সাক্ষীর ছেলেকে অপহরণের চেষ্টা, নজরে আশারাম

0
51

আশারামের বিরুদ্ধে সাক্ষ্যদানকারীর ছেলেকে অপহরণের চেষ্টা। ভাগ্যক্রমে পালিয়ে বাঁচল সে। বুধবার উত্তরপ্রদেশের শাজাহানপুর জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে বিষয়টি জানানো হয়। পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, এই প্রধান সাক্ষীর নাম রামশঙ্কর বিশ্বকর্মা ও ছেলের নাম ধীরাজ বিশ্বকর্মা। আশারামের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ উঠলে, নির্জাতিতার হয়ে সাক্ষ্য দিতে এগিয়ে এসেছিলেন দু’জন। একজন কৃপাল সিং ও অন্যজন হলেন রামশঙ্কর। ২০১৫ সালের ১০ জুলাই কৃপাল সিংকে গুলি করে হত্যা করে বাপুর ভাড়াটে গুন্ডারা। সেই মামলারও প্রধান সাক্ষী রামশঙ্কর। জানা গিয়েছে, সোমবার বাড়ির সামনে অপরিচিত দুই লোককে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখে এগিয়ে যায় ধীরাজ। আচমকাই তারা রুমাল জাতীয় কিছু একটা চেপে ধরে তার মুখে। এরপরেই গাড়ি করে পালায় দুষ্কৃতীরা। মিরাটে গাড়ি থামিয়ে কিছু একটা কিনতে নামে তারা। যদিও তার কিছু সময় আগেই জ্ঞান ফিরেছিল ধীরাজের। তবুও ঘাপটি মেরে শুয়ে ছিল সে। গাড়ি থেকে দুষ্কৃতীরা নেমে গেলে, সেই সুযোগে পালায় সেও। তারপর মিরাট স্টেশন থেকে কয়েকজন রেলকর্মীর সহায়তায় সে বাড়ি ফিরে আসে। ঘটনার কথা জানতে পেরেই মঙ্গলবার থানায় এসে বিষয়টি পুলিশকে জানায় রামশঙ্কর। প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের অনুমান, ২৮ জুন আশারামের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে যাওয়ার কথা রামশঙ্করের। সেটা বানচাল করতেই এই অপহরণের পরিকল্পনা করা হতে পারে।