কোর্টের নির্দেশ উড়িয়ে রাতভর শব্দবাজি

0
28

সুপ্রিম কোটের নির্দেশের পরোয়া না করেই দেওয়ালির রাতে দেদার ফাটল শব্দবাজি। শীর্ষ আদালতের নির্দেশ ছিল, রাত ৮টা থেকে ১০ পর্যন্ত মাত্র দুঘণ্টা বাজি পোড়ানো যাবে। বাজি পুড়েছে সারারাত। উত্তর, দক্ষিণ, মধ্য কলকাতা থেকে বিধাননগর, হাওড়া, সর্বত্রই ছিল আওয়াজের দাপট। শহরে মোট ৯৩ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বিকেল ৪টে থেকে রাত ১১টা পর্যন্ত কলকাতার বিভিন্ন থানায় শব্দবাজি নিয়ে ৫০টি ও লাউড স্পিকার সংক্রান্ত ২টি অভিযোগ দায়ের হয়েছে। পাশাপাশি ছিল ফানুস ওড়ানো। দিওয়ালির রাতে দমদম বিমানবন্দর সংলগ্ন এলাকায় দেদার ওড়ে ফানুস। বেলঘরিয়া এক্সপ্রেসওয়ের ওপর দাঁড়িয়েও ফানুস ওড়ান বহু মানুষ। বাজি ফাটে রাতভর। বাজির দাপটের ছবিটা ভিন্ন নয় সল্টলেকেও। দিওয়ালির রাতে শব্দবাজির দাপটে অতিষ্ঠ সল্টলেকবাসী। বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালিয়ে বেশ কয়েকজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিস। ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়ালের দূষণ মাপার যন্ত্রের সূচক ছিল৩৪৬, রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ে ৩৫৪! হাওড়ায় সূচক ৩৮২-তে। শিলিগুড়ি এবং আসানসোলের বায়ুদূষণের সূচকও ছিল ২৮০ এবং ২০৩। এই সূচক ২০০ পেরোনোর অর্থ ‘খারাপ’।