স্কুলের সেপটিক ট্যাঙ্কে ছাত্রের পচাগলা দেহ

0
897

বাড়ির পাশেই একটি স্কুলের সেপটিক ট্যাঙ্ক থেকে দ্বাদশ শ্রেনীর ছাত্রের পচাগলা দেহ উদ্ধার হল। মঙ্গলবার পূর্ব মেদিনীপুরের খেজুরির ওয়াশিলচকে এই ঘটনার ব্যাপক চাঞ্চল্য ছাড়িয়েছে এলাকায়। খেজুরি ওয়াশিলচকের অমৃত ভারতী স্কুল থেকে পচা গন্ধ বের হতে স্কুল কর্তৃপক্ষ পুলিসে খবর দেয়। এরপর পুলিস এসে স্কুলের সেপটিক ট্যাঙ্ক খুলতেই বিশ্বজিৎ পাত্রের পচাগলা দেহ উদ্ধার হয়। জানা গেছে কয়েক আগে দ্বাদশ শ্রেনীর ছাত্র বিশ্বজিৎ পাত্র নিখোঁজ হয়ে যায়। কিন্তু স্কুলের পাশ থেকেই তাঁর সাইকেল পাওয়া গিয়েছিল। এরপর মৃত বিশ্বজিৎয়ের বাবা শঙ্কর পাত্র তালপাটি উপকুল থানার ছেলের নিখোঁজ ডায়রি দায়ের করেন। এরপর সোমবার তালপাটি উপকুল থানার পুলিশ বাড়ির পাশের স্কুল থেকেই তাঁর মৃতদেহ উদ্ধার করে। ঘটনার পর স্থানীয় বাসিন্দারা বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন। এলাকাতে চাপা উত্তেজনা রয়েছে। পরিবারের দাবি, বিশ্বজিৎ পড়াশোনা করে দক্ষিন খেজুরি বাণীমঞ্চ হাই স্কুলে। তাঁর পরিবারের দাবি খুন করা হয়েছে বিশ্বজিৎকে। পুলিস সূত্রে জানা গিয়েছে, স্থানীয় কয়েকজন যুবকের সঙ্গে টাকা পয়সা লেনদেন নিয়ে একটা চাপান উতর চলছিল মৃত ছাত্রের সঙ্গে। তদন্ত শুরু করেছে পুলিস।