নৃশংস খুন একই পরিবারের তিনজন

0
3631

একই পরিবারের তিনজন খুন হলেন মুর্শিদাবাদের জিয়াগঞ্জে। নৃশংসভাবে খুন করা হয়েছে স্বামী, স্ত্রী ও তাঁদের শিশুসন্তানকে। পাশাপাশি গর্ভবতীও ছিলেন ওই মহিলা। খুনের কারণ নিয়ে ধোঁয়াশা থাকলেও পারিবারিক বিবাদেই এই পরিণতি বলে সন্দেহ করছে স্থানীয় বাসিন্দারা। পেশায় শিক্ষক বন্ধুপ্রকাশ পাল স্ত্রী ও শিশুপুত্রকে নিয়ে ভাড়া থাকতেন জিয়াগঞ্জের লেবুবাগান গ্রামের এক বাড়িতে। সেই বাড়িতেই নৃশংসভাবে খুন করা হয়েছে তিনজনকেই। দশমীর দিন সকালেও তাঁদের দেখা যায় বলে দাবি এলাকাবাসীর। ওই ভাড়াবাড়ির এক ঘরে পড়ে ছিল বন্ধুপ্রকাশ ও তাঁর ছেলের নিথর দেহ। অন্য ঘরে স্ত্রী বিউটির দেহ। বন্ধুপ্রকাশ ও তাঁর সন্তানসম্ভবা স্ত্রীকে নৃশংসভাবে গলায় কোপ মেরে খুন করা হয়। তাঁদের ছেলেকে গলায় গামছা পেচিয়ে শ্বাসরোধ করে খুন করা হয়েছে। দুটি ঘর জুড়েই পড়ে ছিল চাপ চাপ রক্ত। গোটা পরিস্থিতি খতিয়ে দেখে পুলিসের মধ্যেও ধোঁয়াশা তৈরি হয়েছে। তবে পুলিশের অনুমান খুনী পরিচিত কেউ ছিলেন। গোটা ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়েছে এলাকাজুড়ে। খুন হওয়া শিক্ষক বন্ধুপ্রকাশবাবুর বৃদ্ধা মা মায়া পালের কথাতে স্পষ্ট, পারিবারিক বিবাদ ও সম্পত্তিগত লোভের পরিণতিতেই এই খুন। তাঁর অভিযোগের তির, নিজের স্বামী ও তাঁর দ্বিতীয় পক্ষের স্ত্রী-সন্তানদের দিকেই। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে জিয়াগঞ্জ থানার পুলিশ।