বিদ্যুৎ ছাড়াই জীবন কাটাচ্ছেন উদ্ভিদ বিদ্যার অধ্যাপিকা

0
746

বয়স ৭৯ বছর। বোটানিতে পিএইচডি এবং কলেজের অবসরপ্রাপ্ত বোটানির অধ্যাপিকা। তিনি ডক্টর হেমা সানে। থাকেন পুনের বুধওয়ার পেঠের একটি ছোট্ট কুঁড়ে ঘরে। সামর্থ থাকলেও এই অধ্যাপিকা সারা জীবন বিদ্যুৎ সংযোগ ছাড়াই কাটিয়ে দিলেন। এই প্রখর গ্রীষ্মে যখন বিদ্যুতিক পাখা, কুলার বা এসি ছাড়া এক মুহূর্ত থাকতে পারছেন না আম জনতা, তখন এই বৃদ্ধা তালপাতার পাখায় রাত কাটাচ্ছেন করছেন অবলীলায়। কলেজে অধ্যাপনা করায় বর্তমানে ভালোই পেনশন পান। এছাড়া তাঁর লেখা বেশ কয়েকটি বই থেকেও পান রয়েলটির টাকা। তবুও বিদ্যুৎ সংযোগ নিতে চরম অনীহা হেমা দেবীর। তাঁর কথায়, ‘খাদ্য, আশ্রয় ও পোশাক আমাদের মৌলিক চাহিদা। কিন্তু একটা সময় ছিল যখন বিদ্যুৎ ছিল না, আমি বিদ্যুৎ ছাড়াই দিব্যি আছি’। যদিও এই কুঁড়ে ঘরে আশি ছুঁইছুঁই প্রাক্তন এই অধ্যাপিকা একা থাকেন না। তাঁর সঙ্গে একটি কুকুর, দুটি বিড়াল ও অনেকগুলি পাখি রয়েছে। এরাই আমার উত্তরাধিকার, মত হেমা সানের। তাই এই পোষ্য এবং গাছগাছালির মধ্যে একাত্ম হয়ে রয়েছেন উদ্ভিদ বিদ্যার এই শিক্ষিকা। জ্ঞানের আলোয়, বিদ্যুতের প্রয়োজন নেই তাঁর।