কেন্দ্র-রাজ্য নয়া সংঘাত সার্কিট বেঞ্চ

0
213

জলপাইগুড়িতে উদ্বোধন হল বহু প্রতীক্ষিত সার্কিট বেঞ্চ। আর প্রথমদিন থেকেই শুরু হল রাজনৈতিক টানাপোড়েন। শুক্রবার, রাজ্য জলপাইগুড়িতে এসে ময়নাগুড়ির সভামঞ্চ থেকেই এই সার্কিট বেঞ্চের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। আর এই ঘটনার কয়েকঘণ্টার মধ্যেই বিষয়টি নৈতিকতা নিয়ে প্রশ্ন তুললেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ইকোপার্কে সাংবাদিক বৈঠকে তিনি অভিযোগ করেন, ‘জমি দিয়েছে রাজ্য। টাকাও ঢেলেছে। উনি রাজ্য সরকার, হাইকোর্টকে বাদ দিয়ে উদ্বোধন করে দিলেন।’ কটাক্ষ করে মমতা বলেন, ‘শূন্য কলসি বেশি বাজে। বর-কনে নেই, ব্যান্ডপার্টি এসেছে। উনি কে? গাঁয়ে মানে না আপনি মোঁড়ল।’ মুখ্যমন্ত্রী বলেন, সার্কিট বেঞ্চ কলকাতা হাইকোর্টের। অথচ উদ্বোধনী মঞ্চে হাইকোর্টের কোনও প্রতিনিধি ছিলেন না। উপস্থিত ছিলেন না রাজ্য সরকারের কেউ। ৩০০ কোটি টাকা খরচ হয়েছে। জমি, টাকা, পরিকাঠামো সবই রাজ্যের। ৪ মাস আগেই সার্কিট হাউস উদ্বোধনের তারিখ দেওয়া হয়েছিল। নোটিফিকেশন বাকি ছিল। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, যুগ্মভাবে উদ্বোধন করতে চেয়েছিলেন। কিন্তু মোদি সরকারের এক্সপায়ারি ডেট এগিয়ে আসায় তারা উদ্বোধন করে দিয়েছে। বিষয়টি নিয়ে সুপ্রিমকোর্টে চিঠি পাঠানো হচ্ছে বলে জানান তিনি। প্রধানমন্ত্রীকে এদিন মিথ্যেবাদী বলে কটাক্ষ করেন মমতা৷ তিনি বলেন, তৃণমূল আমলে নতুনভাবে সাজছে উত্তরবঙ্গ। আর সেটা দেখেই ‘ম্যাডি বাবু’রা ভয় পাচ্ছেন।
লোকসভা নির্বাচন যত এগিয়ে আসছে, ততই বাড়ছে কেন্দ্র-রাজ্য তরজা৷ সিবিআইয়ের তৎপরতা থেকে শুরু করে বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতাদের রাজ্যে সভা সব নিয়েই তুঙ্গে দু-তরফের দ্বৈরথ। এবার তাতে যোগ হল জলপাইগুড়ির সার্কিট বেঞ্চ।