শিরোনাম
manipur-terrorist-attack
Manipur update: কর্নেলের স্ত্রী-পুত্রের কথা নাকি জঙ্গিরা জানতই না


Post By : সিএন ওয়েবডেস্ক
Posted on :2021-11-14 12:50:22

ভয়ংকর এবং একইসঙ্গে মর্মান্তিক জঙ্গিহানার ঘটনাটি ঘটেছিল শনিবার সন্ধ্যায়। দিনভর জল্পনা চলার পর রাতেই তার অবসান ঘটল। পিপলস লিবারেশন আর্মি (পিএলএ) এবং মণিপুর নাগা পিপলস ফ্রন্ট (এমএনপিএফ)। মণিপুরে অসম রাইফেলস-এর কনভয়ে হামলার দায় যৌথভাবে স্বীকার করে নিল এই দুটি সংগঠন। প্রাথমিক তদন্তে জানা যাচ্ছে, তাদের এই হামলার ছক কষা হয়েছিল অত্যন্ত সুচারুভাবে এবং পরিকল্পনামাফিক। হামলাকারী দলে ছিল অত্যাধুনিক অস্ত্রে সজ্জিত অন্তত ১৫ জন। কনভয়ে প্রথম তারা পরপর তিনটি আইইডি বিস্ফোরণ ঘটায়। তারপর দুদিক থেকে ঘিরে ধরে পরপর গুলিবর্ষণ চলে। তারা পরিষ্কার জানিয়ে দিয়েছে, নিজেদের দাবি আদায়ে তারা চুপ করে বসে থাকবে না। তাদের দমানোর জন্য যে চেষ্টা, তার বিরুদ্ধেই তাদের এই হুংকার। 

তবে তারা দায় স্বীকার করার পাশাপাশি আরও যা জানিয়েছে, তাতে অনেকেই বিস্মিত। বিবৃতি অনুযায়ী, তারা নাকি জানতই না, কনভয়ের গাড়িতে ওই কমান্ডিং অফিসার ছাড়াও ছিল তাঁর স্ত্রী এবং পুত্র। 

উত্তর-পূর্বের বিভিন্ন রাজ্যের মতো মণিপুরও জঙ্গিদের ঘাঁটি হয়ে উঠেছে। একাধিক সংগঠন নিজেদের দাবি আদায়ে সক্রিয় ময়দানে। চিন, মায়ানমার, বাংলাদেশ, ভূটান সীমান্তে তাই বরাবরই কড়া নজর থাকে নিরাপত্তা বাহিনীর। ২০১৫ সালে জঙ্গিহানায় প্রাণ গিয়েছিল ২০ জন সেনার। যারপরই সার্জিক্যাল স্ট্রাইকে যায় সেনাবাহিনী। ২০১৮ সালেও চন্ডাল জেলায় হামলায় মৃত্যু হয়েছিল ১৮ জনের। তবে এবার যে জায়গায় হামলার ঘটনা ঘটেছে, তা খুবই প্রত্যন্ত গ্রাম।

উল্লেখ্য, ৪৬ অসম রাইফেলস-এর কম্যান্ডিং অফিসার কর্নেল বিপ্লব ত্রিপাঠি সহ জওয়ানরা যখন হেড কোয়ার্টার্সে ফিরছিলেন, তখনই এই হামলা চালানো হয়।

এদিকে এই ঘটনার পরই ট্যুইট করে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলেন, সেনাদের এই আত্মত্যাগ কখনই ভোলা যাবে না। এই ধরনের ঘটনার তিনি কড়া ভাষায় নিন্দাও করেন। প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং অবিলম্বে এই ঘটনার সঙ্গে যুক্তদের খুঁজে বের করে উপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন।





All rights reserved © 2021 Calcutta News   Home | About | Career | Contact Us