তারাপীঠে মুখ থুবরে পড়েছে সৌরশক্তির রান্নাঘর, দূর্নীতির অভিযোগ

0
773

তারাপীঠে কাঠের উনানেই মায়ের ভোগ রান্না হয়ে আসছিল এতকাল। কিন্তু দূষণ কমাতে ও আধুনিক ব্যবস্থা প্রচলণ করতে তারাপীঠ রামপুরহাট উন্নয়ন পর্ষদ সৌরশক্তি চালিত রান্নাঘর চালু করেছে। গত কৌশিকি অমাবস্যার দিন সেই রান্নাঘরের উদ্বোধন করেন মন্ত্রী আশীষ বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু উদ্বোধনের পরেই মুখ থুবরে পড়েছে সেটি। অভিযোগ কর্মীদের উপযুক্ত প্রশিক্ষন না দিয়েই তরিঘরি কৌশিকি অমাবস্যায় উদ্বোধন করে দেওয়া হয়। যদিও সেই সময় মন্ত্রী বলেছিলেন যারা রান্না করবেন তাঁরা সকলেই উপযুক্ত প্রশিক্ষন নিয়ে কাজ শুরু করেছেন। বাস্তবে উল্টো কথা বলছেন তারাপীঠের সেবাইতরা। লক্ষ লক্ষ টাকা ব্যায় করে তারাপীঠে শৌরশক্তি চালিত মা তারার ভোগ রান্নার ব্যবস্থা কার্যত তালাবন্ধ অবস্থাতেই পড়ে রয়েছে।

যদিও তারাপীঠ সেবাইত সমিতির সভাপতি তারাময় মুখার্জী বলেন, কাঠের উনুনে মায়ের ভোগ রান্না হয়ে আসছে। সেখান থেকে উন্নত পদ্ধতি অবলম্বন করা হয়েছে। সেই পদ্ধতি চালু করতে গেলে কিছু শিখে আসতে হয়। সেই কারণে সাময়িক বন্ধ রয়েছে নতুন রান্নাঘর। তিনি কার্যন্ত স্বীকার করে নিয়েছেন, যারা ভোগ রান্না করেন তাঁদের আরও প্রশিক্ষন দরকার। তবে প্রশিক্ষন না দিয়েই যে উদ্বোধন করা হয়েছে সেই অভিযোগও তুলেছেন আর অন্যান্য সেবাইতরা। তাঁদের দাবি পরিকল্পনার অভাব রয়েছে। যেখানে তিন হাজার লোকের ভোগ রান্না হয়, সেখানে ২০ জনের ভোগ রান্না হওয়া নিয়েও সংশয় আছে নতুন ব্যবস্থায়। তাঁদের আরও অভিযোগ, এই প্রকল্পের অর্থ নয়ছয় হয়েছে। কারণ প্রশিক্ষণ ও একজন এক্সপার্ট ছাড়া উদ্বোধন করার জন্যই এই অবস্থা। তবে কি এবার মা তারার মন্দিরেও মিথ্যার আশ্রয়? উঠছে প্রশ্ন।