মল্লরাজাদের রথ

0
128

রাজা নেই, নেই মল্লরাজাদের রাজ্যপাটও। কিন্তু আজও সমান জনপ্রিয় বাঁকুড়ার বিষ্ণুপুরে মল্লরাজাদের আমলে শুরু হওয়া রথযাত্রা। প্রাচীন ঐতিহ্য আর পরম্পরা মেনে রথযাত্রার সকালে শহরের মাধবগঞ্জে মদন গোপাল জিউর রথের রশিতে টান দিয়েছেন অসংখ্য পূণ্যার্থী। রথ নয়, উল্টোরথই এখানে বেশি জনপ্রিয়।
১৬৬৫ সাল, বিষ্ণুপুরের রাজ সিংহাসনে তখন মল্লরাজা বীরমল্ল। বৈষ্ণব ধর্মাবলম্বী এই রা পরিবার। রানি শিরোমনির ইচ্ছানুসারে মাধবগঞ্জে টেরাকোটার অপরূপ সাজে সজ্জিত সুবিশাল পাঁচটি চুড়া বিশিষ্ট মদনগোপাল জিউর মন্দির। তার কিছুদিন পরেই এই মন্দিরের আদলে পিতলের রথ তৈরি হয় বলে জানা গেছে।
এই রথের অন্যতম বৈশিষ্ট হলো এখানে কৃষ্ণ, বলরাম, সুভদ্রারা এই রথে সওয়ার হন না। এখানে রথের সওয়ারি হলেন মদনগোপাল জিউ। বর্তমানে এই রথ পরিচালনা করেন ১১ পাড়া রথযাত্রা কমিটি। এখনো রথের দিন সকালে মদন গোপাল জিউর মন্দিরে পুজো পাঠ করে মন্দিরে শালগ্রাম শিলাকে কীর্তন ও বিভিন্ন বাদ্যযন্ত্র সহযোগে রথে নিয়ে আসা হয়। সেখানে পূজো-পাঠ, আরতির পর প্রথমে ছোটো রথ এবং পরে বড় রথ টানা হয়।