ফেসবুককে হারিয়ে দিচ্ছে ইউটিউব

0
24

ইউটিউবের জনপ্রিয়তা বাড়ছে। আমেরিকার বাজারে ফেসবুককে টপকে যেতে পারে গুগলের ভিডিও প্ল্যাটফর্ম ইউটিউব। সিমিলার ওয়েব সংস্থার গবেষকেরা বলছেন, দুই বছর ধরেই আমেরিকায় ফেসবুক ব্যবহারকারী কমছে। অন্যদিকে, ইউটিউব ব্যবহারকারী বাড়ছে। জনপ্রিয় ও বৃহত্তম ওয়েবসাইট হিসেবে দ্বিতীয় স্থান ধরে রাখতে লড়াই করতে হচ্ছে ফেসবুককে।
আমেরিকার শীর্ষ পাঁচ ওয়েবসাইটের মধ্যে রয়েছে গুগল, ফেসবুক, ইউটিউব, ইয়াহু ও আমাজন। মাসিক পেজভিউ হিসাব করলে গত দুই বছরে ফেসবুকের পেজভিউ ৮৫০ কোটি থেকে ৪৭০ কোটিতে নেমে এসেছে। ফেসবুকের অ্যাপ ব্যবহারকারী বাড়লেও মাসিক পেজভিউ কমার হারের তুলনায় তা সামান্য। গত মাসে ফেসবুক জানিয়েছিল, উত্তর আমেরিকার বাজারে তাদের সক্রিয় ব্যবহারকারীর সংখ্যা বাড়েনি। ইউরোপেও ব্যবহারকারী কমেছে। এ তথ্য প্রকাশ্যে আসার পর ফেসবুকের শেয়ারের দাম ব্যাপক কমে যায়। সিমিলারওয়েবের গবেষক স্টিফেন ক্রাউস বলেন, ফেসবুকের ব্যবহারকারী কমলেও হোয়াটসঅ্যাপ বা ইনস্টাগ্রামের মতো সম্পদ ফেসবুকের হাতে আছে। এখন তারা নিজেদের শুধু ফেসবুক হিসেবে নয়, বিভিন্ন পণ্যের পোর্টফোলিও হিসেবেই দেখে। ইউটিউব ব্যবহারকারী বেড়েছে ওয়েবে। এর অ্যাপ ব্যবহারকারীও বেড়েছে।
শীর্ষ পাঁচের তালিকায় থাকা ইয়াহুর অবস্থানও নড়বড়ে হয়ে গেছে। ব্যবহারকারীদের হিসেবে ইউটিউব, ফেসবুক, ইয়াহু বা আমাজন কেউই গুগলের ধারেকাছে নেই। গত জুলাই মাসে গুগলের পেজভিউ ১ হাজার ৫০০ কোটি ছাড়িয়ে যায়। গুগল অ্যাপ ও ভয়েস সার্চের কারণে এর পেজভিউ কিছুটা কমতে দেখা গেছে। গুগলের যেখানে ১ হাজার ৫০০ কোটির ওপর পেজভিউ, সেখানে অন্যদের পেজভিউ ৫০০ কোটির কম।