বাসভাড়া বৃদ্ধির দাবি মালিকদের

0
55

জ্বালানির ‘রেকর্ড’ দাম বৃদ্ধিতে বাসের ভাড়াবৃদ্ধির দাবি তুললেন বেসরকারি পরিবহণের মালিকরা। এ নিয়ে পরিবহণ ভবন অভিযানেরও ডাক দিয়েছে সংগঠনগুলি। মালিক সংগঠনের বক্তব্য, যেই হারে তেলের দাম বেড়েছে তাতে বাসের ভাড়া বাড়ানো ছাড়া উপায় নেই। পরিষেবার মান বাড়াতে গেলে ভাড়াও বাড়াতে হবে। একই সুর শোনা গেছে ট্রাক মালিক সংগঠনগুলির মুখেও। স্বাভাবিকভাবেই তেলের দাম বাড়ায় নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের দামবৃদ্ধির সম্ভবনা তৈরি হয়েছে। প্রসঙ্গত, এই ইস্যুতে বৈঠকেও বসেছিল মালিকদের একাধিক সংগঠন। সেই বৈঠকে পরিবহণ ভবন অভিযানের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। জয়েন্ট কাউন্সিল অব বাস সিন্ডিকেটের সাধারণ সম্পাদক তপন বন্দ্যোপাধ্যায় এবং মিনিবাস অপারেটর্স কো-অর্ডিনেশন কমিটির যুগ্ম সম্পাদক প্রদীপনারায়ণ বোসরা জানিয়েছিলেন, ২০১৪ সালে শেষবার বাসের ভাড়া বেড়েছিল। সেই ভাড়ায় এখন আর বাস চালানো যাচ্ছে না। জ্বালানির সঙ্গে অন্যান্য খরচও বেড়েছে। সরকারকে বিষয়টি বিবেচনা করতে হবে। ২৫ মে’র মধ্যে ভাড়া নিয়ে সিদ্ধান্ত না হলে ২৮ মে পরিবহণ ভবন অভিযান হবে। পরিবহণ ভবনের সামনে ধর্নায় বসবেন মালিকরা। ফেডারেশন অব ওয়েস্ট বেঙ্গল ট্রাক অপারেটর্স অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক সুভাষচন্দ্র বোস বলেন, ‘জ্বালানির দাম বাড়ায় নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের পরিবহণ খরচ বাড়বে। তাই সবার স্বার্থে আমরা জ্বালানির মূল্যবৃদ্ধির তীব্র প্রতিবাদ করছি।’ এমনকি ডিজেলকেও সরাসরি জিএসটির অধীনে আনার দাবিও জানিয়েছে ট্রাক মালিক সংগঠন।