নজরে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফলাফল

0
7

চ্যাম্পিয়ন্স লিগে এই মরসুমে পর্দা উঠল মাত্র। প্রথম দিনের আটটি ম্যাচেই হয়ে গেল ২৮টি গোল। চলুন দেখে নেওয়া যাক চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফলাফল।
ইউয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের গ্রুপ ডি-র ম্যাচে মেসি ম্যাজিকে জুভেন্তাসকে ৩-০ গোলে হারিয়ে মধুর প্রতিশোধ নিল বার্সেলোনা। এই প্রথম জিয়ানলুইজি বুঁফোর বিরুদ্ধে গোল পেলেন এলএমটেন। ন্যুক্যাম্পের মাঠে মেসির জোড়া গোল এবং রকিতিচের গোলে দুরন্ত জয় তুলে নিল বার্সা।
অন্যদিকে গ্রুপ বি-র ম্যাচে স্কটল্যান্ডের সেল্টিককে উড়িয়ে দিয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সূচনাটা দুর্দান্ত করল প্যারিস সেন্ট জার্মেইনও। এডিনসন কাভানির জোড়া গোল সাথে নেইমার চমকে বিপক্ষকে ৫-০ গোলে উড়িয়ে দিল পিএসজি। পাশাপাশি ১৯ বছর বয়সে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে ভিন্ন দুটি ক্লাবের হয়ে গোল করে নতুন রেকর্ড গড়লেন কিলিয়ন এমবাপ্পে।
গ্রুপ-বির অন্যম্যাচে আন্ডারলেচকে ৩-০ ব্যাবধানে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শুরুটা বেশ ভালোই করল কার্লো আনসেলোত্তির বায়ার্ন মিউনিখ। ঘরের মাঠ অ্যালিয়েঞ্জ এরিনায় প্রথমার্ধে লেওয়ানডৌস্কির গোলে এগিয়ে যায় বায়র্ন। দ্বিতীয়ার্ধে থিয়েগো আলকানতরা এবং কিমিচের গোলে দুরন্ত জয় তুলে নেয় জার্মান জায়েন্টরা।
ইউয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগে ফিরে এসে চেলসি তাদের যাত্রায়া শুরু করল বড় ব্যবধানে জয় দিয়ে। গ্রুপ সি-এর ম্যাচে কোয়ারাবাগকে ৬-০ গোলব্যাবধানে হারিয়ে দুরন্ত কামব্যাক করল অ্যান্তোনিও কোন্তের ছেলেরা। শুরুতেই পেড্রোর গোলে এগিয়ে যায় চেলসি। দলের নতুন দুই মুখ দাভিদে জাপ্পাকোস্টা এবং তিয়ামৌ বাকায়োকো পেলেন গোল। বাকি গোলগুলি করলেন আজপিলিকুয়েতা, বাতসুয়াই। শেষ মুহুর্তে মেডভেদেভের আত্মঘাতী গোলে জয় পায় ইংলিশ ক্লাবটি।
ওল্ডট্রাফোর্ডের মাঠে ঘরের দর্শকদের সামনে দুর্দান্ত জয় তুলে নিল ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাটেডও। চ্যাম্পিয়্নস লিগের গ্রুপ এ-র ম্যাচে বাসেলকে ৩-০ ব্যাবধানে পর্যুদস্ত করল হোসে মোরিনহোর রেডডেভিলসরা। শুরুতেই ফেলাইনির গোলে এগিয়ে যায় ম্যান ইউ। দ্বিতীয়ার্ধে লুকাকুর গোলে ২-০ এগিয়ে যায় রেডডেভিলসরা। এই নিয়ে ৬টি গোল করে ফেললেন এই ম্যানইউ তারকা। এর পর রাশফোর্ডের গোলে বাসেলের বিরুদ্ধে ম্যাচ জিতে নেই মোরিনহোর দল।
গ্রুপ সির অন্যম্যাচে রোমার বিরুদ্ধে আটকে গেল অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ। দুরন্ত শুরু করেও ম্যাচ থেকে পুরো পয়েন্ট ছিনিয়ে নিতে ব্যার্থ হল দিয়েগো সিমিওয়েনর ছেলেরা। অন্যদিকে ঘরের মাঠে ড্র করে প্রশংসা কুড়িয়ে নিলেন রোমা কোট ইউসোবিও দে ফ্রানসিসকোর দল।
চ্যাম্পিয়ন্স লিগে এই মরসুমে পর্দা উঠল মাত্র। প্রথম দিনের আটটি ম্যাচেই হয়ে গেল ২৮টি গোল।