দলে গোষ্ঠীবাজি চলবে না, উত্তরে হুঁশিয়ারি মমতার

0
429

লোকসভার ভোটে উত্তরবঙ্গে ভরাডুবির পর অনেক সতর্ক মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সোমবার কোচবিহারে তৃণমূলের কর্মিসভায় তিনি বলেন, এখন দলের সবাই একসঙ্গে কাজ করছেন। ৬ মাস আগে করলে বিজেপি এই সিট পেত না। আগামী দিনে একসঙ্গে কাজ করতে হবে। তৃণমূলে একটাই গোষ্ঠী। তফশিলিদের সঙ্গে নিতে হবে। উত্তরবঙ্গ উন্নয়নমন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ ঘোষকে ফের আক্রমণ করে মমতা বলেন, রবি ঘোষ, তুমি ঝগড়া করবে আর পার্টি বিষ গিলবে, এটা হবে না। পার্টি কারও জন্য বিষ গিলবে না। এখন থেকে সরকারি বৈঠকের সঙ্গে এবার দলের বৈঠকও করবেন বলে জানান তিনি। তাঁর কথা, ২০২১ সালে ক্ষমতায় আসবে তৃণমূলই। দলের কেউ টাকা খেয়ে বেইমানি করলে তাদের বের করে দিন। বিজেপিকে নাম না করে তীব্র আক্রমণ করে তিনি বলেন, দুর্ভাগ্যের ব্যাপার, অর্থবল, পেশিবলের কাছে মাথা বিক্রি করে দিয়েছে। রাতের অন্ধকারে কেন্দ্রীয় বাহিনীকে দিয়ে অপারেশন করিয়েছে। খারাপ লাগে যখন কেউ মিথ্যে কথা বলে। এনআরসি করে ওদের অধিকার দেবে না। কিন্তু ভোটের সময় টাকা ছড়াবে। ওরা জাতিভেদ তৈরি করছে। উদ্বাস্তু নিয়ে আমি আন্দোলন করেছি। অন্য কেউ বলেনি। ওরা নাগরিক সংশোধনী বিল আনছে। ওটা একটা খুড়োর কল। ওটা হলে ৬ বছরের জন্য বিদেশি বানিয়ে দেবে। মনে রাখবেন, আপনারা সবাই এখানকার নাগরিক। বাংলার মানুষ এর জবাব দেবে। নির্বাচনের সময় ৬টা চাবাগান খোলার কথা বলেছিল। একটাও কোলেনি। উল্টে এয়ার ইন্ডিয়া, বিএসএনএল বেচে দিচ্ছে। সিপিএম, কংগ্রেস, বিজেপি সব একসঙ্গে কাজ করছে। এদের বিদায় দিতে হবে। এদিন এই কর্মিসভার পর মুখ্যমন্ত্রী মদনমোহন মন্দিরে পুজো দেন।