যৌনাঙ্গ কেটে আত্মহত্যার চেষ্টা বন্দীর

0
258

যৌনাঙ্গ কেটে আত্মঘাতী হওয়ার চেষ্টা করল এক বিচারাধীন বন্দী। বুধবার রাতে হুলুস্থুল পড়ে যায় মেদিনীপুর কেন্দ্রীয় সংশোধনাগারে। জানা গেছে, বন্দির নাম মুকুন্দ দোলুই।  বাড়ি চন্দ্রকোণায়। বধূ নির্যাতন ও খুনের মামলা চলছিল তার বিরুদ্ধে।  মাঝরাতেই তাকে ভর্তি করা হয় মেদিনীপুর মেডিকেলে। দীর্ঘক্ষণ ধরে চলে অস্ত্রোপচার। শারীরিক অবস্থার আরও অবনতি হলে মাঝরাতেই নিয়ে আসা হয় কলকাতায় । মানসিক অবসাদ এর জেরেই দলুই এমন ঘটনা ঘটিয়েছেন। ব্লেড জাতীয় কোন ধারালো অস্ত্র দিয়ে যৌনাঙ্গ কাটা হয়েছে, প্রাথমিকভাবে অনুমান চিকিৎসকদের। একই কথা জানান সংশোধনাগারের অন্যান্য বন্দীরাও। কয়েকদিন ধরেই দলুইয়ের আচরণে অস্বাভাবিকতা লক্ষ্য করেছেন তারাও। এই ঘটনায় স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্ন উঠছে, বন্দীদের নিরাপত্তা নিয়ে। সংশোধনাগারের সেলের মধ্যে ধারালো অস্ত্র কিভাবে এল? দীর্ঘদিন ধরেই সংশোধনাগারের ভিতরে মাদক কিংবা টাকার লেনদেন বন্ধ করতে বিভিন্ন পদক্ষেপ নিয়েছে প্রশাসন। সেই তালিকায় যোগ হল এবার ধারালো অস্ত্র। বিভিন্ন সংশোধনাগারেই বন্দীদের প্রায়শই হানাহানির ঘটনা ঘটে। তখন এভাবে কেউ যদি ধারালো অস্ত্র নিয়ে ঝাঁপিয়ে পড়ে, মারাত্মক দুর্ঘটনা ঘটা অসম্ভব কিছু না।