নীরব-মেহুলকে পলাতক অপরাধী ঘোষণার দাবি

0
13

কেন্দ্রের অর্ডিন্যান্সকে হাতিয়ার করে সর্বোচ্চ আদালতে গেল ইডি। উদ্দেশ্য পলাতক শিল্পপতি নীরব মোদি ও মেহুল চোকসির সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করা। প্রয়োজনীয় আইনি পদক্ষেপের জন্যের সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছেন ইডির আধিকারিকরা। উল্লেখ্য, সম্প্রতি কেন্দ্রীয় সরকার পলাতক আর্থিক অপরাধী হিসেবে অর্ডিন্যান্স জারি করেছে। প্রিভেনশন অব মানি লন্ডারিং আইনে মোদি এবং তাঁর মামা মেহুল চোকসিকে ‘পলাতক’ বলে উল্লেখ করা হয়েছে। নিয়ম অনুযায়ী তাদের ৬ সপ্তাহের মধ্যে হাজিরা দিতে হবে। সেটা না হলেই, তাদের ‘পলাতক আর্থিক অপরাধী’ হিসেবে ঘোষণা করবে আদালত। আর অপরাধী তকমা জুড়ে গেলেই অর্ডিন্যান্সের বলে, নীরব এবং মেহুলের দেশে এবং বিদেশে ছড়িয়ে থাকা সমস্ত সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করা যাবে। সেগুলো বিক্রি করেই মেটানো হবে ব্যাঙ্কের দেনা।