর মূল জীবিকা। অর্থ সংকট দেখা গেলেও প্রতি বছর দুদিন ব্যাপী খেলায় উৎসাহে কোনও ঘাটতি লক্ষ্য করা যায়নি গ্রামের প্রবীণ থেকে নবীনদের মধ্য। দক্ষিণ সুন্দরবনের পাশাপাশি কলকাতার বেশ কিছু টিম আসে এখানে খেলতে। প্রথম পুরস্কার পঁচিশ হাজার এক টাকা, সঙ্গে তিনফুট ট্রফি। পাশাপাশি দ্বিতীয় পুরস্কার কুড়ি হাজার এক টাকা, সাথে আড়াই ফুট ট্রফি। এছাড়াও ম্যান অফ দি ম্যাচ, সেরা গোলদাতা, সেরা গোলকিপার পুরস্কার তো থাকেই। শুধু পুরুষ নয়, প্রদর্শনী ম্যাচ হিসাবে থাকে মহিলা ফুটবল। টানটান উত্তেজনার পর প্রথম পুরস্কার ঝুলিতে ঢোকায় কাকদ্বীপ পূর্বাশা চাম্পিয়ন। খেলার উদ্বোধনে আসেন প্রাক্তন ইন্ডিয়া টিমের ক্যাপ্টেন প্রশান্ত বন্দোপাধ্যায়। যিনি মোহনবাগানের হয়ে দীর্ঘদিন খেলেছেন।

তাঁর দাবি, সরকার যদি দক্ষিণ ২৪ পরগনার দিকে নজর রাখে, তাহলে সুন্দরবনও হার মানাবে কলকাতাকে। ফুটবলকে টিকিয়ে রাখতে অবশ্যই নজর দেওয়া উচিত। তবেই ভবিষ্যৎ আরও ভালো হবে খেলোয়াড়দের। সরকারের কাছে তাঁর অনুরোধ, আরও ভালোভাবে যেন সেখানকার খেলোয়াড়দের প্রতি নজর দেওয়া হয়। সরকারি সুযোগসুবিধা যেন এঁরা আরও ভালো করে পান।

সব মিলিয়ে দুদিন ব্যাপী ম্যাচে দর্শকদের উন্মাদনা ছিল চোখে পড়ার মতো। পাশাপাশি গ্রামের প্রবীণ-নবীনরা একত্রিত হয়ে উৎসবমুখর হয়ে উঠেছিলেন কাকদ্বীপের দক্ষিণ রামগোপালপুর গ্রামে।




All rights reserved © 2021 Calcutta News   Home | About | Career | Contact Us