নাসিকা গর্জনঃ সহযাত্রীদের চাপে রাত কাটল জেগেই

0
31

তাঁর নাসিকা গর্জনের চোটে বাকিদের ঘুম ছুটে গিয়েছিল। আর তাই সহযাত্রীদের চাপের মুখে টানা পাঁচ থেকে ছয় ঘণ্টা জেগে বসে থাকতে হল এক ব্যক্তিকে। গত সপ্তাহে ঘটনাটি ঘটে এলটিটি-দ্বারভাঙা পবন এক্সপ্রেসে। ট্রেনের এসি কামরায় টিকিট কেটেছিলেন রামচন্দ্র। ভেবেছিলেন রাতে একটা জম্পেশ ঘুম দেবেন। কিন্তু তাঁর সুখনিদ্রা শুরু হতেই বাকিদের চরম দুর্ভোগ আরম্ভ হল। রামচন্দ্রের সহযাত্রীদের অভিযোগ, তিনি এত জোড়ে নাক ডাকছিলেন যে বাকিরা কিছুতেই দু-চোখের পাতা এক করতে পারছিলেন না। আর তাই সকলে মিলে তাঁকে জেগে বসে থাকতে বাধ্য করেন। সেই ফাঁকে কামরার অন্য যাত্রীরা নিজেদের ভাগের ঘুমটুকু ঘুমিয়ে নেন। এ নিয়ে দু-পক্ষের মধ্যে বাকবিতণ্ডাও চলে বেশ কিছুক্ষণ। ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন পশ্চিম কেন্দ্রীয় রেলপথের চিফ টিকিট ইন্সপেক্টর গণেশ এ বীরহাও। তবে এই ঘটনায় কারোর বিরুদ্ধে কোনো লিখিত অভিযোগ দায়ের হয়নি।