শিরোনাম
no-khaini-amzad-khan-sholey
খৈনি খেতেন না আমজাদ খান


Post By : সিএন ওয়েবডেস্ক
Posted on :2021-10-31 19:12:30

শোলের বিখ্যাত দৃশ্য ডাকু গব্বর সিংয়ের খৈনি খাওয়া | কিন্তু খৈনি কেন, সিগারেট ছাড়া অন্য কোনও নেশাই ছিল না আমজাদ খানের | ১৯৪০ এ মুম্বইতে আমজাদের জন্ম এক সিনেমা জগতের আবহাওয়ায় | আমজাদের পিতা প্রয়াত জয়ন্ত ছিলেন বিখ্যাত চরিত্রাভিনেতা | এঁরা মূলত পাকিস্তানের পেশোয়ারের মানুষ। কিন্তু দেশ বিভাগের অনেক আগেই খান পরিবার ও দেশ থেকে এপারে চলে আসে | আমজাদের পড়াশুনাও মুম্বইয়ের মিশনারি স্কুলে | পরে কলেজ শিক্ষাও মুম্বইতে | তিনি কলেজে ছাত্র নেতা হয়েছিলেন | বামপন্থী মনের মানুষ ছিলেন আমজাদ | কলেজ শিক্ষা শেষে তিনি যোগ দেন নাটকে |

আমজাদের অতি প্রিয় ছিল মঞ্চে অভিনয় | যদিও অনেকে মনে করেন, আমজাদের প্রথম ছবি শোলে, কিন্তু সে কথা সত্যি নয় | ১৯৫০ থেকেই আমজাদ হিন্দি ছবিতে ছোটখাট চরিত্রে অভিনয় করতেন | তবে শোলে তাঁর যুবা বয়সের প্রথম ছবি, তাও প্রথমে সুযোগ পাননি | প্রথমে অভিনয় করার কথা ছিল ড্যানির। কিন্তু তিনি সময় দিতে না পারায় আমজাদের সুযোগ আসে | প্রথম ছবিতেই কামাল করেন তিনি | জীবনে বহু ছবি করেন। তিনি সিরিয়াস চরিত্র বা কমেডিয়ানের চরিত্রেও অভিনয় করেছিলেন আমজাদ |

শোলে ছবিতে তাঁর অভিনয় দেখে বিশ্বখ্যাত সত্যজিৎ রায় পর্যন্ত তাঁর প্রথম হিন্দি ছবি 'শতরঞ্জ কে খিলাড়িতে " লখনউয়ের সুলতানের চরিত্রে সুযোগ দেন | সত্যজিৎ বলেছিলেন, তিনি অভিনয়ের জন্য আমজাদকে অনুরোধ করায় সাথে সাথেই রাজি হয়ে যান আমজাদ। এবং পারিশ্রমিকের কথা বলতেই আমজাদ বিনয়ের সঙ্গে জানান, কিছু না দিলেও চলবে | আমজাদ এরপর চুটিয়ে অভিনয় করতে শুরু করেন |কিন্তু একটি দুর্ঘটনায় তাঁর প্রবল আঘাত আসে | সুস্থ হয়ে ফেরার পর আরেক বিপত্তি |

আমজাদের থাইরয়েড ছিল। কিন্তু দুর্ঘটনার পর ওষুধের পার্শ্ব প্রতিক্রিয়ায় তিনি স্থূলকায় হতে শুরু করেন | শেষ পর্যন্ত এক সময় হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে ৫১ বছরের অসাধারণ জীবনে ইতি পড়ে | তিনি একবার মজা করে বলেছিলেন, তিনি কস্মিনকালেও  খৈনি খাননি। কিন্তু তাঁর চরিত্র দেখে ভারতের নানান প্রান্তে খৈনির নেশা শুরু হয়ে যায় | তিনি ওই নেশা থেকে যুব মহলকে দূরে থাকতে অনুরোধ করেন | কিন্তু দৃশ্যটি যে রয়েই গিয়েছে |





All rights reserved © 2021 Calcutta News   Home | About | Career | Contact Us